অর্থ পাচার কে করে, আমি জানব কেমন করে: অর্থমন্ত্রী
jugantor
অর্থ পাচার কে করে, আমি জানব কেমন করে: অর্থমন্ত্রী

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৭ নভেম্বর ২০২১, ১৭:১৮:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল

দেশ থেকে অর্থ পাচার কারা করে জানেন না বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল। তিনি বলেন, অনেকে বলেছেন দেশ থেকে টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। আমি আপনাদের বলেছি, যারা পাচার করে তাদের তালিকা আমাকে দেন। আমিতো পাচার করি না। আমি বিশ্বাস করি আপনারাও পাচার করে না। সুতরাং পাচার কে করে, আমি জানব কেমন করে, যদি আপনারা না দেন।

শনিবার সংসদে একটি বিল পাসের আলোচনায় বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের বক্তব্যের জবাবে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী দাবি করেন, খেলাপি ঋণের পরিমাণ দেশসৃষ্টির পর থেকে সবচেয়ে কম এখন। ২০০৬ সালে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল ১৩ দশমিক ১৫ শতাংশ। এখন সেপ্টেম্বর কোয়ার্টার পর্যন্ত ১ লাখ ১ হাজার ১৫০ কোটি টাকা। এটা ৮ দশমিক ১২ শতাংশ। সবচেয়ে নিম্নে আছে এখন। ঋণ নিয়ে যারা অনিয়ম করেছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা মোকাদ্দমা করা হয়।

এর আগে বিরোধী দলের একাধিক সংসদ সদস্য অভিযোগ করেন, বিদেশে হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। খেলাপি ঋণ ছাড়িয়েছে এক লাখ কোটি টাকার বেশি। এসব বিষয়ে তারা অর্থমন্ত্রীর জবাব চান এবং একটি ব্যাংক কমিশন গঠনের দাবি তুলেন।

শুরুতে অর্থমন্ত্রী এসব বিষয় নিয়ে নীরব থাকায় সংসদ সদস্যদের সমালোচনার মুখে পড়েন। পরে অর্থমন্ত্রী কথা বলেন।

একজন সংসদ সদস্য বলেন, এটা অর্থমন্ত্রী বলবেন কারা পাচার করে । তখন অর্থমন্ত্রী বলেন, 'না অর্থমন্ত্রী বলতে পারবে না। একটা কথা আমি আবারও বলি, আপনারা আমরা কিন্তু একই পথের পথিক। আপনারা যেটা জানেন আমিও সেটা জানি। বারবার আমি বলেছি, আমি জানি না। আমাকে জানান।'

এ পর্যায়ে বিরোধী দলের একজন সদস্য কিছু একটা বলেন। জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ঠিক আছে প্লিজ কাম উইথ এ লিস্ট।

এ সময় বিরোধী দল থেকে কিছু একটা বলা হলে অর্থমন্ত্রী বলেন, আবার একই কথা! আমিতো বলছি, আমি কোথায় পাব? আপনি আমাকে বলেন। আচ্ছা ঠিক আছে, অলরাইট, আমি দেখব।

অর্থ পাচার কে করে, আমি জানব কেমন করে: অর্থমন্ত্রী

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৫:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল
অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল। ফাইল ছবি

দেশ থেকে অর্থ পাচার কারা করে জানেন না বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল।  তিনি বলেন, অনেকে বলেছেন দেশ থেকে টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। আমি আপনাদের বলেছি, যারা পাচার করে তাদের তালিকা আমাকে দেন। আমিতো পাচার করি না। আমি বিশ্বাস করি আপনারাও পাচার করে না। সুতরাং পাচার কে করে, আমি জানব কেমন করে, যদি আপনারা না দেন।

শনিবার সংসদে একটি বিল পাসের আলোচনায় বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের বক্তব্যের জবাবে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী দাবি করেন, খেলাপি ঋণের পরিমাণ দেশসৃষ্টির পর থেকে সবচেয়ে কম এখন। ২০০৬ সালে খেলাপি ঋণের পরিমাণ ছিল ১৩ দশমিক ১৫ শতাংশ। এখন সেপ্টেম্বর কোয়ার্টার পর্যন্ত ১ লাখ ১ হাজার ১৫০ কোটি টাকা। এটা ৮ দশমিক ১২ শতাংশ। সবচেয়ে নিম্নে আছে এখন। ঋণ নিয়ে যারা অনিয়ম করেছে তাদের বিরুদ্ধে মামলা মোকাদ্দমা করা হয়। 

এর আগে বিরোধী দলের একাধিক সংসদ সদস্য  অভিযোগ করেন, বিদেশে হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার হয়ে যাচ্ছে। খেলাপি ঋণ ছাড়িয়েছে এক লাখ কোটি টাকার বেশি। এসব বিষয়ে তারা অর্থমন্ত্রীর জবাব চান এবং একটি ব্যাংক কমিশন গঠনের দাবি তুলেন।

শুরুতে অর্থমন্ত্রী এসব বিষয় নিয়ে নীরব থাকায় সংসদ সদস্যদের সমালোচনার মুখে পড়েন। পরে অর্থমন্ত্রী কথা বলেন।

একজন সংসদ সদস্য বলেন, এটা অর্থমন্ত্রী বলবেন কারা পাচার করে । তখন অর্থমন্ত্রী বলেন, 'না অর্থমন্ত্রী বলতে পারবে না। একটা কথা আমি আবারও বলি, আপনারা আমরা কিন্তু একই পথের পথিক। আপনারা যেটা জানেন আমিও সেটা জানি। বারবার আমি বলেছি, আমি জানি না। আমাকে জানান।'

এ পর্যায়ে বিরোধী দলের একজন সদস্য কিছু একটা বলেন। জবাবে অর্থমন্ত্রী বলেন, ঠিক আছে প্লিজ কাম উইথ এ লিস্ট।

এ সময় বিরোধী দল থেকে কিছু একটা বলা হলে অর্থমন্ত্রী বলেন, আবার একই কথা! আমিতো বলছি, আমি কোথায় পাব? আপনি আমাকে বলেন। আচ্ছা ঠিক আছে, অলরাইট, আমি দেখব।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন