মা ভক্ত আইয়ুব বাচ্চুর যে ঘটনা কাঁদাল সবাইকে (ভিডিও)

  যুগান্তর ডেস্ক ২৫ অক্টোবর ২০১৮, ১৩:৫৯ | অনলাইন সংস্করণ

তালহা ও আইয়ুব বাচ্চু
বাংলাদেশি আইডল প্রতিযোগী তালহার সঙ্গে আইয়ুব বাচ্চুর বিশেষ একটি মূহুর্ত। ছবি: ফেসবুক

ক্ষমা চেয়েছিলেন দেশবাসীর কাছে। ক্ষমা চেয়েছিলেন বাংলাদেশি আইডলের এক প্রতিযোগীর কাছে।

এক সাগর কষ্ট বুকে নিয়ে কান্নাজড়িত কণ্ঠে তিনি জানিয়েছিলেন- আমার মাকে হেয় করো না।

কিংবদন্তি ব্যান্ডশিল্পী আইয়ুব বাচ্চু চলে গেলেও তার নানা অজানা মহানুভবতার কথা প্রকাশিত হচ্ছে। সংগীত ভুবনে তার অবদানসহ আরও কিছু ঘটনা তুলে ধরা হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তেমনই একটি ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে আবারও ভাইরাল হয়েছে।

তিনি যে কতটা মা ভক্ত ছিলেন তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত আবার দেখা গেল সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওতে।

ভিডিওটি দেখে আবেগে আপ্লুত হয়েছেন অনেকেই।

ভিডিওটি ছিল বাংলাদেশি আইডলের একটি পর্বের। সেই পর্বে ছিল ফরিদপুর থেকে আসা প্রতিযোগী তালহা।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশি আইডলের অন্যতম বিচারক ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু।

এর আগের পর্বে খ্যাতিমান শিল্পী জেমসের একটি গান গেয়েছিলেন সেই প্রতিযোগী।

সে গানে বিচারকদের মন জোগাতে পারেনি তালহা।

বিচারকদের মন্তব্যের ব্যাপারে আইডল এক্সট্রা নামক সেগমেন্টে তালহা বক্তব্য দিয়েছিল- গানটি জেমসের মতো হয়নি। কারণ সে এটি নিজের মতো করে গেয়েছে। সে জেমস নয়। আশা করি শ্রোতারা গানটি ভালোভাবেই নেবে।

তার এমন বক্তব্যে অনেকটা অসন্তুষ্ট হন আইয়ুব বাচ্চু। পরবর্তী মঞ্চে তিনি সেই প্রতিযোগীকে বলেন, ভালো যদি না বলি তুমি রাগ করবে। পরে তুমি আইডল এক্সট্রাতে বিচারকদের বিপক্ষে কথা বলবে।

তিনি আরও বলেন, তুমি আসলে জেমসের মতো গাইতে পারইনি, কখনও জেমসের মতো গাইতে পারবেও না।

তিনি আরও সতর্ক করেন যে, এত স্মার্ট হতে যেও না।

এ ঘটনার পরই সামাজিকমাধ্যমে বাংলাদেশি আইডল ফেসবুক পেজে কিংবদন্তি এ শিল্পীকে নিয়ে কটূক্তি করে কিছু ফেসবুক অ্যাকাউন্ট। একপর্যায়ে এসব ফেসবুক আইডি থেকে আইয়ুব বাচ্চুর মাকে হেয় করে কমেন্ট করা হয়।

এর পর স্থির থাকতে পারেননি আইয়ুব বাচ্চু। ছুটে যান তালহার কাছে। ক্ষমা চান তালহাসহ ফরিদপুরের সবার উদ্দেশে।

তিনি বলেন, এক লাখের অধিক মানুষ থেকে আমরা চারজন ২৪ জনকে খুঁজে এনেছি।

তালহাকে উদ্দেশ করে বলেন, তুমি একটি রত্ন। একসঙ্গে থাকতে থাকতে একটা সম্পর্কের মতো হয়ে গেছে আমাদের। আবেগপ্রবণ হয়ে একজন বাবা যেভাবে ছেলেকে বকা দেয়, সেভাবে বকা দিয়ে ফেলেছি- এটি আমার ভুল হয়েছে।

এ সময় তিনি আরও জানান, বাংলাদেশি আইডল পেজে তালহার হয়ে আইয়ুব বাচ্চুকে যত বাজে মন্তব্য করা হয়েছে, তাতে কোনোই মন খারাপ হয়নি তার।

তবে মাকে জড়িয়ে যেসব কথা বলা হয়েছে, তাতে একেবারেই মন ভেঙে গেছে তার।

এ সময় কান্নাজড়িত কণ্ঠে আইয়ুব বাচ্চু নিজের মাকে জড়িয়ে কোনো বাজে মন্তব্য করতে মানা করে বলেন, আমার মাকে হেয় করে কিছু বলবে না।

উল্লেখ্য, আইয়ুব বাচ্চুর এভাবে দুঃখ ও ক্ষমা চাওয়ার ঘটনায় একেবারেই কিংকর্তব্যবিমূঢ় হয়ে পড়ে তালহা।

আইয়ুব বাচ্চু এভাবে স্যরি বললে গান গাওয়া ছেড়ে দেবে বলে তালহা। শুরুতেই আইয়ুব বাচ্চুর পা ছুঁয়ে সালাম করেছিল তালহা। আবেগে কেঁদে দেয় এ প্রতিযোগী।

আইয়ুব বাচ্চু তখন জানান, তালহাকে দেয়া বক্তব্যগুলো তিনি তুলে নিলেন। কিন্তু তালহার প্রতি তার ভালোবাসা অবিরত থাকবেই।

তালহার গান ছেড়ে দেয়া প্রসঙ্গে আইয়ুব বাচ্চু বলেন, গান তুমি কখনই ছাড়তে পারবে না। আমি তোমাকে গান ছাড়তে দেবও না। তুমি আমার ছেলে।

বাংলাদেশি আইডলের সব দর্শকের কাছে ক্ষমা চেয়ে প্রয়াত কিংবদন্তি এ শিল্পী বলেন, আমাকে আপনাদের ভালোবাসা থেকে বাদ দেবেন না। আমিও আপনাদের সম্পদ। আইএম মেড ইন বাংলাদেশ।

প্রসঙ্গত, প্রচণ্ড রকম মা ভক্ত ছিলেন আইয়ুব বাচ্চু। মায়ের কবরের পাশেই হয়েছে তার শেষ ঠিকানা। সবাইকে কাঁদিয়ে ১৮ অক্টেবর হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে ৫৬ বছর বয়সে মারা যান এ কৃর্তিমান শিল্পী।

ঘটনাপ্রবাহ : আইয়ুব বাচ্চু আর নেই

আরও
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×