যশোরে ৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৭ জন
jugantor
যশোরে ৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৭ জন

  যশোর ব্যুরো  

২৪ জুন ২০২১, ১৯:১৮:৩৮  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনায় মৃত্যু

যশোরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ও উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে পাঁচজন করোনায় ও চারজন উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। একই সময় জেলায় নতুন করে আরও ১৮৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার যশোরের সিভিল সার্জনের দেওয়া তথ্যে এসব জানা গেছে।

এদিকে উচ্চঝুঁকির কারণে যশোরে টানা তিন সপ্তাহ কঠোর বিধিনিষেধ চলমান রয়েছে। কিন্তু সাধারণ মানুষ নানা অজুহাতে বাহিরে বের হচ্ছেন। বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে যশোর পৌর এলাকায় ৮টি টিমে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছে। সেই সঙ্গে জনগণকেও সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছে প্রশাসন।

জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় যশোরে ৫০২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৮৭ জনের শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে পিসিআর ল্যাবে ২৭৭ জনের মধ্যে ১১৬ জন ও র্যাাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে ২২৫ জনের মধ্যে ৭১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্তের হার শতকরা ৩৭ ভাগ। এছাড়া একই সময়ে যশোরে করোনায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

যশোর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আরিফ আহমেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে করোনার উপসর্গ নিয়ে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। অপরদিকে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় যশোরে টানা তৃতীয় সপ্তাহের লকডাউন শুরু হয়েছে। বুধবার মধ্যরাত থেকে এ লকডাউন শুরু হয়।

যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মো. সায়েমুজ্জামান জানান, সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আজ থেকে ৭ দিনের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

যশোর পৌর এলাকায় ৮টি টিমে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছে। ওষুধ ছাড়া সব নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান খোলা থাকবে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। এছাড়া পণ্যবাহী ট্রাক ও অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া সব গণপরিবহণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

যশোরে ৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৮৭ জন

 যশোর ব্যুরো 
২৪ জুন ২০২১, ০৭:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
করোনায় মৃত্যু
ফাইল ছবি

যশোরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ও উপসর্গ নিয়ে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে পাঁচজন করোনায় ও চারজন উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। একই সময় জেলায় নতুন করে আরও ১৮৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার যশোরের সিভিল সার্জনের দেওয়া তথ্যে এসব জানা গেছে।

এদিকে উচ্চঝুঁকির কারণে যশোরে টানা তিন সপ্তাহ কঠোর বিধিনিষেধ চলমান রয়েছে। কিন্তু সাধারণ মানুষ নানা অজুহাতে বাহিরে বের হচ্ছেন। বিধিনিষেধ বাস্তবায়নে যশোর পৌর এলাকায় ৮টি টিমে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছে। সেই সঙ্গে জনগণকেও সচেতন হওয়ার পরামর্শ দিচ্ছে প্রশাসন।

জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় যশোরে ৫০২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৮৭ জনের শনাক্ত হয়েছে। এদের মধ্যে পিসিআর ল্যাবে ২৭৭ জনের মধ্যে ১১৬ জন ও র্যাাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে ২২৫ জনের মধ্যে ৭১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। আক্রান্তের হার শতকরা ৩৭ ভাগ। এছাড়া একই সময়ে যশোরে করোনায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে।

যশোর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. আরিফ আহমেদ জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে করোনার উপসর্গ নিয়ে চারজনের মৃত্যু হয়েছে। অপরদিকে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় যশোরে টানা তৃতীয় সপ্তাহের লকডাউন শুরু হয়েছে। বুধবার মধ্যরাত থেকে এ লকডাউন শুরু হয়।

যশোরের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কাজী মো. সায়েমুজ্জামান জানান, সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় আজ থেকে ৭ দিনের জন্য কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

যশোর পৌর এলাকায় ৮টি টিমে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট কাজ করছে। ওষুধ ছাড়া সব নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দোকান খোলা থাকবে দুপুর ১২টা পর্যন্ত। এছাড়া পণ্যবাহী ট্রাক ও অ্যাম্বুলেন্স ছাড়া সব গণপরিবহণ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস