সাতক্ষীরায় করোনা উপসর্গে ৯ জনের মৃত্যু
jugantor
সাতক্ষীরায় করোনা উপসর্গে ৯ জনের মৃত্যু

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি  

২৪ জুন ২০২১, ১১:৫৭:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাস

সাতক্ষীরায় ২৪ ঘণ্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৬৭ জন।

বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৩৭ শতাংশ। তবে এ সময়ের মধ্যে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৯ জন।

এদিকে করোনা পজিটিভ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৩ জন এবং শহরের কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে আরও ৪২ জন চিকিৎসাধীন। করোনা পজিটিভ ও উপসর্গ নিয়ে ৩৯০ জন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল এবং প্রাতিষ্ঠানিক ও পারিবারিক কোয়ারেন্টিনে চিকিৎসাধীন আছেন।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসসূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিকে গত ৫ জুন শুরু হওয়া লকডাউনের তৃতীয় সপ্তাহ শেষ হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার রাতে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মো. হুমায়ুন কবির জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার বিকালে করোনা প্রতিরোধ কমিটির বৈঠকে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হবে কী হবে না; সে সম্পর্কে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

এদিকে সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত জানান, করোনা সংক্রমণের হার হ্রাস না পাওয়া পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে।

তিনি বলেন, জনসচেতনতা কম থাকায় মানুষ লকডাউন লঙ্ঘন করছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জেলার সাত উপজেলায় জনসমাগম ও যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এজন্য পুলিশ বিভিন্ন সড়কে বসিয়েছে ব্যারিকেড।

সাতক্ষীরায় করোনা উপসর্গে ৯ জনের মৃত্যু

 সাতক্ষীরা প্রতিনিধি 
২৪ জুন ২০২১, ১১:৫৭ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনাভাইরাস
ফাইল ছবি

সাতক্ষীরায় ২৪ ঘণ্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে আরও ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৬৭ জন।

বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৩৭ শতাংশ। তবে এ সময়ের মধ্যে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৯ জন।

এদিকে করোনা পজিটিভ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৩ জন এবং শহরের কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে আরও ৪২ জন চিকিৎসাধীন। করোনা পজিটিভ ও উপসর্গ নিয়ে ৩৯০ জন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল এবং প্রাতিষ্ঠানিক ও পারিবারিক কোয়ারেন্টিনে চিকিৎসাধীন আছেন।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসসূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এদিকে গত ৫ জুন শুরু হওয়া লকডাউনের তৃতীয় সপ্তাহ শেষ হচ্ছে আগামীকাল শুক্রবার রাতে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মো. হুমায়ুন কবির জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার বিকালে করোনা প্রতিরোধ কমিটির বৈঠকে লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হবে কী হবে না; সে সম্পর্কে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

এদিকে সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত জানান, করোনা সংক্রমণের হার হ্রাস না পাওয়া পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ানো হতে পারে।

তিনি বলেন, জনসচেতনতা কম থাকায় মানুষ লকডাউন লঙ্ঘন করছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জেলার সাত উপজেলায় জনসমাগম ও যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। এজন্য পুলিশ বিভিন্ন সড়কে বসিয়েছে ব্যারিকেড।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস