চুয়াডাঙ্গায় আইসোলেশনে ভারতফেরত যুবকসহ ২ জনের মৃত্যু
jugantor
চুয়াডাঙ্গায় আইসোলেশনে ভারতফেরত যুবকসহ ২ জনের মৃত্যু

  দামুড়হুদা(চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি (২১-০৫-২১):  

২১ মে ২০২১, ১৪:৫৭:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

চুয়াডাঙ্গার সদর হাসপাতালের করোনা আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভারতফেরত যুবকসহ দুজনের মৃত্যু হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে তাদের মৃত্যু হয়। তারা দুজনই করোনা পজিটিভ রোগী ছিলেন।

ভারতফেরত সাকিব উদ্দীন (১৭) চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলা শহরের কলেজপাড়ার মিজানুর রহমানের ছেলে ও আবুল হোসেন (৭৫) দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনার মদনা গ্রামের মৃত ফরদুল্লাহ আলীর ছেলে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, যুবক সাকিব গত ১১ মে করোনা পজিটিভ অবস্থায় বেনাপোল বন্দর দিয়ে দেশে প্রবেশের পর চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালের করোনা আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। এর পর গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

অপরদিকে বৃদ্ধ আবুল হোসেন জ্বর, ঠাণ্ড ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গত ১৫ মে দুপুরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে তার নমুনা পরীক্ষা করা হলে তিনি করোনা পজিটিভ হন।

এর পর থেকে হাসপাতালের আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ছিলেন আবুল হোসেন। বৃহস্পতিবার দিনগত রাত সাড়ে ৩টার দিতে তার মৃত্যু হয়।

চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জন ডা.এএসএম মারুফ হাসান জানান, মারা যাওয়া দুজনই করোনা পজিটিভ ছিলেন। এর মধ্যে ভারতফেরত যুবক ক্যানসারেও আক্রান্ত ছিলেন। তার শরীরে করোনার ভারতীয় ধরন রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গায় আইসোলেশনে ভারতফেরত যুবকসহ ২ জনের মৃত্যু

 দামুড়হুদা(চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি (২১-০৫-২১): 
২১ মে ২০২১, ০২:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

চুয়াডাঙ্গার সদর হাসপাতালের করোনা আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ভারতফেরত যুবকসহ দুজনের মৃত্যু হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার রাতে তাদের মৃত্যু হয়। তারা দুজনই করোনা পজিটিভ রোগী ছিলেন। 

ভারতফেরত সাকিব উদ্দীন (১৭) চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলা শহরের কলেজপাড়ার মিজানুর রহমানের ছেলে ও আবুল হোসেন (৭৫) দামুড়হুদা উপজেলার দর্শনার মদনা গ্রামের মৃত ফরদুল্লাহ আলীর ছেলে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, যুবক সাকিব গত ১১ মে করোনা পজিটিভ অবস্থায় বেনাপোল বন্দর দিয়ে দেশে প্রবেশের পর চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। হাসপাতালের করোনা আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। এর পর গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে তার মৃত্যু হয়। 

অপরদিকে বৃদ্ধ আবুল হোসেন জ্বর, ঠাণ্ড ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে গত ১৫ মে দুপুরে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে তার নমুনা পরীক্ষা করা হলে তিনি করোনা পজিটিভ হন। 

এর পর থেকে হাসপাতালের আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন ছিলেন আবুল হোসেন। বৃহস্পতিবার দিনগত রাত সাড়ে ৩টার দিতে তার মৃত্যু হয়। 

চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জন ডা.এএসএম মারুফ হাসান জানান, মারা যাওয়া দুজনই করোনা পজিটিভ ছিলেন। এর মধ্যে ভারতফেরত যুবক ক্যানসারেও আক্রান্ত ছিলেন। তার শরীরে করোনার ভারতীয় ধরন রয়েছে কিনা তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে। সব স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাদের মরদেহ দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন