নাটোর জেলা জামায়াত আমিরকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে নির্যাতন

প্রকাশ : ২০ ডিসেম্বর ২০১৮, ২২:৪৮ | অনলাইন সংস্করণ

  সিংড়া (নাটোর) প্রতিনিধি

নাটোর জেলা জামায়াতের আমির অধ্যাপক বেলালুজ্জামান

নাটোর জেলা জামায়াতের আমির অধ্যাপক বেলালুজ্জামানকে বাড়ি থেকে সাদা পোশাকধারী আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয় দিয়ে তুলে নিয়ে নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। পরে তাকে পাশের গ্রাম থেকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় সিংড়া উপজেলার শেরকোল ইউনিয়নের রাণীনগর গ্রামের নিজ বাড়ির সামনে থেকে একটি সাদা রঙের হাইয়েস মাইক্রোবাসে তাকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

বেলালুজ্জামান সিংড়া উপজেলার বিলহালতি ত্রিমোহনী ডিগ্রি কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রধান ও রাণী নগর গ্রামের মৃত হাজী বয়তুল্লাহ সরদারের ছেলে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে নাটোরের নলডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাবেক শিবির নেতা জিয়াউল হক জিয়া জানান, বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টায় একটি সাদা হাইয়েস মাইক্রোবাসযোগে ১০ থেকে ১২ জনের একদল লোক সিংড়া উপজেলার শেরকোল ইউনিয়নের রাণীনগর বেলালুজ্জামানের নিজ বাড়ি থেকে তাকে তুলে নেয়। এ সময় তার প্রতিবেশী আসাদুজ্জামান তুলে নেয়ার কারণ জানতে চাইলে তাকে ধাক্কা মেরে ফেলে দেয়া হয়।

তিনি বলেন, কয়েক ঘণ্টা পর বেলালুজ্জামানকে পার্শ্ববর্তী নলডাঙ্গা উপজেলার পিপরুল ইউনিয়নের কালীগঞ্জ বাজার এলাকায় আহত অবস্থায় পাওয়া যায়। এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে নাটোর ইসলামী হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

সেখানকার চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে জিয়াউল হক জিয়া আরও জানান, বেলালুজ্জামানের বাম পা ভেঙে গেছে এবং রক্তক্ষরণ হচ্ছে।

সিংড়া থানার পরিদর্শক (ওসি) নেয়ামুল আলম বলেন, জামায়াতের জেলা আমির বেলালুজ্জামানকে তুলে নেয়ার বিষয়টি তার জানা নেই। আর কেউ এখন পর্যন্ত অভিযোগও করেননি।