টানা ৪৩ বার করোনা পজিটিভ, ১০ মাস পর সুস্থ!
jugantor
টানা ৪৩ বার করোনা পজিটিভ, ১০ মাস পর সুস্থ!

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ জুন ২০২১, ০৮:১১:০৩  |  অনলাইন সংস্করণ

জীবনের আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন ৭২ বছর বয়সি পশ্চিম ইংল্যান্ডের ব্রিস্টলের বাসিন্দা ডেভ স্মিথ।

টানা ৪৩ বার করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছিল তার। টানা দশ মাস ধরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল আর বাড়ি ছুটোছুটি করতে হয়েছে তাকে। ব্রিটেনের সেই বৃদ্ধ সম্প্রতি করোনামুক্ত হয়েছেন। খবর স্ট্রেইটস টাইমসের।

২০২০ সালের মার্চে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। তাকে সাত বার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

ডেভ বলেন, একটা সময় মৃত্যু নিশ্চিত বুঝে পরিবারের সবাইকে ডেকে পাঠিয়েছিলাম বিদায় জানানোর জন্য।

যতোবারই ডেভের কোভিড পরীক্ষা করা হয়েছে, তত বারই তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। টানা দশ মাস ধরে একজন কীভাবে করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন তা নিয়ে রীতিমতো বিস্ময় প্রকাশ করেছেন চিকিৎসকরা।

ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের সংক্রমণ রোগের বিশেষজ্ঞ এড মোরান জানিয়েছেন, ডেভের শরীরে করোনাভাইরাস অত্যন্ত ‘সক্রিয়’ ছিল।

শেষমেশ ককটেল অ্যান্টিবডি চিকিৎসার মাধ্যমে ডেভকে সুস্থ করে তোলা হয়। ডেভের দেহে কীভাবে ভাইরাস সক্রিয় ছিল, তা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করেছেন ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইরাস বিশেষজ্ঞরা।

টানা ৪৩ বার করোনা পজিটিভ, ১০ মাস পর সুস্থ!

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ জুন ২০২১, ০৮:১১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

জীবনের আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন ৭২ বছর বয়সি পশ্চিম ইংল্যান্ডের ব্রিস্টলের বাসিন্দা ডেভ স্মিথ।

টানা ৪৩ বার করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছিল তার। টানা দশ মাস ধরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতাল আর বাড়ি ছুটোছুটি করতে হয়েছে তাকে। ব্রিটেনের সেই বৃদ্ধ সম্প্রতি করোনামুক্ত হয়েছেন। খবর স্ট্রেইটস টাইমসের।

২০২০ সালের মার্চে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন তিনি। তাকে সাত বার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল।

ডেভ বলেন, একটা সময় মৃত্যু নিশ্চিত বুঝে পরিবারের সবাইকে ডেকে পাঠিয়েছিলাম বিদায় জানানোর জন্য।

যতোবারই ডেভের কোভিড পরীক্ষা করা হয়েছে, তত বারই তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। টানা দশ মাস ধরে একজন কীভাবে করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন তা নিয়ে রীতিমতো বিস্ময় প্রকাশ করেছেন চিকিৎসকরা।

ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের সংক্রমণ রোগের বিশেষজ্ঞ এড মোরান জানিয়েছেন, ডেভের শরীরে করোনাভাইরাস অত্যন্ত ‘সক্রিয়’ ছিল।

শেষমেশ ককটেল অ্যান্টিবডি চিকিৎসার মাধ্যমে ডেভকে সুস্থ করে তোলা হয়। ডেভের দেহে কীভাবে ভাইরাস সক্রিয় ছিল, তা নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শুরু করেছেন ব্রিস্টল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইরাস বিশেষজ্ঞরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস