ফরিদপুরে করোনা কেড়ে নিল আরও ৬ জনের প্রাণ
jugantor
ফরিদপুরে করোনা কেড়ে নিল আরও ৬ জনের প্রাণ

  ফরিদপুর ব্যুরো  

১৯ জুন ২০২১, ১৪:০৩:১১  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাস

ফরিদপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৯ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছে ৫৭ জন।

জেলা শহরের বেশির ভাগ মানুষ করোনা বিধি না মানার কারণে দিন দিন পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জেলা করোনা কমিটি নানা উদ্যোগ গ্রহণ করলেও উন্নতি হচ্ছে না পরিস্থিতির।

প্রতিদিনই ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসছে রোগী, কিন্তু চাহিদা অনুযায়ী শয্যা সংখ্যা না থাকায় ভর্তি নিতে পারছেন না কর্তৃপক্ষ। এ হাসপাতালে আইসিইউয়ে ১৬ শয্যা থাকলেও সচল রয়েছে ১৪টি।

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডা. সিদ্দীকুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছে ৭৯ জন। এর মধ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ছয়জনের।

তিনি বলেন, জেলায় এ পর্যন্ত করোনা মহামারিতে আক্রান্ত হয়েছে ১১ হাজার ৪০৭ জন, মারা গেছেন ১৯৯ জন।

এদিকে করোনার চাপ সামলাতে জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এরই মধ্যে বাজার ও মার্কেটগুলো খোলা রাখা নিয়ে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ ছাড়াও শহরে মাইকিং করা হচ্ছে করোনা বিধিনিষেধ মানার জন্য। তবে প্রশাসনিক উদ্যোগ গ্রহণ করা হলেও কেউ মানছে না করোনা বিধিনিষেধ।

ফরিদপুরে করোনা কেড়ে নিল আরও ৬ জনের প্রাণ

 ফরিদপুর ব্যুরো 
১৯ জুন ২০২১, ০২:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনাভাইরাস
ফাইল ছবি

ফরিদপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ছয়জনের মৃত্যু হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৯ জন। এর মধ্যে সদর উপজেলায় আক্রান্ত হয়েছে ৫৭ জন।

জেলা শহরের বেশির ভাগ মানুষ করোনা বিধি না মানার কারণে দিন দিন পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাচ্ছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে জেলা করোনা কমিটি নানা উদ্যোগ গ্রহণ করলেও উন্নতি হচ্ছে না পরিস্থিতির।  

প্রতিদিনই ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসছে রোগী, কিন্তু চাহিদা অনুযায়ী শয্যা সংখ্যা না থাকায় ভর্তি নিতে পারছেন না কর্তৃপক্ষ। এ হাসপাতালে আইসিইউয়ে ১৬ শয্যা থাকলেও সচল রয়েছে ১৪টি।

ফরিদপুরের সিভিল সার্জন ডা. সিদ্দীকুর রহমান যুগান্তরকে বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছে ৭৯ জন। এর মধ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ছয়জনের।

তিনি বলেন, জেলায় এ পর্যন্ত করোনা মহামারিতে আক্রান্ত হয়েছে ১১ হাজার ৪০৭ জন, মারা গেছেন ১৯৯ জন।  

এদিকে করোনার চাপ সামলাতে জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। এরই মধ্যে বাজার ও মার্কেটগুলো খোলা রাখা নিয়ে নানা পদক্ষেপ গ্রহণ ছাড়াও শহরে মাইকিং করা হচ্ছে করোনা বিধিনিষেধ মানার জন্য। তবে প্রশাসনিক উদ্যোগ গ্রহণ করা হলেও কেউ মানছে না করোনা বিধিনিষেধ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস