নভেম্বর থেকে করোনার ‘পিল’ পাবেন রোগীরা
jugantor
নভেম্বর থেকে করোনার ‘পিল’ পাবেন রোগীরা

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯:২৮:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

তিন লাখ মুখে খাওয়ার করোনার ‘ট্যাবলেট’ বা পিল মলনুপিরাভ পাচ্ছে ফিলিপাইন। আগামী মাসেই বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা মেরেকের তৈরি মুখে খাওয়ার কোভিড ট্যাবলেট ফিলিপাইনে পৌঁছাবে বলে দেশটির লাইসেন্সপ্রাপ্ত আমদানিকারক এবং পরিবেশকরা বুধবার জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে ফিলিপাইন স্বাস্থ্য সেবাবিষয়ক পণ্য আমদানিকারক মেডএথিক্সের প্রেসিডেন্ট মোনালিজা সালিয়ান এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, দেশের মানুষ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী মলনুপিরাভ পাবেন।

তিনি আরও জানান, করোনা রোগীদের জন্য তিন লাখ ওষুধ আমদানি করা হচ্ছে। মলনুপিরাভের প্রথম ব্যাচই ফিলিপাইন পাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

প্রতিটি ওষুধের দাম একশ থেকে দেড়শ ফিলিপাইনি পেসো (বাংলাদেশি মুদ্রায় ১৬০ থেকে আড়াইশ টাকার মধ্যে) নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ওষুধ পরিবেশক ফার্মাসিউটিক্যাল ফার্ম জ্যাকফার্মার প্রেসিডেন্ট মেনেলিও হার্নান্দেজ।

ফিলিপাইন ৩১টি হাসপাতালের জন্য মলনুপিরাভিরের ‘সহানুভূতিশীল ব্যবহার’ অনুমোদন করেছে বলে দেশটির খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের প্রধান রোল্যান্ডো এনরিক ডোমিঙ্গো বুধবার জানিয়েছেন।

অনুমোদন পেলে মলনুপিরাভ হবে বিশ্বের প্রথম করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধ।

তবে এখনো অনুমোদনের অপেক্ষায় থাকা এই ওষুধ পাওয়ার জন্য এরই মধ্যে ধনী ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোর মধ্যে প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে।

নভেম্বর থেকে করোনার ‘পিল’ পাবেন রোগীরা

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৭ অক্টোবর ২০২১, ০৭:২৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

তিন লাখ মুখে খাওয়ার করোনার ‘ট্যাবলেট’ বা পিল মলনুপিরাভ পাচ্ছে ফিলিপাইন। আগামী মাসেই বহুজাতিক ওষুধ প্রস্তুতকারী সংস্থা মেরেকের তৈরি মুখে খাওয়ার কোভিড ট্যাবলেট ফিলিপাইনে পৌঁছাবে বলে দেশটির লাইসেন্সপ্রাপ্ত আমদানিকারক এবং পরিবেশকরা বুধবার জানিয়েছেন। 

এ ব্যাপারে ফিলিপাইন স্বাস্থ্য সেবাবিষয়ক পণ্য আমদানিকারক মেডএথিক্সের প্রেসিডেন্ট  মোনালিজা সালিয়ান এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, দেশের মানুষ চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী মলনুপিরাভ পাবেন। 

তিনি আরও জানান, করোনা রোগীদের জন্য তিন লাখ ওষুধ আমদানি করা হচ্ছে। মলনুপিরাভের প্রথম ব্যাচই ফিলিপাইন পাচ্ছে বলেও জানান তিনি। 

প্রতিটি ওষুধের দাম একশ থেকে দেড়শ ফিলিপাইনি পেসো (বাংলাদেশি মুদ্রায়  ১৬০ থেকে আড়াইশ টাকার মধ্যে) নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ওষুধ পরিবেশক ফার্মাসিউটিক্যাল ফার্ম জ্যাকফার্মার প্রেসিডেন্ট মেনেলিও হার্নান্দেজ।

ফিলিপাইন ৩১টি হাসপাতালের জন্য মলনুপিরাভিরের ‘সহানুভূতিশীল ব্যবহার’ অনুমোদন করেছে বলে দেশটির খাদ্য ও ওষুধ প্রশাসনের প্রধান রোল্যান্ডো এনরিক ডোমিঙ্গো বুধবার জানিয়েছেন।

অনুমোদন পেলে মলনুপিরাভ হবে বিশ্বের প্রথম করোনার মুখে খাওয়ার ওষুধ। 

তবে এখনো অনুমোদনের অপেক্ষায় থাকা এই ওষুধ পাওয়ার জন্য এরই মধ্যে ধনী ও মধ্যম আয়ের দেশগুলোর মধ্যে প্রতিযোগিতা শুরু হয়েছে।
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন