আফ্রিকাকে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেবে চীন
jugantor
আফ্রিকাকে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেবে চীন

  যুগান্তর ডেস্ক  

৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৫:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

আফ্রিকার দেশগুলোতে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করছে চীন। এর মধ্যে ৬০ কোটি সরাসরি এবং বিকল্প উৎস হতে ৪০ কোটি ডোজ টিকা সহায়তা দেওয়া হবে।

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সোমবার এ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বলে আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে।

এদিন এক সম্মেলনে অংশ নিয়ে তিনি বলেন, কোভিডের বিরুদ্ধে সবাইকে এক হয়ে লড়াই অব্যাহত রাখতে হবে। আমাদের জনগণকে সুরক্ষার দেওয়ার বিষয়টি অগ্রাধিকার দিতে হবে।

ইতোমধ্যে আফ্রিকায় ২০ কোটিরও বেশি করোনার প্রতিষেধক টিকা সরবরাহ করেছে বেইজিং। এর বেশিরভাগই নিজেদের উদ্ভাবিত সিনোফার্মের টিকা।

আফ্রিকার দেশগুলোতে চীনের কোম্পানিগুলোকে ১০ বিলিয়নের কম বিনোয়োগ না করতে উৎসাহিত করবেন বলে মন্তব্য করেন চীনা প্রেসিডেন্ট।

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনার নতুন ধরনের নাম রাখা হয়েছে ‘ওমিক্রন’। বলা হচ্ছে, করোনার ডেল্টা ধরনের চেয়েও এটি ভয়ংকর।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও (ডব্লিউএইচও) জানায়, এ ধরনটি উদ্বেগজনক। তবে সংস্থাটি বলছে, মানুষের শরীরে এর ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আরও কয়েক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে। এ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে।

করোনাভাইরাসের দক্ষিণ আফ্রিকান ভেরিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’ ডেল্টা ভেরিয়েন্টের চেয়ে অধিক সংক্রামক। তাই করোনাভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা রয়েছে।

আফ্রিকাকে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেবে চীন

 যুগান্তর ডেস্ক 
৩০ নভেম্বর ২০২১, ১২:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

আফ্রিকার দেশগুলোতে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেওয়ার ব্যবস্থা করছে চীন। এর মধ্যে ৬০ কোটি সরাসরি এবং বিকল্প উৎস হতে ৪০ কোটি ডোজ টিকা সহায়তা দেওয়া হবে।

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সোমবার এ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বলে আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে। 

এদিন এক সম্মেলনে অংশ নিয়ে তিনি বলেন, কোভিডের বিরুদ্ধে সবাইকে এক হয়ে লড়াই অব্যাহত রাখতে হবে। আমাদের জনগণকে সুরক্ষার দেওয়ার বিষয়টি অগ্রাধিকার দিতে হবে।

ইতোমধ্যে আফ্রিকায় ২০ কোটিরও বেশি করোনার প্রতিষেধক টিকা সরবরাহ করেছে বেইজিং। এর বেশিরভাগই নিজেদের উদ্ভাবিত সিনোফার্মের টিকা।

আফ্রিকার দেশগুলোতে চীনের কোম্পানিগুলোকে ১০ বিলিয়নের কম বিনোয়োগ না করতে উৎসাহিত করবেন বলে মন্তব্য করেন চীনা প্রেসিডেন্ট।  

সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় প্রথম শনাক্ত হওয়া করোনার নতুন ধরনের নাম রাখা হয়েছে ‘ওমিক্রন’। বলা হচ্ছে, করোনার ডেল্টা ধরনের চেয়েও এটি ভয়ংকর। 

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাও (ডব্লিউএইচও) জানায়, এ ধরনটি উদ্বেগজনক। তবে সংস্থাটি বলছে, মানুষের শরীরে এর ক্ষতিকর প্রভাব সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে আরও কয়েক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে। এ নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। 

করোনাভাইরাসের দক্ষিণ আফ্রিকান ভেরিয়েন্ট ‘ওমিক্রন’ ডেল্টা ভেরিয়েন্টের চেয়ে অধিক সংক্রামক। তাই করোনাভাইরাস দ্রুত ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন