এবার ভারতে নদীর পানিতে মিলল করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব!
jugantor
এবার ভারতে নদীর পানিতে মিলল করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব!

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ জুন ২০২১, ১৪:৫২:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের গুজরাত রাজ্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নদী সবরমতীর পানিতে পাওয়া গেছে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব।

নদীটির ৬৯৪টি স্থান থেকে পানির নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এছাড়াও চান্দলা খালের ৫৪৯টি স্থান এবং কাঁকারিয়া খালের ৪০২টি স্থান থেকেও নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

ভারতীয় গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইআইটি নদীর পানির নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করে এ ফলাফল পেয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতের গণমাধ্যম।

এ খবরে দেশটিতে নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। স্বাভাবিকভাবেই এটা অত্যন্ত বিপজ্জনক বলেই মনে করা হচ্ছে।

আইআইটি গান্ধিনগরের গবেষণাগারের বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, গতবছরের ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহে একবার করে নদীর পানি নমুনা নিয়ে আসা হয়। সবরমতী নদীর মোট ৬৯৫টি নমুনা পরীক্ষা করার পরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছান তারা।

এদিকে আনন্দবাজার এবং ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, সবরমতি নদীই নয়, আহমেদাবাদের দু'টি বড় খাল কাঁকরিয়া ও চান্দোলার পানিতেও মিলেছে করোনাভাইরাস।

এবার ভারতে নদীর পানিতে মিলল করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব!

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ জুন ২০২১, ০২:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতের গুজরাত রাজ্যের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নদী সবরমতীর পানিতে পাওয়া গেছে করোনা ভাইরাসের অস্তিত্ব।

নদীটির ৬৯৪টি স্থান থেকে পানির নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এছাড়াও চান্দলা খালের ৫৪৯টি স্থান এবং কাঁকারিয়া খালের ৪০২টি স্থান থেকেও নমুনা সংগ্রহ করা হয়।
 
ভারতীয় গবেষণা প্রতিষ্ঠান আইআইটি নদীর পানির নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করে এ ফলাফল পেয়েছে বলে জানিয়েছে ভারতের গণমাধ্যম।  

এ খবরে দেশটিতে নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে। স্বাভাবিকভাবেই এটা অত্যন্ত বিপজ্জনক বলেই মনে করা হচ্ছে।

আইআইটি গান্ধিনগরের গবেষণাগারের বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, গতবছরের ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ২৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতি সপ্তাহে একবার করে নদীর পানি নমুনা নিয়ে আসা হয়। সবরমতী নদীর মোট ৬৯৫টি নমুনা পরীক্ষা করার পরেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে পৌঁছান তারা।

এদিকে আনন্দবাজার এবং ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, সবরমতি নদীই নয়, আহমেদাবাদের দু'টি বড় খাল কাঁকরিয়া ও চান্দোলার পানিতেও মিলেছে করোনাভাইরাস।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস