মিথিলাকে ‘বিয়ে’, যা বললেন সৃজিত

  বিনোদন ডেস্ক ২১ মার্চ ২০১৯, ১৫:৫০ | অনলাইন সংস্করণ

মিথিলাকে ‘বিয়ে’, যা বললেন সৃজিত
মিথিলার সঙ্গে সৃজিত। ছবি: সংগৃহীত

কলকাতার বিখ্যাত নির্মাতা সৃজিত মুখার্জি বিয়ে করছেন।পাত্রী বাংলাদেশের মডেল ও অভিনেত্রী মিথিলা। আগামী বছরই নাকি তারা দুজন গাটছড়া বাধতে যাচ্ছেন এমন সংবাদ ছড়িয়েছে ভারতের গণমাধ্যমে। এ বিষয়ে নিজের অবস্থান ব্যক্ত করেছেন সৃজিত।

মিথিলা-সৃজিতের ‘বিয়ে’ নিয়ে ভারতের জনপ্রিয় সংবাদমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া ও পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় বাংলা দৈনিক ‘এই সময়ে’ সম্প্রতি একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এই সময়ের প্রতিবেদনে বলা হয়, আগামী বছরের শুরুতেই সংসার শুরু করতে যাচ্ছেন সৃজিত-মিথিলা। তাদের ঘনিষ্ঠ সূত্রের বরাত দিয়ে সংবাদটি প্রকাশ করা হয়।

জানা গেছে, সম্প্রতি একটি মিউজিক ভিডিওর শুটিং করতে কলকাতায় যান মিথিলা। সেখানে বন্ধু সৃজিত তাকে সঙ্গ দেন। কলকাতার বিভিন্ন স্থাপনা ও দর্শনীয় স্থান ঘুরে দেখান।

মিথিলার কলকাতায় ঘুরে বেড়ানো নিয়ে টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে বলা হয়েছে, দুজনের এই সম্পর্ক এখন আর শুটিং ফ্লোরে আটকে নেই। মিথিলা কলকাতা শহরে পা রাখার পর থেকে সৃজিত তাকে নিয়ে ঘুরে বেড়ান। মিথিলাকে কলকাতা শহর দেখিয়েছেন। পরিচালকের ঘনিষ্ঠ মহলের খবর, তারা দুজন নাকি আগামী বছরের গোড়ার দিকে বিয়ে করতে যাচ্ছেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়ার খবরে মিথিলাকে সৃজিতের জীবনের ‘রহস্যময়ী নারী’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গের ‘এলিজেবল ব্যাচেলর’ বলা হয় ‘অটোগ্রাফ’খ্যাত নির্মাতা সৃজিত মুখার্জিকে। তবে শোনা যাচ্ছে, তিনিও এখন আর সিঙ্গেল নেই। এ নির্মাতার কাছের এক সূত্র জানিয়েছে, ‘রহস্যময়’ এক নারী এসেছেন সৃজিতের জীবনে। এই নারীর সঙ্গেই ঘর বাঁধবেন সৃজিত!

টাইমস অব ইন্ডিয়ার ভাষ্য- শনিবার রাতে কলকাতার রাজারহাটে একটি ব্যক্তিগত অনুষ্ঠানে যাওয়ার জন্য ‘রহস্যময়’ সেই নারীর সঙ্গে হাঁটছিলেন সৃজিত।

খবরে আরও বলা হয়েছে, দুজনের সম্পর্ক বেশ সাবলীল মনে হয়েছে। একে অপরের সঙ্গ উপভোগ করছিলেন তারা। সূত্র জানিয়েছে, সেই নারী বাংলাদেশের একজন সংগীতশিল্পী, অভিনেত্রী ও এনজিওকর্মী। যার নাম রাফায়াত রশিদ মিথিলা!

এই সময়’র খবরে বলা হয়েছে, মিথিলাকে কলকাতা শহর ঘুরিয়ে দেখান সৃজিত। পার্টিতেও তাঁদের দেখা গেছে। এসব নিয়ে তৈরি হয়েছে রহস্য। সৃজিত এটাকে শুধু বন্ধুত্ব বলতে চান।

বিষয়টিকে গুঞ্জন বলে উড়িয়ে দেন সৃজিত মুখার্জি। মিথিলার সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘তেমন কিছুই না। আমরা দুজন খুব ভালো বন্ধু।’

বিয়ের বিষয়ে সৃজিত মুখার্জি বলেন, ‘টাইমস অব ইন্ডিয়াতে আমিও খবরটা পড়েছি। একটা জল্পনা চলছে, এটুকুই।’

জল্পনা কি বাস্তবে রূপ পাওয়ার কোনো সম্ভাবনা আছে এমন প্রশ্নে সৃজিত মুখার্জি বললেন, ‘একদমই না।’

অনেকের সঙ্গে আপনি কাজ করেন। মিথিলাকে নিয়ে এমন জল্পনার কারণ কী এমন প্রশ্নে সৃজিত মুখার্জি বলেন, ‘আমি ২০১০ সাল থেকে আজ পর্যন্ত যে কজন নায়িকার সঙ্গে কাজ করেছি, তাঁদের মধ্যে ৯০ শতাংশের সঙ্গে এমন জল্পনা হয়েছে। এটাকে আমি পেশাগত বিড়ম্বনা হিসেবে মেনে নিয়েছি। ঐতিহাসিকভাবে দেখলে, এসব জল্পনা অধিকাংশ সময়ই ভিত্তিহীন হয়েছে, আর কিছু সময়ে সঠিক হয়েছে। যেহেতু আমি ভবিষ্যৎ সম্পর্কে কিছু জানি না, তাই ভবিষ্যতের সম্ভাবনা নিয়ে বলা মুশকিল। তবে মিথিলা আমার ভালো বন্ধু, তা নিয়ে কোনো সংশয় নেই।’

মিথিলার আগে আরেক বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসানের সঙ্গে সৃজিতের প্রেমের সম্পর্ক ছিল বলে খবর এসেছিল ভারতীয় গণমাধ্যমে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মিথিলা বলেন, ওইদিন শুটিং শেষে সৃজিত তাকে কলকাতায় একটা পার্টিতে নিয়ে যায়। বন্ধুদের সঙ্গে একটু হাই-হ্যালো বলা আরকি। সৃজিতের সঙ্গে আমাকে প্রথম দেখেই হয়ত গুঞ্জনটা ছড়িয়েছে।

সৃজিতের সঙ্গে পরিচয়ের বিষয়ে মিথিলা জানান, অনেক আগে থেকে সৃজিতের সঙ্গে তার পরিচয়। এর আগেও তাদের দেখা হয়েছে, কথা হয়েছে। কলকাতায় তাদের দুজনের কয়েকজন কমন বন্ধুও আছে।

সংবাদমাধ্যম থেকে জানা গেছে, আগামী বছরের শুরুতে আপনাদের নাকি বিয়ের সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে-এ বিষয়ে জানতে চাইলে মিথিলা বললেন, ‘বিয়ের সম্ভাবনা তো সংবাদমাধ্যম তৈরি করছে। টাইমস অব ইন্ডিয়া সেই চেষ্টা করে যাচ্ছে। দেখি বিয়ের সম্ভাবনা কতটা সফল হয়।’

১১ বছর সংসার করার পর তাহসানের সঙ্গে সুখের সংসারের ইতি টানেন মিথিলা। ২০১৭ সালের ২০ জুলাই এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিয়েবিচ্ছেদের কথা স্বীকার করেন তাহসান ও মিথিলা।

ওই দিন গণামাধ্যমে পাঠানো এক এসএমএস বার্তায় তাহসান ও মিথিলা বলেন, ‘বেশ কয়েক মাস ধরে নিজেদের মধ্যকার দ্বন্দ্ব বা মতবিরোধ নিরসনের চেষ্টার পর আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি, সামাজিক চাপে একটি সম্পর্ক ধরে রাখার চেয়ে আমাদের আলাদা হয়ে যাওয়াই মঙ্গলজনক।’

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×