বেতন-ভাতার জন্য শ্রমিকদের দিতে হবে হাজারে ৪ টাকা
jugantor
বেতন-ভাতার জন্য শ্রমিকদের দিতে হবে হাজারে ৪ টাকা

  যুগান্তর রিপোর্ট  

২৩ এপ্রিল ২০২০, ১৭:৫৭:০৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বেতন-ভাতার জন্য শ্রমিকদের দিতে হবে হাজারে ৪ টাকা

করোনা কারণে সরকারের ঘোষিত পোশাক খাতের প্রণোদনার আওতায় শ্রমিকদের বেতন-ভাতা মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টে চলে যাবে। এক্ষেত্রে মোবাইল ফাইনানশিয়াল সার্ভিসের ক্যাশ আউট চার্জ হিসেবে শ্রমিকদের হাজারে ৪ টাকা করে খরচ দিতে হবে।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক ক্যাশ আউটের এই চার্জ নির্ধারণ করে দিয়ে সার্কুলার জারি করেছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, শ্রমিকদের বেতন-ভাতার টাকা ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে মোবাইল আর্থিক সেবাদাতা কোম্পানিগুলো (এমএফএস) প্রতি হাজারে ৮ টাকা ফি নিতে পারবে। এর মধ্যে ৪ টাকা কাটা হবে যে ব্যাংক থেকে শ্রমিকদের কাছে বেতন-ভাতা যাবে সেই ব্যাংকের কাছ থেকে। আর বাকি ৪ টাকা শ্রমিকদের কাছ থেকে আদায় করা হবে।

মোবাইল ব্যাংকিং সেবা প্রতিষ্ঠান ‘বিকাশ’ বর্তমানে গ্রাহকপ্রতি এক হাজার টাকা ক্যাশ আউটে (টাকা উত্তোলন) খরচ নেয় ১৮ টাকা ৫০ পয়সা। আর বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে ক্যাশ আউটে খরচ নেয়া হয় ১৭ টাকা ৭০ পয়সা।

ডাচ-বাংলা ব্যাংকের রকেটসহ দেশের অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোও একই হারে খরচ কেটে নেয়। তবে সরকারের ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ‘নগদ’ একটু ভিন্ন। তারা আগে এক হাজার টাকা ক্যাশ আউট করলে খরচ নিত ১৪ টাকা ৫০ পয়সা। কিন্তু মহামারী করোনা সঙ্কটের কারণে এখন প্রতি হাজারে সেই খরচ নেয় ১০ টাকা।

বেতন-ভাতার জন্য শ্রমিকদের দিতে হবে হাজারে ৪ টাকা

 যুগান্তর রিপোর্ট 
২৩ এপ্রিল ২০২০, ০৫:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বেতন-ভাতার জন্য শ্রমিকদের দিতে হবে হাজারে ৪ টাকা
ফাইল ছবি

করোনা কারণে সরকারের ঘোষিত পোশাক খাতের প্রণোদনার আওতায় শ্রমিকদের বেতন-ভাতা মোবাইল ব্যাংকিং অ্যাকাউন্টে চলে যাবে। এক্ষেত্রে মোবাইল ফাইনানশিয়াল সার্ভিসের ক্যাশ আউট চার্জ হিসেবে শ্রমিকদের হাজারে ৪ টাকা করে খরচ দিতে হবে।

বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক ক্যাশ আউটের এই চার্জ নির্ধারণ করে দিয়ে সার্কুলার জারি করেছে।

সার্কুলারে বলা হয়েছে, শ্রমিকদের বেতন-ভাতার টাকা ক্যাশ আউটের ক্ষেত্রে মোবাইল আর্থিক সেবাদাতা কোম্পানিগুলো (এমএফএস) প্রতি হাজারে ৮ টাকা ফি নিতে পারবে। এর মধ্যে ৪ টাকা কাটা হবে যে ব্যাংক থেকে শ্রমিকদের কাছে বেতন-ভাতা যাবে সেই ব্যাংকের কাছ থেকে। আর বাকি ৪ টাকা শ্রমিকদের কাছ থেকে আদায় করা হবে।

মোবাইল ব্যাংকিং সেবা প্রতিষ্ঠান ‘বিকাশ’ বর্তমানে গ্রাহকপ্রতি এক হাজার টাকা ক্যাশ আউটে (টাকা উত্তোলন) খরচ নেয় ১৮ টাকা ৫০ পয়সা। আর বিকাশ অ্যাপের মাধ্যমে ক্যাশ আউটে খরচ নেয়া হয় ১৭ টাকা ৭০ পয়সা।

ডাচ-বাংলা ব্যাংকের রকেটসহ দেশের অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোও একই হারে খরচ কেটে নেয়। তবে সরকারের ডাক বিভাগের মোবাইল ব্যাংকিং সেবা ‘নগদ’ একটু ভিন্ন। তারা আগে এক হাজার টাকা ক্যাশ আউট করলে খরচ নিত  ১৪ টাকা ৫০ পয়সা। কিন্তু মহামারী করোনা সঙ্কটের কারণে এখন প্রতি হাজারে সেই খরচ নেয় ১০ টাকা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস