বিকাশ পেমেন্টে স্বাচ্ছন্দ্য বাড়িয়েছে অ্যাডমানি সার্ভিস

  যুগান্তর ডেস্ক ৩১ মে ২০১৯, ১১:৪৭ | অনলাইন সংস্করণ

বিকাশ পেমেন্টে স্বাচ্ছন্দ্য বাড়িয়েছে অ্যাডমানি সার্ভিস

রোজা ও ঈদ সামনে রেখে বিকাশ পেমেন্টে কেনাকাটা করার পরিমাণ বেড়েছে কয়েক গুণ। বিকাশের ক্যাশব্যাক অফারের কারণে ক্রেতারা এখন তাদের বাজেটের ভেতরেও আরও বাড়তি কিছু কেনার সুযোগ পাচ্ছেন।

এই কেনাকাটা আরও বেশি স্বাচ্ছন্দ্যময় হয়ে উঠেছে বিকাশের অ্যাডমানি সার্ভিসের কল্যাণে।

এ বছর চালু হওয়া অ্যাডমানি সার্ভিসে গ্রাহক নিজের প্রয়োজন অনুসারে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে যেকোনো সময় বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠাতে পারছেন।

কেবল ব্যাংক অ্যাকাউন্ট নয়, লোকাল ব্যাংক থেকে ইস্যুকৃত যেকোনো ধরনের মাস্টার কার্ড থেকে তাৎক্ষণিক বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠানোর সুবিধাও যুক্ত হয়েছে অ্যাডমানি সেবায়।

ফলে এখন এজেন্ট পয়েন্টে গিয়ে ক্যাশ-ইন না করে দিনরাত ২৪ ঘণ্টা যেকোনো স্থান থেকেই ব্যাংকের অনলাইন থেকে অথবা বিকাশ অ্যাপে মাস্টার কার্ড থেকে প্রয়োজনীয় অর্থ বিকাশে পাঠানো যাচ্ছে।

উল্লেখ্য, বর্তমানে ব্র্যাক ব্যাংক, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, মিডল্যান্ড ব্যাংক ও মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের অনলাইন থেকে গ্রাহক নির্দিষ্ট ধাপ অনুসরণ করে সহজেই বিকাশ অ্যাকাউন্টে টাকা ট্রান্সফার করতে পারছেন কোনো ধরনের বাড়তি খরচ ছাড়াই।

এ ছাড়া যেকোনো ধরনের মাস্টার কার্ড থেকে বিকাশ অ্যাপেই নিজের অথবা অন্য যে কারও অ্যাকাউন্টে তাৎক্ষণিক টাকা ট্রান্সফার সুবিধা মিলছে। এ ক্ষেত্রে বাড়তি কোনো চার্জ লাগছে না।

কর্মজীবী নারী রওশন আরা হোসেন ঈদ উপলক্ষে পরিবার ও প্রিয়জনের বাইরে আরও অনেকের জন্যই কেনাকাটা করেন। ঘর সাজানোর জিনিসপত্রও থাকে এ তালিকায়। আর কেনাকাটা যেহেতু বেশি, তাই কোথায় কি অফার চলছে তা দেখে বুঝেই কেনাকাটা করেন। এবার বিকাশের ক্যাশব্যাক অফারে তিনি প্রচুর কেনাকাটা করেছেন।

তিনি বলেন, আগে এজেন্ট থেকে ক্যাশ-ইন করে মার্কেটে গিয়ে পেমেন্ট করতাম। কিন্তু এবার আমার মাস্টার কার্ড থেকে বিকাশে টাকা অ্যাডমানি করে কেনাকাটা করেছি। যতটুকু প্রয়োজন ঠিক ততটুকু টাকা বিকাশ অ্যাকাউন্টে নিয়ে নির্বিঘ্নে কেনাকাটা করেছি।

শরিফুল ইসলামের জন্য আবার অ্যাডমানি অন্যভাবে সুবিধা নিয়ে এসেছে। তিনি মাসের শুরুতে তার বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া দুই ভাইবোন এবং মাকে বিকাশে টাকা পাঠান। অ্যাডমানি চালু হওয়ার পর থেকে সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকেই টাকা পাঠাচ্ছেন তিনি।

বিকাশ সূত্রে জানা যায়, চালু হওয়ার পর থেকেই এ সেবায় গ্রাহকরা ভালো সাড়া দিচ্ছেন। তাদের হিসাবমতে মাসে প্রায় দুই লাখ অ্যাডমানি ট্রানজেকশন হচ্ছে। ঈদ উপলক্ষে এ সেবার ব্যবহার আরও কয়েক গুণ বেড়েছে বলে জানায় বিকাশ।

বিকাশের হেড অব কর্পোরেট কমিউনিকেশন্স শামসুদ্দিন হায়দার ডালিম বলেন, টাকা পাঠানোই কেবল নয়, ৭০ হাজারের বেশি মার্চেন্ট পয়েন্টে পেমেন্ট, রেস্টুরেন্টে পেমেন্ট, অনলাইন কেনাকাটায় পেমেন্ট, বিভিন্ন ধরনের ইউটিলিটি বিল, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ফি পরিশোধ, রাইড শেয়ারিং সেবা, বাস-ট্রেনের টিকিটের দাম পরিশোধসহ নানা স্থানে বিকাশ পেমেন্ট হচ্ছে। ফলে গ্রাহকের বিকাশ অ্যাকাউন্টে আরও বেশি অর্থ প্রয়োজন হয়। অ্যাডমানি সেবায় বিকাশে টাকা পাঠানো এখন কয়েকটি ক্লিকের ব্যাপার মাত্র, যা সার্বিক সেবা আরও স্বাচ্ছন্দ্যময় করেছে।

আর সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো গ্রাহক তার প্রয়োজনমতো যেকোনো সময় যেকোনো স্থান থেকে মুহূর্তেই অ্যাডমানি করতে পারছেন। ফলে যখনই প্রয়োজন, তখনই নিজের টাকা ব্যবহারে আরও বেশি সক্ষমতা পেয়েছে গ্রাহক।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×