করোনায় ‘গুরুতর অসুস্থ’ ছিলেন কিম জং উন
jugantor
করোনায় ‘গুরুতর অসুস্থ’ ছিলেন কিম জং উন

  অনলাইন ডেস্ক  

১১ আগস্ট ২০২২, ১৫:০৬:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

উত্তর কোরিয়ায় কোভিড প্রাদুর্ভাবের সময় দেশটির শীর্ষ নেতা কিম জং উন জ্বরে ‘গুরুতর অসুস্থ’ হয়ে পড়েছিল বলে তার বোন কিম ইয়ো জং জানিয়েছেন।

শনাক্তকরণ উপকরণের ঘাটতি থাকায় উত্তর কোরিয়া ওই প্রাদুর্ভাবের সময় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা না জানিয়ে কতজনের জ্বর হয়েছে, তা জানাত।

সেই সময়ে উত্তরের শীর্ষ নেতার জ্বর হওয়ার অর্থ তিনিও প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসেই আক্রান্ত হয়েছিলেন বলেই মনে হচ্ছে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

কিম ইয়ো জং তার দেশে কোভিডের প্রাদুর্ভাবের জন্য দক্ষিণ কোরিয়াকে দায়ী করে বলেছেন, তারা সীমান্ত দিয়ে করোনাভাইরাস সংক্রমিত লিফলেট পাঠিয়েছিল।

দক্ষিণ কোরিয়া এ অভিযোগকে ‘ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে। স্বাস্থ্যকর্মী ও বিজ্ঞানীদের নিয়ে এক সভায় কিম জং উন কোভিডের বিরুদ্ধে উত্তর কোরিয়ার জয়ী হওয়ার ঘোষণা দেন বলে বৃহস্পতিবার কেসিএনএর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

পিয়ংইয়ংয়ের ওই সভাতেই কিম ইয়ো জং ভাইয়ের ‘জ্বর হয়েছিল’ বলে জানান।

কঠোর গোপনীয়তা মেনে চলা দেশটি চলতি বছরের মে মাসে প্রথম উত্তর কোরিয়ায় কোভিডের প্রাদুর্ভাবের কথা জানায়। এর পর থেকে তারা জ্বরে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা জানিয়ে এলেও তাদের দেওয়া তথ্যের সত্যতা নিয়ে অনেকেই সন্দেহ পোষণ করেছেন।

করোনায় ‘গুরুতর অসুস্থ’ ছিলেন কিম জং উন

 অনলাইন ডেস্ক 
১১ আগস্ট ২০২২, ০৩:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

উত্তর কোরিয়ায় কোভিড প্রাদুর্ভাবের সময় দেশটির শীর্ষ নেতা কিম জং উন জ্বরে ‘গুরুতর অসুস্থ’ হয়ে পড়েছিল বলে তার বোন কিম ইয়ো জং জানিয়েছেন।

শনাক্তকরণ উপকরণের ঘাটতি থাকায় উত্তর কোরিয়া ওই প্রাদুর্ভাবের সময় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা না জানিয়ে কতজনের জ্বর হয়েছে, তা জানাত।

সেই সময়ে উত্তরের শীর্ষ নেতার জ্বর হওয়ার অর্থ তিনিও প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসেই আক্রান্ত হয়েছিলেন বলেই মনে হচ্ছে। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

কিম ইয়ো জং তার দেশে কোভিডের প্রাদুর্ভাবের জন্য দক্ষিণ কোরিয়াকে দায়ী করে বলেছেন, তারা সীমান্ত দিয়ে করোনাভাইরাস সংক্রমিত লিফলেট পাঠিয়েছিল।

দক্ষিণ কোরিয়া এ অভিযোগকে ‘ভিত্তিহীন’ বলে উড়িয়ে দিয়েছে। স্বাস্থ্যকর্মী ও বিজ্ঞানীদের নিয়ে এক সভায় কিম জং উন কোভিডের বিরুদ্ধে উত্তর কোরিয়ার জয়ী হওয়ার ঘোষণা দেন বলে বৃহস্পতিবার কেসিএনএর এক প্রতিবেদনে জানানো হয়।

পিয়ংইয়ংয়ের ওই সভাতেই কিম ইয়ো জং ভাইয়ের ‘জ্বর হয়েছিল’ বলে জানান।

কঠোর গোপনীয়তা মেনে চলা দেশটি চলতি বছরের মে মাসে প্রথম উত্তর কোরিয়ায় কোভিডের প্রাদুর্ভাবের কথা জানায়। এর পর থেকে তারা জ্বরে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা জানিয়ে এলেও তাদের দেওয়া তথ্যের সত্যতা নিয়ে অনেকেই সন্দেহ পোষণ করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন