একটি ভোটও পাননি যে প্রার্থী!

  যুগান্তর রিপোর্ট ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৬:১২ | অনলাইন সংস্করণ

সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মারুফ রুমী
সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মারুফ রুমী

রোববার (৩০ ডিসেম্বর) হয়ে গেল বহুল প্রতীক্ষিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন।

এ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়ে জয়লাভ করেছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন মহাজোট।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চট্টগ্রাম-১০ আসনে প্রার্থী হয়ে অনন্য নজির স্থাপন করেছেন সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মারুফ রুমী।

চট্টগ্রাম-১০ (ডবলমুরিং-পাহাড়তলী) আসনে গণসংহতি আন্দোলনের কোদাল মার্কায় প্রার্থী ছিলেন তিনি।

তিনি সর্বমোট শূন্য ভোট পেয়েছেন। ব্যালট বাক্সে তার কোদাল মার্কায় একটি সিলও পড়েনি।

কিন্তু রুমীর নির্বাচনী প্রচারণায় কোনো কমতি ছিল না। তার কোদাল মার্কার ব্যানার, পোস্টারও দেখা গেছে এই আসনের বিভিন্ন স্থানে।

নির্বাচনের খবরে জাতীয় এবং স্থানীয় দৈনিকগুলো রুমীকে গুরুত্বও দেয়া হয়েছে।

প্রতীক বরাদ্দের পর থেকে গণসংযোগ বা নির্বাচনী প্রচারণায় পিছিয়ে ছিলেন না রুমী।

তার গণসংযোগ মিছিলগুলোতে দেখা গেছে - এলাকার কয়েকটি সংগঠনের সংগঠক, রাজনৈতিক কর্মী, প্রসিদ্ধ শিক্ষক, শিক্ষার্থী, সাহিত্যিক, মানবাধিকার আইনজীবীদের।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রুমীর প্রচারণী পোস্টার

স্থানীয় বস্তির কয়েকজন নারীরাও তার মিছিলে স্বতস্ফূর্তভাবে এসেছিলেন।

এতো কিছুর পরেও একাদশ জাতীয় নির্বাচনে একটি ভোটও পান নি এই রাজনৈতিক ব্যক্তি।

প্রসঙ্গত সৈয়দ মোহাম্মদ হাসান মারুফ রুমী চট্টগ্রামের বড় বড় সব সার্বজনীন সাংস্কৃতিক আয়োজনের একজন সর্বাগ্রগণ্য উদোক্তা।

চট্টগ্রামের হোল্ডিং ট্যাক্স বৃদ্ধির বিরুদ্ধে আন্দোলনে রুমী ছিল নির্বাচিত মুখপাত্র।

চট্টগ্রামে পোষাক শ্রমিকদের আন্দোলন ও নিরাপদ সড়ক চাই আন্দোলনেও রুমীর ভূমিকা ছিল অগ্রগন্য।

ঘটনাপ্রবাহ : চট্টগ্রাম-১০: জাতীয় সংসদ নির্বাচন

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×