ব্যবসায়ীদের সঙ্গে রাজস্ব বোর্ডের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক রাখতে হবে

  যুগান্তর রিপোর্ট ০৪ জানুয়ারি ২০১৮, ১১:৩৩ | অনলাইন সংস্করণ

মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া
মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া। ফাইল ছবি

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) নতুন চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেছেন, কড়াকড়ি আরোপ করে নয়, মানুষের অর্থনৈতিক উন্নয়নের মাধ্যমে রাজস্ব আদায় বাড়াতে হবে। তিনি বলেন, ব্যবসায়ীদের সঙ্গে রাজস্ব বোর্ডের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক রাখতে হবে।

বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় এনবিআরের সম্মেলন কক্ষে এ কথা বলেন তিনি। বুধবার সাবেক এই শিল্প সচিবকে দু্ই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয় সরকার।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ‘ব্যবসায়ীদের সঙ্গে হৃদ্যতাপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখতে হবে। এই সম্পর্কের মাধ্যমেই সরকারের পাওনা আদায় করতে হবে। কঠোর পদ্ধতি কর আদায়ের কার্যপন্থা নয়। এমনভাবে কর আদায় করতে হবে, যাতে অর্থনীতি ও মানুষের জীবনে প্রভাব না পড়ে’।

অর্থনীতি সমৃদ্ধ হলে কর আদায় স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাড়বে বলে মনে করেন মোশাররফ হোসেন।

তিনি বলেন, ‘চেয়ারম্যান আদেশ জারি হওয়ার পর অনেকে অভিযোগ জানিয়েছেন। কেউ কেউ পরামর্শও দিয়েছেন। পরামর্শ দিতে গিয়ে একজন বলেছেন, আবাসিক ভবনগুলোর মালিক ও ভাড়াটিয়াদের কর ফাইল পর্যবেক্ষণ করলে কর বাড়বে’।

বৈঠক শেষে মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া এনবিআর কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরিচিত হন। এ সময় তাদের বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ দেন তিনি।

১৯৮১ সালের বিসিএস ব্যাচের কর্মকর্তা মোশাররফ হোসেনকে ২০১৪ সালের ২৬ অক্টোবর শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিব হিসেবে নিয়োগ দেয় সরকার। এর পর গত ১১ এপ্রিল জ্যেষ্ঠ সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান তিনি।

২০১০ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি সেতু বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ পান তিনি। পরে একই বছরের ২৯ জুলাই পদোন্নতি পেয়ে সচিব হন মোশাররফ।

এর আগে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) নির্বাহী চেয়ারম্যান এবং প্রাইভেটাইজেশন কমিশনের সদস্য ছিলেন তিনি। পদ্মা সেতুতে বিশ্বব্যাংকের অর্থায়ন নিয়ে টানাপড়েনের মধ্যে এক মামলায় গ্রেফতারের পর ওএসডিও হতে হয়েছিল এ কর্মকর্তাকে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter