পুঠিয়া থানার মধ্যে আ’লীগের দুগ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ২৫

  পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮, ১৮:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

আওয়ামী লীগ

রাজশাহীর পুঠিয়ায় মেয়রের বাড়িতে পটকা ফুটানোকে কেন্দ্র করে থানার ভেতরে আওয়ামী লীগের দুগ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে উভয়পক্ষের অন্তত ২৫ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছে।

সোমবার দুপুর ১২টার দিকে পুঠিয়া থানায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পুলিশ তাৎক্ষণিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। এ ঘটনায় সদ্য নির্বাচিত এমপি ও সাবেক এমপি গ্রুপের নেতাকর্মীদের মাঝে চরম উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার রহিম কনক বলেন, পৌরসভা মেয়র ও উপজেলা যুবলীগের সভাপতি রবিউল ইসলাম রবি সাবেক এমপি আবদুল ওয়াদুদ দারার সবচেয়ে কাছের লোক। এবার দারা দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় মেয়র রবিউল ইসলাম রবি নবনির্বাচিত এমপি মনসুর রহমানের পক্ষে কোনো কাজ করেনি। এ জন্য মেয়রের কেন্দ্রে নৌকা পরাজিত হয়।

এর জের ধরে রোববার ভোটের ফলাফল ঘোষণা হওয়ার পর কে বা কারা রাতে গন্ডগোহালী গ্রামে মেয়রের বাড়িতে পটকা ফুটিয়ে চলে যায়। এ ঘটনায় মেয়র রবি তার প্রতিবেশী অতিউর রহমান (৪৫) ও তার ছেলেকে লিমনকে (২০) পুলিশে সোপর্দ করেন।

এ ঘটনায় গন্ডোগোহালী গ্রামের লোকজন আটককৃত পিতা-পুত্রকে ছাড়িয়ে নিতে আসেন। খবর পেয়ে মেয়র রবি তার বাহিনীর লোকজন নিয়ে থানা ভেতরে হামলা চালায়। এতে ২০-২৫ জন আহত হয়।

পৌর মেয়র রবিউল ইসলাম রবি বলেন, রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে দুর্বৃত্তরা একটি সাদা মাইক্রোবাসযোগে আমার বাড়িতে দুটি ককটেল হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে আমি থানায় একটি অভিযোগ দিতে আসি। সে সময় জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠিনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদ জামায়াত-বিএনপির লোকজন নিয়ে আমার ও আমার পরিবারের ওপর হামলা চালিয়েছে। হামলায় আমার পরিবারের ৬-৭ জন সদস্য আহত হয়েছে। তারা আমার ব্যবহৃত গাড়িটিতেও ভাঙচুর করেছে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করছি।

তবে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদ বলেন, মেয়র রবি তার পারিবারিক বিষয় নিয়ে দুজন লোককে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে। এ বিষয়টি সুরাহা করতে আমি থানায় আসি। খবর পেয়ে মেয়র একটি বাহিনী নিয়ে থানার মধ্যে থাকা লোকজনদের মারধর করে।

এ ব্যাপারে পুঠিয়া থানার ওসি সাকিল উদ্দীন আহম্মদ বলেন, হঠাৎ করে থানার ভেতরে দুগ্রুপের মধ্যে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের অবহিত করা হয়েছে। তাদের নির্দেশ মোতাবেক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×