ভারতে একদিনে আড়াই লাখের বেশি করোনায় আক্রান্ত
jugantor
ভারতে একদিনে আড়াই লাখের বেশি করোনায় আক্রান্ত

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৭:১০:৩৪  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতে করোনার সংক্রমণ নিম্নমুখী হলেও মৃত্যু বেড়েছে। শুক্রবার দেশটিতে ৬২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা বৃহস্পতিবারের তুলনায় বেশি। বৃহস্পতিবার করোনা আক্রান্ত হয়ে ৫৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

এ সময়ে নতুনভাবে আরও ২ লাখ ৫১ হাজার ২০৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪ কোটি ৬ লাখ ২২ হাজার ৭০৯ জনে।

শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত মোট ৪ লাখ ৯২ হাজার ৩২৭ মানুষ করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন।

গত মঙ্গলবার থেকে ভারতে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা তিন লাখের নীচে রয়েছে। সে ধারা অব্যাহত ছিল শুক্রবারও।

বৃহস্পতিবার দেশটিতে সংক্রমণের হার ছিল ১৯ দশমিক ৫৯ শতাংশ। শুক্রবার তা কমে দাঁড়িয়েছে ১৫ দশমিক ৮৮ শতাংশ। সাপ্তাহিক সংক্রমণের হারও সামান্য কমে হয়েছে ১৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ।

ভারতে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় উদ্বেগের কারণ করোনার সক্রিয় রোগী। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের রিপোর্ট অনুযায়ী, বর্তমানে দেশটিতে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২১ লাখের বেশি। এই মুহূর্তে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা মোট সংক্রমণের ৫ দশমিক ১৮ শতাংশ। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৩ দশমিক ৬ শতাংশ। বৃহস্পতিবার এই হার ছিল ৯৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

ভারতে একদিনে আড়াই লাখের বেশি করোনায় আক্রান্ত

 যুগান্তর ডেস্ক 
২৮ জানুয়ারি ২০২২, ০৫:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ভারতে করোনার সংক্রমণ নিম্নমুখী হলেও মৃত্যু বেড়েছে।  শুক্রবার দেশটিতে ৬২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা বৃহস্পতিবারের তুলনায় বেশি। বৃহস্পতিবার করোনা আক্রান্ত হয়ে ৫৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছিল। 

এ সময়ে নতুনভাবে আরও ২ লাখ ৫১ হাজার ২০৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।  এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪ কোটি ৬ লাখ ২২ হাজার ৭০৯ জনে।

শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।  দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত মোট ৪ লাখ ৯২ হাজার ৩২৭ মানুষ করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন।

গত মঙ্গলবার থেকে ভারতে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা তিন লাখের নীচে রয়েছে। সে ধারা অব্যাহত ছিল শুক্রবারও। 

বৃহস্পতিবার দেশটিতে সংক্রমণের হার ছিল ১৯ দশমিক ৫৯ শতাংশ। শুক্রবার তা কমে দাঁড়িয়েছে ১৫ দশমিক ৮৮ শতাংশ। সাপ্তাহিক সংক্রমণের হারও সামান্য কমে হয়েছে ১৭ দশমিক ৪৭ শতাংশ।

ভারতে এই মুহূর্তে সবচেয়ে বড় উদ্বেগের কারণ করোনার সক্রিয় রোগী। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের রিপোর্ট অনুযায়ী, বর্তমানে দেশটিতে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২১ লাখের বেশি। এই মুহূর্তে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা মোট সংক্রমণের ৫ দশমিক ১৮ শতাংশ। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে সুস্থতার হার বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯৩ দশমিক ৬ শতাংশ। বৃহস্পতিবার এই হার ছিল ৯৩ দশমিক ৩৩ শতাংশ।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন