জামানত ছাড়াই ঋণ পাবে ১০ টাকার হিসাবধারীরা
jugantor
জামানত ছাড়াই ঋণ পাবে ১০ টাকার হিসাবধারীরা

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৩ জানুয়ারি ২০২২, ২২:৫৮:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

১০, ৫০ ও ১০০ টাকার হিসাবধারীদের ক্রেডিট গ্যারান্টির আওতায় ঋণ দিতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এজন্য আর্থিক সেবাভুক্তি ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কিম নামে একটি নতুন স্কিম চালু করা হয়েছে।

রোববার কেন্দ্রীয় ব‍্যাংকের এসএমই এন্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস ডিপার্টমেন্ট থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেশের সব ব‍্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

এর ফলে এসএমই উদ্যোক্তাদের মতোই ১০, ৫০ ও ১০০ টাকার হিসাবধারীর আওতায় থাকা প্রান্তিক বা ভূমিহীন কৃষক, নিম্ন আয়ের পেশাজীবী, স্কুল ব্যাংকিং হিসাবধারী এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা জামানতবিহীন ঋণ পাবেন। তবে প্রদত্ত ঋণের বিপরীতে ঋণ গ্রহীতাসহ অনধিক দু’জনের ব্যক্তিগত গ্যারান্টি প্রয়োজন হবে।

জানা গেছে, করোনা মহামারির কারণে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর আয়-উৎস কমে গেছে এবং দেশের অর্থনীতির পুনরুদ্ধার কার্যক্রমে ব‍্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে দেশের অর্থনীতিকে চাঙা করতে এ নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, এ স্কিমের আওতায় ঋণ বা বিনিয়োগের জন্য অত্র ইউনিটের মোট গ্যারান্টির সর্বোচ্চ ৩০ শতাংশ পর্যন্ত পোর্টফোলিও গ্যারান্টি ক্যাপ প্রদান করা হবে। যার আওতায় কোন একক উদোক্তা ঋণ বা বিনিয়োগ গ্রহীতার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৮০ শতাংশ পর্যন্ত গ্যারান্টি কভারেজ প্রদান করা হবে। এছাড়া ক্রেডিট গ্যারান্টি সুবিধা গ্রহণের জন্য ব্যাংকসমূহকে সিজিএস ইউনিটের সাথে একটি অংশগ্রহণ চুক্তি সম্পাদন করতে হবে।

জামানত ছাড়াই ঋণ পাবে ১০ টাকার হিসাবধারীরা

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১০:৫৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

১০, ৫০ ও ১০০ টাকার হিসাবধারীদের ক্রেডিট গ্যারান্টির আওতায় ঋণ দিতে ব্যাংকগুলোকে নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এজন্য আর্থিক সেবাভুক্তি ক্রেডিট গ্যারান্টি স্কিম নামে একটি নতুন স্কিম চালু করা হয়েছে।

রোববার কেন্দ্রীয় ব‍্যাংকের এসএমই এন্ড স্পেশাল প্রোগ্রামস ডিপার্টমেন্ট থেকে এ সংক্রান্ত নির্দেশনা দেশের সব ব‍্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠানো হয়েছে।

এর ফলে এসএমই উদ্যোক্তাদের মতোই ১০, ৫০ ও ১০০ টাকার হিসাবধারীর আওতায় থাকা প্রান্তিক বা ভূমিহীন কৃষক, নিম্ন আয়ের পেশাজীবী, স্কুল ব্যাংকিং হিসাবধারী এবং ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা জামানতবিহীন ঋণ পাবেন। তবে প্রদত্ত ঋণের বিপরীতে ঋণ গ্রহীতাসহ অনধিক দু’জনের ব্যক্তিগত গ্যারান্টি প্রয়োজন হবে।

জানা গেছে, করোনা মহামারির কারণে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর আয়-উৎস কমে গেছে এবং দেশের অর্থনীতির পুনরুদ্ধার কার্যক্রমে ব‍্যাঘাত সৃষ্টি হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে দেশের অর্থনীতিকে চাঙা করতে এ নির্দেশনা দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। 

সার্কুলারে বলা হয়েছে, এ স্কিমের আওতায় ঋণ বা বিনিয়োগের জন্য অত্র ইউনিটের মোট গ্যারান্টির সর্বোচ্চ ৩০ শতাংশ পর্যন্ত পোর্টফোলিও গ্যারান্টি ক্যাপ প্রদান করা হবে। যার আওতায় কোন একক উদোক্তা ঋণ বা বিনিয়োগ গ্রহীতার ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ৮০ শতাংশ পর্যন্ত গ্যারান্টি কভারেজ প্রদান করা হবে। এছাড়া ক্রেডিট গ্যারান্টি সুবিধা গ্রহণের জন্য ব্যাংকসমূহকে সিজিএস ইউনিটের সাথে একটি অংশগ্রহণ চুক্তি সম্পাদন করতে হবে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন