ঢাকাকে বিশ্বের অন্যতম সেরা শহরে পরিণত করা সম্ভব: এম নাঈম হোসেন

  যুগান্তর ডেস্ক    ০৪ জুন ২০১৮, ১৬:৫৮ | অনলাইন সংস্করণ

ঢাকাকে বিশ্বের অন্যতম সেরা শহরে পরিণত করা সম্ভব: এম নাঈম হোসেন
এম নাঈম হোসেন। ছবি: যুগান্তর

ঢাকা শহরের উন্নয়নের জন্য কাজ করছে ও ঢাকা শহরকে আগামী দুই দশকের মধ্যে বিশ্বের একটি শীর্ষ নগরীতে পরিণত করার অভিপ্রায় রাখে নাগরিক ঢাকা ফাউন্ডেশন।

ঢাকা শহরের সমসাময়িক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে নাগরিক ঢাকা ফাউন্ডেশনের সভাপতি এ পর্বে আমাদের সঙ্গে কথা বলেছেন।

কথা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নাগরিক ঢাকা শুধু সমস্যা নিয়েই কথা বলে না বরং সে অনুসারে কাজ করে যাওয়ার চেষ্টাও করে।

একটি নগরের উন্নয়নের জন্য একজন দ্বায়িত্বশীল নাগরিক হওয়া কেন প্রয়োজন সে বিষয়ে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে নাগরিকদের মনে সচেতনতা বিস্তার করা আমাদের একটি অন্যতম কাজ।

আমরা মনে করি রাষ্ট্রের মতো নাগরিকদেরও কিছু দায়িত্বশীলতা থাকা উচিৎ যা শহরকে করে তুলবে আরো বেশি বসবাসযোগ্য।

আমাদের লক্ষ্য এই সচেতনতা বৃদ্ধি এবং জীবনযাপনে নিয়ম কানুন মেনে চলার মানসিকতা আরো বৃদ্ধি করা।

এ ব্যাপারে গ্রীক দার্শনিক সক্রেটিসের একটি কথা আমাদের খুবই পছন্দ সর্বোচ্চ দেশপ্রেম হল সবচেয়ে সুন্দর ভাবে নিজের কাজটুকু করা।

সচেতনতা বৃদ্ধির বাইরেও যদি আরও কিছু নিয়ে কাজ করা লাগে আমরা সেগুলো নিয়েও সময়ের সাথে সাথে কাজ করার চেষ্টা করে যাবো।

আমরা বিশ্বাস করি ইতিবাচক মনোভাব এবং বিচক্ষণ কাজের মাধ্যমে এই শহরকে বিশ্বের শীর্ষ শহরে উন্নীত করা সম্ভব।

নাগরিক ঢাকার আগামী দুই দশকের পরিকল্পনা নিয়ে তিনি বলেন, আমরা আগামী দুই দশকের একটি কৌশলগত পরিকল্পনা দাঁড়া করাচ্ছি।

যে পরিকল্পনায় আমরা দুই দশকের মধ্যে ঢাকা শহরের মধ্যে কি কি ইতিবাচক পরিবর্তন আনা যায়, সেগুলো বর্ষব্যাপী লক্ষ্যমাত্রায় নিয়ে আসার চেষ্টা করছি।

এই পরিকল্পনা থেকেই আমরা আমাদের কাজ শুরু করেছি। এই পরিকল্পনার প্রতিচিত্রটি হবে আমাদের আগামী দুই দশকের অগ্রগতির ও লক্ষ্য পূরনের প্রধান হাতিয়ার।

এই পরিকল্পনার প্রথম ধাপে আমরা যেটা করার চেষ্টা করব তা হলো একটি নকশা চিত্রাঙ্কিত করা।

আমরা পৃথিবীর উন্নত যেসব শহর আছে সেগুলো থেকে কিছু শহর বাছাই করব যেগুলো ঢাকার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

সেগুলোর সাথে ঢাকা শহরের একটি নকশা চিত্রাঙ্কিত করা করব এবং সেসব শহরগুলোর সঙ্গে আমাদের কোথায় কোথায় তারতম্য আছে সে তারতম্যগুলো বের করে আনার চেষ্টা করব।

প্রথমে আমরা বের করব আমাদের পরিবেশে আমাদের সীমিত সম্পদের মধ্যে কোন কোন তারতম্যগুলো নিয়ে কাজ করা সম্ভব এবং সময়ের সাথে সাথে সেই সব তারতম্যকে কিভাবে কমানো যায় তা নিয়ে আমরা কাজ করে যাব অগ্রাধিকার ভিত্তিতে।

একদিনেই কিংবা একবারেই কোন চমকের মাধ্যমে একটি শহরকে রাতারতি বদলে ফেলা যাবে না।

এ জন্যই কিন্তু আমরা দুই দশকের একটা পরিকল্পনা করছি। আমি আবারও বলছি, সবাই সমস্যা নিয়ে কথা বলে আমরা সমাধান নিয়ে কথা বলব, সেই আঙ্গিকেই কাজ করে যাব।

আমরা বিশ্বাস করি দুই দশকের মধ্যে সঠিক কৌশল এবং সেই কৌশলের টেকসই বাস্তবায়নের মাধ্যমে একটি শহরকে পৃথিবীর অগ্রণী শহরে রূপান্তরিত করা সম্ভব।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×