ফরিদপুরে কঠোর বিধিনিষেধ জারির আগের দিন ৪ জনের মৃত্যু
jugantor
ফরিদপুরে কঠোর বিধিনিষেধ জারির আগের দিন ৪ জনের মৃত্যু

  ফরিদপুর ব্যুরো  

২১ জুন ২০২১, ২১:৪১:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুর জেলায় (কোভিড-১৯) করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সোমবার সকাল থেকে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ কঠোর বিধিনিষেধ এর ঘোষণা দেন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। করোনার সংক্রমণের হার ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় জেলা করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটির জরুরি সভায় এ বিধিনিষেধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

কঠোর বিধিনিষেধ এর মধ্যে শুধুমাত্র কাঁচাবাজার ও ওষুধের দোকান ছাড়া সবকিছুই বন্ধ রয়েছে। এ নির্দেশনা যারা মানবেন না তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার।

কঠোর বিধিনিষেধের প্রথম দিন সোমবার সকাল থেকে মোড়ে মোড়ে পুলিশের তল্লাশি শুরু হয়েছে। উপযুক্ত কারণ ছাড়া কাউকে শহরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। অফিসের গাড়ি ছাড়া অন্য কোনো গাড়ি শহরে আসতে ও বের হতে দেওয়া হচ্ছে না। পুলিশের তল্লাশি ছিল চোখে পড়ার মতো।

এদিকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সোমবারের আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে দুজন করোনা পজিটিভ ও দুজনের সন্দেহজনক মৃত্যু হয়েছে (পরীক্ষার রেজাল্ট হাতে আসেনি)। হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ১১৬ জন।

ফরিদপুর পৌর এলাকা ছাড়াও ভাঙ্গা ও বোয়ালমারী পৌর এলাকায়ও এক সপ্তাহের জন্য (১৭ জুন রাত ১২টা) কঠোর বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হয়।

জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, প্রথম দফায় এক সপ্তাহের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে সময় আরও বাড়ানো হতে পারে।

ফরিদপুরে কঠোর বিধিনিষেধ জারির আগের দিন ৪ জনের মৃত্যু

 ফরিদপুর ব্যুরো 
২১ জুন ২০২১, ০৯:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ফরিদপুর জেলায় (কোভিড-১৯) করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় সোমবার সকাল থেকে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয়েছে। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে।

রোববার এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে এ কঠোর বিধিনিষেধ এর ঘোষণা দেন জেলা প্রশাসক অতুল সরকার। করোনার সংক্রমণের হার ও মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় জেলা করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটির জরুরি সভায় এ বিধিনিষেধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

কঠোর বিধিনিষেধ এর মধ্যে শুধুমাত্র কাঁচাবাজার ও ওষুধের দোকান ছাড়া সবকিছুই বন্ধ রয়েছে। এ নির্দেশনা যারা মানবেন না তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার।

কঠোর বিধিনিষেধের প্রথম দিন সোমবার সকাল থেকে মোড়ে মোড়ে পুলিশের তল্লাশি শুরু হয়েছে। উপযুক্ত কারণ ছাড়া কাউকে শহরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। অফিসের গাড়ি ছাড়া অন্য কোনো গাড়ি শহরে আসতে ও বের হতে দেওয়া হচ্ছে না। পুলিশের তল্লাশি ছিল চোখে পড়ার মতো।

এদিকে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সোমবারের আগের ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৪ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। এর মধ্যে দুজন করোনা পজিটিভ ও দুজনের সন্দেহজনক মৃত্যু হয়েছে (পরীক্ষার রেজাল্ট হাতে আসেনি)। হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ১১৬ জন।

ফরিদপুর পৌর এলাকা ছাড়াও ভাঙ্গা ও বোয়ালমারী পৌর এলাকায়ও এক সপ্তাহের জন্য (১৭ জুন রাত ১২টা) কঠোর বিধিনিষেধ ঘোষণা করা হয়।

জেলা প্রশাসক জানিয়েছেন, প্রথম দফায় এক সপ্তাহের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে। পরবর্তীতে সময় আরও বাড়ানো হতে পারে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস