করোনা: সাতক্ষীরায় আরও ৮ রোগীর মৃত্যু   
jugantor
করোনা: সাতক্ষীরায় আরও ৮ রোগীর মৃত্যু   

  সাতক্ষীরা প্রতিনিধি  

২৫ জুন ২০২১, ১৩:৪৫:৫০  |  অনলাইন সংস্করণ

সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও আটজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়ে একজন এবং বাকি সাতজন মারা গেছেন উপসর্গ নিয়ে।

এদিকে সাতক্ষীরায় চলমান লকডাউনের চতুর্থ সপ্তাহের প্রথম দিন আজ শুক্রবারও চলছে ঢিলেঢালাভাবে। বৃহস্পতিবার করোনা প্রতিরোধবিষয়ক এক বৈঠকে চতুর্থ দফায় মেয়াদ বাড়ানো হয় আরও সাত দিন। চতুর্থ সপ্তাহের এই লকডাউন চলবে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত।

এদিকে সাতক্ষীরায় ১৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষায় নতুন করে আরও ৪৮ রোগীর করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। শুক্রবার সকালে শেষ হওয়া গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ৩৭ শতাংশ হলেও করোনা পজিটিভ নিয়ে মারা গেছে একজন।

তবে এই সময়ের মধ্যে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও সাতজন।

করোনা পজিটিভ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৬ জন এবং শহরের কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে আরও ১৪ জনসহ ৪০ জন চিকিৎসাধীন।

করোনা পজিটিভ ও উপসর্গ নিয়ে ৪০৭ জন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল এবং প্রাতিষ্ঠানিক ও পারিবারিক কোয়ারেন্টিনে চিকিৎসাধীন।

এ যাবত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৬৩ জনের। আর উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন মোট ৩০৪ জন।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসসূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মো. হুমায়ুন কবির জানিয়েছেন, করোনা সংক্রমণের হার না কমা পর্যন্ত লকডাউন থাকতে পারে।

সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত জানান, জনসচেতনতা কম থাকায় মানুষ লকডাউন লঙ্ঘন করছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জেলার সাত উপজেলায় জনসমাগম ও যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

করোনা: সাতক্ষীরায় আরও ৮ রোগীর মৃত্যু   

 সাতক্ষীরা প্রতিনিধি 
২৫ জুন ২০২১, ০১:৪৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও আটজনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে করোনা শনাক্ত হয়ে একজন এবং বাকি সাতজন মারা গেছেন উপসর্গ নিয়ে। 

এদিকে সাতক্ষীরায় চলমান লকডাউনের চতুর্থ সপ্তাহের প্রথম দিন আজ শুক্রবারও চলছে ঢিলেঢালাভাবে। বৃহস্পতিবার করোনা প্রতিরোধবিষয়ক এক বৈঠকে চতুর্থ দফায় মেয়াদ বাড়ানো হয় আরও সাত দিন। চতুর্থ সপ্তাহের এই লকডাউন চলবে আগামী বৃহস্পতিবার পর্যন্ত। 

এদিকে সাতক্ষীরায় ১৫৮ জনের নমুনা পরীক্ষায়  নতুন করে আরও ৪৮ রোগীর করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছে। শুক্রবার সকালে শেষ হওয়া গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ৩০ দশমিক ৩৭ শতাংশ হলেও করোনা পজিটিভ নিয়ে মারা গেছে একজন।  

তবে এই সময়ের মধ্যে করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন আরও সাতজন। 

করোনা পজিটিভ নিয়ে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৬ জন এবং শহরের কয়েকটি বেসরকারি হাসপাতালে আরও ১৪ জনসহ ৪০ জন চিকিৎসাধীন। 

করোনা পজিটিভ ও উপসর্গ নিয়ে ৪০৭ জন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল এবং প্রাতিষ্ঠানিক ও পারিবারিক কোয়ারেন্টিনে চিকিৎসাধীন। 

এ যাবত করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৬৩ জনের। আর উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন মোট ৩০৪ জন। 

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসসূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। 

সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মো. হুমায়ুন কবির জানিয়েছেন, করোনা সংক্রমণের হার না কমা পর্যন্ত লকডাউন থাকতে পারে।  

সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত জানান, জনসচেতনতা কম থাকায় মানুষ লকডাউন লঙ্ঘন করছে। তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জেলার সাত উপজেলায় জনসমাগম ও যানবাহন চলাচল নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস