স্বাস্থ্যবিধি ভেঙে জরিমানা গুনলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট
jugantor
স্বাস্থ্যবিধি ভেঙে জরিমানা গুনলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

  অনলাইন ডেস্ক  

১৩ জুন ২০২১, ১৩:৪৩:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনায় বিপর্যস্ত ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট কাণ্ডজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ডে বিরক্ত লাতিন আমেরিকান দেশটির নাগরিকরা।

এর আগে বহুবার তিনি করোনার বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের দায়ে সমালোচিত হয়েছেন। এবার স্বাস্থ্যবিধি ভাঙায় ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারোকে জরিমানা করা হয়েছে। খবর এএফপির।

বলসোনারোকে শনিবার করোনার বিধি ভাঙার দায়ে ১০০ মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ অর্থ জরিমানা করা হয়েছে।

ব্রাজিলের সাও পাওলোতে শনিবার কট্টর ডানপন্থি বলসোনারোর নেতৃত্বে একটি মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা বের হয়। এই শোভাযাত্রায় হাজারও মানুষ মোটরসাইকেল নিয়ে অংশ নেন।

মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় অংশ নিয়ে বলসোনারো একটি হেলমেট পরেন। কিন্তু তার পরা হেলমেটের মুখমণ্ডলের অংশ খোলা ছিল। এ সময় তার মুখে ছিল না কোনো মাস্ক। এই বিষয়টি ছিল সাও পাওলো রাজ্যের করোনাসংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধির লঙ্ঘন।

করোনার বিধি মানার ক্ষেত্রে বলসোনারোর শুরু থেকে অনাগ্রহ রয়েছে। এ নিয়ে জোয়াও দোরিয়াসহ একাধিক গভর্নরের সঙ্গে আগে বেশ কয়েকবার বিরোধে জড়ান তিনি।

করোনা নিয়ে আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যান দেওয়া সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারসের সবশেষ তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় ব্রাজিলের অবস্থান তৃতীয়। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এক কোটি ৭৩ লাখের বেশি মানুষ করোনায় সংক্রমিত হয়েছে। মারা গেছেন চার লাখ ৮৬ হাজারের বেশি মানুষ।

ব্রাজিলে করোনায় ভয়াবহ সংক্রমণের জন্য দেশটির প্রেসিডেন্ট বলসোনারোর নীতিকে দায়ী করা হয়। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ঘরে থাকা, বাইরে বের হলে মাস্ক পরার মতো বিধির বিরুদ্ধে বলসোনারোকে প্রায় নিয়মিত কথা বলতে দেখা গেছে।

সাও পাওলোতে অনুষ্ঠিত শোভাযাত্রায়ও মাস্ক পরার বিরুদ্ধে মন্তব্য করেন বলসোনারো। তিনি বলেন, যারা টিকা নিয়েছেন, তাদের আর মাস্ক পরার প্রয়োজন নেই। এ-সংক্রান্ত বিধিনিষেধ তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন তিনি।

আগামী বছর ব্রাজিলে অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন উপলক্ষ্যে দেশজুড়ে এই ধরনের শোভাযাত্রা করছেন বলসোনারো। করোনা মহামারির মধ্যে সাও পাওলোতে এ ধরনের শোভাযাত্রা না করার জন্য তাকে সতর্ক করেছিলেন রাজ্যের গভর্নর জোয়াও দোরিয়া।

বলসোনারোর রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ জোয়াও দোরিয়া বলেছিলেন, রাজ্যের স্বাস্থ্য করোনাসংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধি মানতে ব্যর্থ হলে প্রেসিডেন্টকে জরিমানা করা হতে পারে।

সাও পাওলো রাজ্যের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, করোনাসংক্রান্ত বিধিনিষেধ ভঙ্গের দায়ে বলসোনারো, তার ছেলে কংগ্রেসম্যান এদুয়ার্দো, অবকাঠামোবিষয়ক মন্ত্রী তারকিসিও গোমেসকে ১০৮ ডলার সমপরিমাণ অর্থ জরিমানা করা হয়েছে।

স্বাস্থ্যবিধি ভেঙে জরিমানা গুনলেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

 অনলাইন ডেস্ক 
১৩ জুন ২০২১, ০১:৪৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনায় বিপর্যস্ত ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট কাণ্ডজ্ঞানহীন কর্মকাণ্ডে বিরক্ত লাতিন আমেরিকান দেশটির নাগরিকরা।

এর আগে বহুবার তিনি করোনার বিধিনিষেধ লঙ্ঘনের দায়ে সমালোচিত হয়েছেন। এবার স্বাস্থ্যবিধি ভাঙায় ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারোকে জরিমানা করা হয়েছে। খবর এএফপির।

বলসোনারোকে শনিবার করোনার বিধি ভাঙার দায়ে ১০০ মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ অর্থ জরিমানা করা হয়েছে।

ব্রাজিলের সাও পাওলোতে শনিবার কট্টর ডানপন্থি বলসোনারোর নেতৃত্বে একটি মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা বের হয়। এই শোভাযাত্রায় হাজারও মানুষ মোটরসাইকেল নিয়ে অংশ নেন।

মোটরসাইকেল শোভাযাত্রায় অংশ নিয়ে বলসোনারো একটি হেলমেট পরেন। কিন্তু তার পরা হেলমেটের মুখমণ্ডলের অংশ খোলা ছিল। এ সময় তার মুখে ছিল না কোনো মাস্ক। এই বিষয়টি ছিল সাও পাওলো রাজ্যের করোনাসংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধির লঙ্ঘন।

করোনার বিধি মানার ক্ষেত্রে বলসোনারোর শুরু থেকে অনাগ্রহ রয়েছে। এ নিয়ে জোয়াও দোরিয়াসহ একাধিক গভর্নরের সঙ্গে আগে বেশ কয়েকবার বিরোধে জড়ান তিনি।

করোনা নিয়ে আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যান দেওয়া সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারসের সবশেষ তথ্যানুযায়ী, বিশ্বে করোনায় সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশের তালিকায় ব্রাজিলের অবস্থান তৃতীয়। দেশটিতে এখন পর্যন্ত এক কোটি ৭৩ লাখের বেশি মানুষ করোনায় সংক্রমিত হয়েছে। মারা গেছেন চার লাখ ৮৬ হাজারের বেশি মানুষ।

ব্রাজিলে করোনায় ভয়াবহ সংক্রমণের জন্য দেশটির প্রেসিডেন্ট বলসোনারোর নীতিকে দায়ী করা হয়। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে ঘরে থাকা, বাইরে বের হলে মাস্ক পরার মতো বিধির বিরুদ্ধে বলসোনারোকে প্রায় নিয়মিত কথা বলতে দেখা গেছে।

সাও পাওলোতে অনুষ্ঠিত শোভাযাত্রায়ও মাস্ক পরার বিরুদ্ধে মন্তব্য করেন বলসোনারো। তিনি বলেন, যারা টিকা নিয়েছেন, তাদের আর মাস্ক পরার প্রয়োজন নেই। এ-সংক্রান্ত বিধিনিষেধ তুলে দেওয়ার পরিকল্পনা করছেন তিনি।

আগামী বছর ব্রাজিলে অনুষ্ঠেয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন উপলক্ষ্যে দেশজুড়ে এই ধরনের শোভাযাত্রা করছেন বলসোনারো। করোনা মহামারির মধ্যে সাও পাওলোতে এ ধরনের শোভাযাত্রা না করার জন্য তাকে সতর্ক করেছিলেন রাজ্যের গভর্নর জোয়াও দোরিয়া।

বলসোনারোর রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ জোয়াও দোরিয়া বলেছিলেন, রাজ্যের স্বাস্থ্য করোনাসংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিধি মানতে ব্যর্থ হলে প্রেসিডেন্টকে জরিমানা করা হতে পারে।

সাও পাওলো রাজ্যের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, করোনাসংক্রান্ত বিধিনিষেধ ভঙ্গের দায়ে বলসোনারো, তার ছেলে কংগ্রেসম্যান এদুয়ার্দো, অবকাঠামোবিষয়ক মন্ত্রী তারকিসিও গোমেসকে ১০৮ ডলার সমপরিমাণ অর্থ জরিমানা করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস