শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি আছে কিনা বুঝবেন ৫ লক্ষণে
jugantor
শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি আছে কিনা বুঝবেন ৫ লক্ষণে

  লাইফস্টাইল ডেস্ক  

২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩:২২:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি আছে কিনা বুঝবেন ৫ লক্ষণে

আমাদের শরীরের জন্য অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হচ্ছে প্রোটিন। এর ঘাটতি দেখা দিলে শরীর নানা উপসর্গ দেখা দেয়। খাবার-দাবারে একটু সচেতন হলে প্রোটিনের ঘাটতি দূর করা সম্ভব।

শরীরের পেশি, ত্বক, এনজাইম, হরমোন বিল্ডিং ব্লক এবং সব টিস্যুর জন্য অপরিহার্য ভূমিকা পালন করে প্রোটিন। আশাব্যঞ্জক খবর হচ্ছে— প্রায় সব খাবারেই কমবেশি প্রোটিন থাকে।

কিন্তু তার পরও আপনাকে মনে রাখতে হবে যে, শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি হলে তা আপনাকে বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যার দিকে ঠেলে দিতে পারে। এর ঘাটতির কারণে ত্বক রুক্ষ-শুষ্ক হওয়া, নখ ভেঙে যাওয়া, চুলের বিভিন্ন সমস্যাসহ ক্ষুধার পরিমাণ বেড়ে যাওয়া— এমনকি উদ্বেগ পর্যন্ত সৃষ্টি হতে পারে।

তাই আপনাকে জানতে হবে কখন আপনার শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি হচ্ছে এবং এর বিপরীতে প্রোটিনযুক্ত খাবার খেতে হবে। এ কারণে আজ আপনার জন্য থাকছে যে ৫ লক্ষণে শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি—

১. এডিমা
প্রোটিনের অভাবের কারণে ত্বক ফুলে যাওয়া বা ফোলাভাব দেখা দিতে পারে। মানুষের শরীরে প্রোটিনের অভাবের কারণে অনকোটিক চাপ কমিয়ে দেয়। আর এর ফলে টিস্যুতে তরল জমা হয়ে ত্বক ও শরীর ফুলে যেতে পারে।

২. ফ্যাটি লিভার
লিভারের কোষে চর্বি জমে যাওয়া বা ফ্যাটি লিভার হতে পারে প্রোটিনের ঘাটতির আরেকটি লক্ষণ। শুধু প্রোটিনের অভাবের কারণেই এমনটি হতে পারে তা নয়। তবে এমনটি হয়ে গেলে তার চিকিৎসা নেওয়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ। নইলে এর ফলে প্রদাহ, যকৃতের দাগ এমনটি লিভার অকেজো পর্যন্ত হতে পারে।

৩. ত্বক, চুল ও নখের সমস্যা
ত্বক, চুল ও নখে প্রোটিন দিয়েই তৈরি হওয়ার কারণে প্রোটিনের ঘাটতি দেখা দিলে এগুলোর ওপরে অনেক প্রভাব ফেলে। প্রোটিনের অভাবে চুল পাতলা হয়ে যাওয়া, চুলের রঙ বিবর্ণ হয়ে যাওয়া, চুল পড়ে যাওয়া, নখ ভেঙে যাওয়া এবং ত্বক লালচেভাব হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৪. হড়ের ক্ষতি
প্রোটিনের অভাব যে শুধু পেশি বা ত্বকের ওপরে প্রভাব ফেলে তা নয়। এটি হাড়েকেও অনেক ঝুঁকিতে ফেলতে পারে। এটির অভাবে হাড়ের ক্ষয়, হাড়কে দুর্বল ও ফ্র্যাকচারের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৫. পেশি দুর্বল হয়ে যাওয়া
পেশি হচ্ছে প্রোটিনের অন্যতম একটি বড় আশ্রয়স্থল। আর এ কারণে শরীরে প্রোটিনের অভাব হলে আপনার পেশি দুর্বল হয়ে যেতে পারে। এমনকি প্রোটিনের অভাবের কারণে পেশি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। আর এমনটি বয়স্কদের ক্ষেত্রে অনেক বেশি দেখা দেয়। তাই আপনার পেশি দুর্বল মনে হলে পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রোটিনযুক্ত খাবার খান।

তথ্যসূত্র: হেলথলাইন ডটকম

শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি আছে কিনা বুঝবেন ৫ লক্ষণে

 লাইফস্টাইল ডেস্ক 
২৮ অক্টোবর ২০২১, ০১:২২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি আছে কিনা বুঝবেন ৫ লক্ষণে
ছবি: সংগৃহীত

আমাদের শরীরের জন্য অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হচ্ছে প্রোটিন। এর ঘাটতি দেখা দিলে শরীর নানা উপসর্গ দেখা দেয়। খাবার-দাবারে একটু সচেতন হলে প্রোটিনের ঘাটতি দূর করা সম্ভব। 

শরীরের পেশি, ত্বক, এনজাইম, হরমোন বিল্ডিং ব্লক এবং সব টিস্যুর জন্য অপরিহার্য ভূমিকা পালন করে প্রোটিন। আশাব্যঞ্জক খবর হচ্ছে— প্রায় সব খাবারেই কমবেশি প্রোটিন থাকে।

কিন্তু তার পরও আপনাকে মনে রাখতে হবে যে, শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি হলে তা আপনাকে বিভিন্ন স্বাস্থ্য সমস্যার দিকে ঠেলে দিতে পারে। এর ঘাটতির কারণে ত্বক রুক্ষ-শুষ্ক হওয়া, নখ ভেঙে যাওয়া, চুলের বিভিন্ন সমস্যাসহ ক্ষুধার পরিমাণ বেড়ে যাওয়া— এমনকি উদ্বেগ পর্যন্ত সৃষ্টি হতে পারে।

তাই আপনাকে জানতে হবে কখন আপনার শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি হচ্ছে এবং এর বিপরীতে প্রোটিনযুক্ত খাবার খেতে হবে। এ কারণে আজ আপনার জন্য থাকছে যে ৫ লক্ষণে শরীরে প্রোটিনের ঘাটতি—

১. এডিমা
প্রোটিনের অভাবের কারণে ত্বক ফুলে যাওয়া বা ফোলাভাব দেখা দিতে পারে। মানুষের শরীরে প্রোটিনের অভাবের কারণে অনকোটিক চাপ কমিয়ে দেয়। আর এর ফলে টিস্যুতে তরল জমা হয়ে ত্বক ও শরীর ফুলে যেতে পারে।

২. ফ্যাটি লিভার
লিভারের কোষে চর্বি জমে যাওয়া বা ফ্যাটি লিভার হতে পারে প্রোটিনের ঘাটতির আরেকটি লক্ষণ। শুধু প্রোটিনের অভাবের কারণেই এমনটি হতে পারে তা নয়। তবে এমনটি হয়ে গেলে তার চিকিৎসা নেওয়া অনেক গুরুত্বপূর্ণ। নইলে এর ফলে প্রদাহ, যকৃতের দাগ এমনটি লিভার অকেজো পর্যন্ত হতে পারে।

৩. ত্বক, চুল ও নখের সমস্যা
ত্বক, চুল ও নখে প্রোটিন দিয়েই তৈরি হওয়ার কারণে প্রোটিনের ঘাটতি দেখা দিলে এগুলোর ওপরে অনেক প্রভাব ফেলে। প্রোটিনের অভাবে চুল পাতলা হয়ে যাওয়া, চুলের রঙ বিবর্ণ হয়ে যাওয়া, চুল পড়ে যাওয়া, নখ ভেঙে যাওয়া এবং ত্বক লালচেভাব হয়ে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৪. হড়ের ক্ষতি
প্রোটিনের অভাব যে শুধু পেশি বা ত্বকের ওপরে প্রভাব ফেলে তা নয়। এটি হাড়েকেও অনেক ঝুঁকিতে ফেলতে পারে। এটির অভাবে হাড়ের ক্ষয়, হাড়কে দুর্বল ও ফ্র্যাকচারের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৫. পেশি দুর্বল হয়ে যাওয়া
পেশি হচ্ছে প্রোটিনের অন্যতম একটি বড় আশ্রয়স্থল। আর এ কারণে শরীরে প্রোটিনের অভাব হলে আপনার পেশি দুর্বল হয়ে যেতে পারে। এমনকি প্রোটিনের অভাবের কারণে পেশি নষ্ট হয়ে যেতে পারে। আর এমনটি বয়স্কদের ক্ষেত্রে অনেক বেশি দেখা দেয়। তাই আপনার পেশি দুর্বল মনে হলে পর্যাপ্ত পরিমাণে প্রোটিনযুক্ত খাবার খান।

তথ্যসূত্র: হেলথলাইন ডটকম 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন