বগুড়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জনের মৃত্যু
jugantor
বগুড়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জনের মৃত্যু

  বগুড়া ব্যুরো  

১১ জুলাই ২০২১, ২৩:০৩:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় রোববার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় করোনা উপসর্গে মারা গেছেন ১০ জন। এছাড়া ১৮৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এ তথ্য দিয়েছেন।

করোনাভাইরাসে মৃতরা হলেন- বগুড়া সদরের মোজাম্মেল হক (৭৫), শিবগঞ্জের মহিউদ্দীন (৭২), ধুনটের সহুরা বেগম (৬৫), সিরাজগঞ্জের জিয়াউল হক (৬৫), নওগাঁর বজলুর রশিদ (৫৩), গাইবান্ধার মুরাদ হোসেন (৪৫) ও নাটোরের মিনা খানম (৫৫)। এদের মধ্যে মোজাম্মেল, সহুরা ও মহিউদ্দীন বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে, জিয়াউল, বজলুর ও মুরাদ মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে এবং মিনা খানম টিএমসি ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

বগুড়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সূত্র জানায়, রোববার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বগুড়ার দুটি হাসপাতালে ৪৮৭ জনের শরীর থেকে সংগ্রহ করা নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে ১৮৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের হার ৩৭ দশমিক ৫৭ শতাংশ। আক্রান্তদের মধ্যে সদরে ১০১ জন, শেরপুরে ২২ জন, সারিয়াকান্দিতে ১১ জন, নন্দীগ্রামে ১০ জন, সোনাতলা ও গাবতলীতে আটজন করে, শাজাহানপুরে ছয়জন, ধুনটে পাঁচজন, দুপচাঁচিয়া, শিবগঞ্জ ও কাহালুতে চারজন করে। এ সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৮৫ জন।

বগুড়া শজিমেক হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ২৮২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০৮ জন করোনা পজিটিভ হন। এখানে জিন এক্সপার্ট মেশিনে ২৬ জনের নমুনায় ১৬ জনের এবং অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ১৩৮ জনের নমুনায় ৩৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া টিএমসি ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতাল পিসিআর ল্যাবে ৪১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে।

সূত্রটি আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে সাতজনের মৃত্যু হয়। তিনটি হাসপাতালে করোনা উপসর্গে ১০ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট ১৫ হাজার ৭০৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ৫৩৫ জন। মারা গেছেন ৪৬৭ জন। বর্তমানে হাসপাতাল ও বাড়িতে চিকিৎসাধীন আছেন এক হাজার ৭০৫ জন।

বগুড়ায় গত ২৪ ঘণ্টায় ১৭ জনের মৃত্যু

 বগুড়া ব্যুরো 
১১ জুলাই ২০২১, ১১:০৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বগুড়ায় রোববার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় করোনা উপসর্গে মারা গেছেন ১০ জন। এছাড়া ১৮৩ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়।

বগুড়ার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডা. মোস্তাফিজুর রহমান তুহিন এ তথ্য দিয়েছেন।

করোনাভাইরাসে মৃতরা হলেন- বগুড়া সদরের মোজাম্মেল হক (৭৫), শিবগঞ্জের মহিউদ্দীন (৭২), ধুনটের সহুরা বেগম (৬৫), সিরাজগঞ্জের জিয়াউল হক (৬৫), নওগাঁর বজলুর রশিদ (৫৩), গাইবান্ধার মুরাদ হোসেন (৪৫) ও নাটোরের মিনা খানম (৫৫)। এদের মধ্যে মোজাম্মেল, সহুরা ও মহিউদ্দীন বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে, জিয়াউল, বজলুর ও মুরাদ মোহাম্মদ আলী হাসপাতালে এবং মিনা খানম টিএমসি ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

বগুড়া সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সূত্র জানায়, রোববার দুপুর পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বগুড়ার দুটি হাসপাতালে ৪৮৭ জনের শরীর থেকে সংগ্রহ করা নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে ১৮৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের হার ৩৭ দশমিক ৫৭ শতাংশ। আক্রান্তদের মধ্যে সদরে ১০১ জন, শেরপুরে ২২ জন, সারিয়াকান্দিতে ১১ জন, নন্দীগ্রামে ১০ জন, সোনাতলা ও গাবতলীতে আটজন করে, শাজাহানপুরে ছয়জন, ধুনটে পাঁচজন, দুপচাঁচিয়া, শিবগঞ্জ ও কাহালুতে চারজন করে। এ সময়ে সুস্থ হয়েছেন ৮৫ জন।

বগুড়া শজিমেক হাসপাতালের পিসিআর ল্যাবে ২৮২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১০৮ জন করোনা পজিটিভ হন। এখানে জিন এক্সপার্ট মেশিনে ২৬ জনের নমুনায় ১৬ জনের এবং অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় ১৩৮ জনের নমুনায় ৩৬ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এছাড়া টিএমসি ও রফাতুল্লাহ কমিউনিটি হাসপাতাল পিসিআর ল্যাবে ৪১ জনের নমুনা পরীক্ষায় ২৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে।

সূত্রটি আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে সাতজনের মৃত্যু হয়। তিনটি হাসপাতালে করোনা উপসর্গে ১০ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট ১৫ হাজার ৭০৭ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ৫৩৫ জন। মারা গেছেন ৪৬৭ জন। বর্তমানে হাসপাতাল ও বাড়িতে চিকিৎসাধীন আছেন এক হাজার ৭০৫ জন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১