বিএনপি সমর্থকদের হামলায় আ’লীগ সভাপতি বাবা-ছেলেসহ আহত ৪

  বিরল (দিনাজপুর) প্রতিনিধি ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮, ২০:৪১ | অনলাইন সংস্করণ

বিএনপি সমর্থকদের হামলায় আ’লীগ সভাপতি বাবা-ছেলেসহ আহত ৪
বিএনপি সমর্থকদের হামলায় ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাকসহ আহতরা। ছবি: যুগান্তর

ভোট চাওয়াকে কেন্দ্র করে দিনাজপুর-২ আসনের বিএনপি প্রার্থী সাদেক রিয়াজের সমর্থকদের হামলায় আওয়ামী লীগের ওয়ার্ড সভাপতি বাবা ও তার ছেলেসহ ৪ জন আহত হওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার বিরল উপজেলার ৫নং বিরল ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- ৫নং বিরল ইউপির ৮নং ওয়ার্ডের দুলহারী গ্রামের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক (৪৩) ও তার ছেলে শাহিন আলম (২৫), রাজু ইসলাম (১৮) ও একই গ্রামের মৃত মশির উদ্দীনের ছেলে আফজারুল ইসলাম (৭০)।

আহতদের মধ্যে ৩ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়েছেন।

আহত আফজারুল ইসলাম জানান, শনিবার সকাল ৮টার দিকে বিরল উপজেলা বিএনপি নেতা সাদেক হোসেনের নেতৃত্বে মনছুর, সিদ্দিকুর, রশিদুলসহ ১০ থেকে ১৫ জনের একটি দল ভোট চাইতে ওই এলাকায় যান।

তারা ধানের শীষ প্রতীকে ভোট চাইলে আওয়ামী লীগ সমর্থিত ভোটার আফজাল বলেন- আমরা নৌকা প্রতীকে ভোট দেব। এ কথায় বিএনপির লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে এলোপাতাড়িভাবে মারপিট করতে থাকে।

এতে বাবা-ছেলেসহ ওই চারজন আহত হন। পরে এলাকার লোকজন ছুটে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায় বলে জানান আহত আফজারুল ইসলাম।

আহতদের মধ্যে ৩ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হয়েছেন এবং অপর আহত আব্দুর রাজ্জাক প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন।

বিরল থানার ওসি এ টি এম গোলাম রসুল ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আমি খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ওই এলাকায় পুলিশ ফোর্স পাঠিয়েছি। হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তবে বিএনপি নেতা সাদেক হোসেন ঘটনার বিষয় অস্বীকার করেছেন।

ঘটনাপ্রবাহ : দিনাজপুর-২: জাতীয় সংসদ নির্বাচন

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×