বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন মুখপাত্র আবুল কালাম আজাদ
jugantor
বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন মুখপাত্র আবুল কালাম আজাদ

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

০৬ অক্টোবর ২০২২, ২২:৫০:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

নতুন মুখপাত্র নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। নির্বাহী পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত মুখপাত্র জিএম আবুল কালাম আজাদকে মুখপাত্র হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার এই কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়।

মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম গত ৪ অক্টোবর অবস‌রে যান। তার স্থলাভিষিক্ত হলেন আবুল কালাম আজাদ। এর আগে তি‌নি ভারপ্রাপ্ত মুখপাত্র এবং সহকারী মুখপাত্রের দা‌য়িত্ব পালন ক‌রেছেন।

আবুল কালাম আজাদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শেষে ১৯৯২ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক হিসেবে যোগদান করেন। কর্মজীবনে গবেষণা, মনিটরি পলিসি, গভর্নর সচিবালয় ও কমিউনিকেশন্স বিভাগে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

আবুল কালাম আজাদ যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাঠি ইউনিয়নের গাজী পরিবারের সন্তান।

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে যশোর ক্যান্টনমেন্ট সংলগ্ন খিতিবদিয়া গ্রামে তাদের ঘরবাড়ি পাকসেনাদ্বারা অগ্নিদগ্ধ ও সম্পূর্ণ ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। তার আপন তিন ভাই ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজের প্রাক্তন ছাত্র। বিদেশি প্রশিক্ষণে তিনি যুক্তরাষ্ট্র, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা ও ভারত সফর করেন।

আজাদের স্ত্রী রোকেয়া খাতুনও পরিচালক হিসেবে ব্যাংকের চিফ ইকোনোমিস্টস ইউনিটে কর্মরত রয়েছেন। তাদের তিন কন্যা। বড় মেয়ে চিকিৎসক, মেঝ ও ছোট মেয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত।

আবুল কালাম আজাদ দুস্থদের সহায়তায় কাজ করা যশোরের ভাটাই-নূরজাহান অরফ্যান্স ফ্রেন্ড সংগঠনের নির্বাহী উপদেষ্টা ও ডোনার।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নতুন মুখপাত্র আবুল কালাম আজাদ

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নতুন মুখপাত্র নিয়োগ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। নির্বাহী পরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত মুখপাত্র জিএম আবুল কালাম আজাদকে  মুখপাত্র হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার এই কর্মকর্তাকে নিয়োগ দেওয়া হয়।

মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সিরাজুল ইসলাম গত ৪ অক্টোবর অবস‌রে যান। তার স্থলাভিষিক্ত হলেন আবুল কালাম আজাদ। এর আগে তি‌নি ভারপ্রাপ্ত মুখপাত্র এবং সহকারী মুখপাত্রের দা‌য়িত্ব পালন ক‌রেছেন।

আবুল কালাম আজাদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শেষে ১৯৯২ সালে বাংলাদেশ ব্যাংকের সহকারী পরিচালক হিসেবে যোগদান করেন। কর্মজীবনে গবেষণা, মনিটরি পলিসি, গভর্নর সচিবালয় ও কমিউনিকেশন্স বিভাগে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

আবুল কালাম আজাদ যশোর সদর উপজেলার চুড়ামনকাঠি ইউনিয়নের গাজী পরিবারের সন্তান। 

১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে যশোর ক্যান্টনমেন্ট সংলগ্ন খিতিবদিয়া গ্রামে তাদের ঘরবাড়ি পাকসেনাদ্বারা অগ্নিদগ্ধ ও সম্পূর্ণ ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। তার আপন তিন ভাই ১৯৭১ সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের রণাঙ্গনের বীর মুক্তিযোদ্ধা। তিনি সরকারি মাইকেল মধুসূদন কলেজের প্রাক্তন ছাত্র। বিদেশি প্রশিক্ষণে তিনি যুক্তরাষ্ট্র, ফিলিপাইন, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, শ্রীলংকা ও ভারত সফর করেন। 

আজাদের স্ত্রী রোকেয়া খাতুনও পরিচালক হিসেবে ব্যাংকের চিফ ইকোনোমিস্টস ইউনিটে কর্মরত রয়েছেন। তাদের তিন কন্যা। বড় মেয়ে চিকিৎসক, মেঝ ও ছোট মেয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত। 

আবুল কালাম আজাদ দুস্থদের সহায়তায় কাজ করা যশোরের ভাটাই-নূরজাহান অরফ্যান্স ফ্রেন্ড সংগঠনের নির্বাহী উপদেষ্টা ও ডোনার।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন