নারী ইউটিউবার মারজিয়া মিমির চ্যানেলে এক লাখ সাবস্ক্রাইবার

  বিনোদন ডেস্ক ১৯ নভেম্বর ২০১৮, ১৮:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

মুম্বাই ইউটিউব কার্যালয়ের সামনে মারজিয়া মিমি
মুম্বাই ইউটিউব কার্যালয়ের সামনে মারজিয়া মিমি

দেশে সিঙ্গেল ফিমেল কনটেন্ট ক্রিয়েটর হিসবে প্রথম কোনো নারীর ইউটিউব চ্যানেলে এক লাখ সাবস্ক্রাইবারের ঘটনা এটাই প্রথম। মারজিয়া মিমির চ্যানেলে এক লাখ সাবস্ক্রাইবার অর্জন উপলক্ষ্যে যুগান্তরের সঙ্গে তার অনুভূতি শেয়ার করেছেন।

ইউটিউবের সঙ্গে আপনার সম্পৃক্ততা কীভাবে হলো?

মারজিয়া মিমি: ২০১৬ সালের ২০ ডিসেম্বর শখের বসে প্রাপ্তি নামক একটি ভিডিও আপলোড করি। ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে হুট করেই চ্যানেল সাসপেন্ড হয়ে যায় এবং আমি আমার চ্যানেল ঠিক করার জন্য ইউটিউব স্পেস মুম্বাইতে ছুটে গিয়েছিলাম। তারপর ২০১৭ সালের মার্চ মাস থেকে বলতে গেলে নিয়মিত ভিডিও আপলোড করা শুরু করি। সেখান থেকে আজ সাবস্ক্রাইবার এক লাখ। মোট চ্যানেল ভিউ ৭৬ লাখ আর মোট ভিডিও আপলোড করেছি ৪৫টা। আমি অধিকাংশ সময়ই সামাজিক সচেতনতামূলক ভিডিও বানাই তবে মাঝেমধ্যে কমেডি ভিডিও ও বানাই। তবে সবসময়ই আমি ভিডিওর মাধ্যমে কোন না কোন মেসেজ দেয়ার চেষ্টা করি। এছাড়া আমার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে ফলোয়ারের সংখ্যা ৮২ হাজার এবং ইন্সটাগ্রামে ফলোয়ারের সংখ্যা ১ লাখ ৩৪ হাজার।

আপনি তো তাহলে স্টার

মারজিয়া মিমি: আমি নিজেকে কখনই স্টার মনে করিনা। এখনো আমি শিখছি এবং এই শেখা আজীবন চলতে থাকবে। তবে অল্প সময়ে অনেক মানুষের ভালোবাসা আর সাপোর্ট পেয়েছি এবং পাচ্ছি। আর উপার্জন? হা হা হা। সিটি গোল্ডের একটা আংটি কিনতে গেলেও আমি এখনও আম্মুর কাছে টাকা চাই। উপার্জন, সঞ্চয় এসব ব্যাপারে আমি বরাবরই উদাসীন।

অভিনয়ের সঙ্গে কীভাবে যুক্ত হলেন?

মারজিয়া মিমি: অভিনয়ের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলাম ২০১৫ সালের মাঝামাঝি সময়ে এবং ৫০টার বেশি নাটক, টেলিফিল্ম ও ডকুমেন্টারি ড্রামায় অভিনয় করেছি। উল্লেখযোগ্য কিছু স্বপ্ন যাবে বাড়ি, আজ শুভ দিন, আমিও মানুষ, ছুটির আকাশ, সুষম সারে সফল জীবন, ডাক্তার পাড়া, কার্নিশে ঝুলে থাকা প্রেম, প্রাইভেট টিউটর ইত্যাদি। বর্তমানে ইউটিউবে বেশি সময় দিই নাটকের তুলনায়।

ইউটিউবার হতে চাইলে আপনার পরামর্শ কী?

মারজিয়া মিমি: কেউ ইউটিউবার হতে চাইলে অবশ্যই তাকে প্যাশনেট হতে হবে, ভাল কন্টেন্ট বানাতে হবে এবং নিয়মিত নিয়ম করে ভিডিও আপলোড করে যেতে হবে। ভিউ কম হলে মন খারাপ করা যাবে না।

মারজিয়া মিমি

দর্শকদের প্রতিক্রিয়া কেমন?

মারজিয়া মিমি: নারী ইউটিউবার হিসেবে খারাপ কমেন্ট তো কমবেশি শুনতেই হয় তবে সাপোর্ট আর ভাল কমেন্টের পরিমাণ বরাবরই বেশি। আর বাংলাদেশে সম্ভবত আমিই প্রথম সিঙ্গেল ফিমেল কন্টেন্ট ক্রিয়েটর যার চ্যানেল ১ লক্ষ সাবস্ক্রাইবার অতিক্রম করেছে। আমি আমার ভিডিওর কন্টেন্ট নিজে লিখি, এডিটিংও অধিকাংশ সময় নিজেই করি। আমার আম্মু, আব্বু, বেস্ট ফ্রেন্ড ও আঙ্কেল আমাকে প্রচন্ড সাপোর্ট করে। তাই যেকোনো প্রতিকূলতা সহজেই ফেস করতে পারি এবং এজন্য আমি অবশ্যই অনেক লাকি।

নারী ইউটিউবারদের জন্য আপনি কিছু বলবেন?

মারজিয়া মিমি: নারীরা চাইলেই সবকিছু করতে পারে। শুধু দরকার মনের জোর এবং সাহস। বাংলাদেশে নারী ইউটিউবার ছেলে ইউটিউবারদের তুলনায় অনেক কম। নারীরা অবশ্যই তাদের প্রতিভা ইউটিউবের মাধ্যমে দুনিয়াকে দেখাতে পারে খুবই সহজে এবং উপার্জনও করতে পারে এবং নারীরা এগিয়ে যেতে পারে।

আপনার পরিবার সম্পর্কে বলুন

মারজিয়া মিমি: জন্ম, বেড়ে ওঠা বরিশালে। পরিবারের সদস্য সংখ্যা ৩ জন। আমি তো মা-বাবার একমাত্র সন্তান। কোন ভাই-বোন নেই। আমি ছোটবেলা থেকেই প্রচন্ড চঞ্চল, মাত্র ১০ মাস বয়স থেকেই আলতো আলতো কথা বলা শুরু করি।

আপনার পড়াশোনা সম্পর্কে জানতে চাই

মারজিয়া মিমি: আমি প্লে গ্রুপে না পড়ে মাত্র সাড়ে চার বছর বয়সে মল্লিকা কিন্ডার গার্টেন স্কুলে নার্সারিতে ভর্তি হই। আমি যেদিন প্রথম ক্লাসে গিয়েছিলাম মনে হচ্ছিল অনেকগুলো বড় হাতির মাঝখানে আমি একটা পিচ্চি হাঁস। এসএসসি কমপ্লিট করেছি বরিশাল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় আর এইচএসসি কমপ্লিট করেছি বরিশাল সরকারি মহিলা কলেজ থেকে এবং দুটোতেই সায়েন্স গ্রুপ থেকে জিপিএ ফাইভ পেয়েছি। এখন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটিতে আইন বিভাগে পড়াশোনা করছি। আমি বরাবরই ভাল স্টুডেন্ট ছিলাম এবং এখনো যাই করি না কেন পড়াশোনা ঠিক রেখে করি এবং সবসময়ই সিজিপিএ থ্রি পয়েন্টের উপরে রাখার চেষ্টা করি।

মারজিয়া মিমির চ্যানেলে প্রকাশিত সর্বশেষ ভিডিও দেখুন এখানে-

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter
×