কান্নায় ভেঙে পড়লেন রেজা কিবরিয়া
jugantor
কান্নায় ভেঙে পড়লেন রেজা কিবরিয়া

  হবিগঞ্জ প্রতিনিধি  

২১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৪:১৮:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

চোখ মুছছেন রেজা কিবরিয়া

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে তিনজন বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে দুই ট্রাক পুলিশ গিয়ে তাদের গ্রেফতার করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ড. রেজা কিবরিয়া।

খবর পেয়ে সকালে গ্রেফতারকৃতদের বাড়িতে ছুটে যান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ড. রেজা কিবরিয়া। সেখানে তাদের স্বজনদের সঙ্গে নিজেও কান্নায় ভেঙে পড়েন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন-আউশকান্দি ইউনিয়ন যুবদল নেতা রুহেল, ইউপি মেম্বার আলম এবং করগাঁও ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন।

ড. রেজা কিবরিয়া অভিযোগ করে বলেন, রাত ২টা থেকে আড়াইটার মধ্যে ট্রাকভর্তি পুলিশ এসে তাদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে নিয়ে গেছে। তাদের দোষ ছিল-তারা আমার সঙ্গে দেখা করেছিল। আওয়ামী লীগ মনে করছে এগুলোর মাধ্যমে জনগণকে ঠেকানো যাবে। কিন্তু এসবের কারণে জনগণ যে তাদের ওপর কতটা ক্ষিপ্ত তা তারা কয়েক দিনের মধ্যেই বুঝতে পারবে।

স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা জানান, গ্রেফতারকৃতদের বাড়িতে গেলে আলম মেম্বারের মেয়েরা ড. রেজা কিবরিয়াকে ধরে কাঁদতে থাকেন। রুহেলের দুই বছর বয়সী শিশু মেয়ে কান্না করছিল। তাদের কান্না দেখে নিজের চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি ড. রেজা কিবরিয়া। তিনিও কান্নায় ভেঙে পড়েন।

কান্নায় ভেঙে পড়লেন রেজা কিবরিয়া

 হবিগঞ্জ প্রতিনিধি 
২১ ডিসেম্বর ২০১৮, ০২:১৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চোখ মুছছেন রেজা কিবরিয়া
গ্রেফতারকৃতদের বাড়িতে রেজা কিবরিয়া। ছবি: যুগান্তর

হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে তিনজন বিএনপি নেতাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত গভীর রাতে দুই ট্রাক পুলিশ গিয়ে তাদের গ্রেফতার করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ড. রেজা কিবরিয়া। 

খবর পেয়ে সকালে গ্রেফতারকৃতদের বাড়িতে ছুটে যান জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী ড. রেজা কিবরিয়া। সেখানে তাদের স্বজনদের সঙ্গে নিজেও কান্নায় ভেঙে পড়েন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন-আউশকান্দি ইউনিয়ন যুবদল নেতা রুহেল, ইউপি মেম্বার আলম এবং করগাঁও ইউনিয়ন যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন।

ড. রেজা কিবরিয়া অভিযোগ করে বলেন, রাত ২টা থেকে আড়াইটার মধ্যে ট্রাকভর্তি পুলিশ এসে তাদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে নিয়ে গেছে। তাদের দোষ ছিল-তারা আমার সঙ্গে দেখা করেছিল। আওয়ামী লীগ মনে করছে এগুলোর মাধ্যমে জনগণকে ঠেকানো যাবে। কিন্তু এসবের কারণে জনগণ যে তাদের ওপর কতটা ক্ষিপ্ত তা তারা কয়েক দিনের মধ্যেই বুঝতে পারবে। 

স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা জানান, গ্রেফতারকৃতদের বাড়িতে গেলে আলম মেম্বারের মেয়েরা ড. রেজা কিবরিয়াকে ধরে কাঁদতে থাকেন। রুহেলের দুই বছর বয়সী শিশু মেয়ে কান্না করছিল। তাদের কান্না দেখে নিজের চোখের পানি ধরে রাখতে পারেননি ড. রেজা কিবরিয়া। তিনিও কান্নায় ভেঙে পড়েন।