‘নোলক’ সিনেমার পরিচালক কে? জানাবেন আদালত
jugantor
‘নোলক’ সিনেমার পরিচালক কে? জানাবেন আদালত

  বিনোদন ডেস্ক  

২৩ মার্চ ২০১৯, ১৩:১১:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

‘নোলক’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠান
‘নোলক’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠান। ছবি-সংগৃহীত

শাকিব খান ও ববি অভিনীত আলোচিত ‘নোলক’ সিনেমার পরিচালক কে- এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবেন আদালত। 

আগামী ২৫ মার্চ সকালে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির হতে পরিচালক রাশেদ রাহা ও প্রযোজক সাকিব ইরতেজা সনেটকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। 

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বাবলুর রহমান। 

এর আগে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি ও প্রযোজক সমিতির কয়েকটি বৈঠকে বসেন। কিন্তু সমস্যার কোনো সমাধান হয়নি। পরিচালকের মর্যাদা ফিরে পেতে রাশেদ রাহা থানায় গিয়ে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। 

পাল্টা জিডি করেন প্রযোজক সাকিব ইরতেজাও। পরিচালক ও প্রযোজককে এবার সরাসরি আদালতে হাজির হতে হচ্ছে। জমকালো মহরতের পর টানা ২৮ দিন ভারতের হায়দরাবাদে শুটিং করেন পরিচালক রাশেদ রাহা। 

শুটিং শেষে ইউনিট নিয়ে দেশে ফেরার পর পরিচালকের সঙ্গে দ্বন্দ্ব শুরু হয় প্রযোজকের। এরই জেরে পরের লট থেকে প্রযোজক সাকিব ইরতেজা পরিচালক রাশেদ রাহাকে ছাড়াই শুটিং শুরু করে দেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগে অনেক সময় পার হয়ে যায়। 

শুরুতে পরিচালক ও প্রযোজক সমিতিতে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করেন পরিচালক রাশেদ রাহা। 

আদালতের বিষয়টি নিয়ে পরিচালক রাশেদ রাহা বলেন, ‘আমার বিষয়টা পরিষ্কার। আমি দুটি জিনিস চাই। প্রথমত, ছবির পরিচালক হিসেবে পর্দায় আমার নাম। দ্বিতীয়ত, আমার পাওনা টাকা। 

তিনি বলেন, আমি এখনো চার লাখ টাকা পাই প্রযোজকের কাছে। তারা যদি টাকা দিতে না পারেন, তবে আমাকে লিখিত জানিয়ে দিক। কিন্তু পরিচালক হিসেবে আমার নাম চাই। যদি আদালত তাদের পক্ষে রায় দেন, তা হলে আমি উচ্চ আদালতে যাব বিষয়টি নিয়ে।

‘নোলক’ সিনেমার পরিচালক কে? জানাবেন আদালত

 বিনোদন ডেস্ক 
২৩ মার্চ ২০১৯, ০১:১১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
‘নোলক’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠান
‘নোলক’ সিনেমার মহরত অনুষ্ঠান। ছবি-সংগৃহীত

শাকিব খান ও ববি অভিনীত আলোচিত ‘নোলক’ সিনেমার পরিচালক কে- এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত দেবেন আদালত।

আগামী ২৫ মার্চ সকালে ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে হাজির হতে পরিচালক রাশেদ রাহা ও প্রযোজক সাকিব ইরতেজা সনেটকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বাবলুর রহমান।

এর আগে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি ও প্রযোজক সমিতির কয়েকটি বৈঠকে বসেন। কিন্তু সমস্যার কোনো সমাধান হয়নি। পরিচালকের মর্যাদা ফিরে পেতে রাশেদ রাহা থানায় গিয়ে সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন।

পাল্টা জিডি করেন প্রযোজক সাকিব ইরতেজাও। পরিচালক ও প্রযোজককে এবার সরাসরি আদালতে হাজির হতে হচ্ছে। জমকালো মহরতের পর টানা ২৮ দিন ভারতের হায়দরাবাদে শুটিং করেন পরিচালক রাশেদ রাহা।

শুটিং শেষে ইউনিট নিয়ে দেশে ফেরার পর পরিচালকের সঙ্গে দ্বন্দ্ব শুরু হয় প্রযোজকের। এরই জেরে পরের লট থেকে প্রযোজক সাকিব ইরতেজা পরিচালক রাশেদ রাহাকে ছাড়াই শুটিং শুরু করে দেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগে অনেক সময় পার হয়ে যায়।

শুরুতে পরিচালক ও প্রযোজক সমিতিতে বিষয়টি নিয়ে অভিযোগ করেন পরিচালক রাশেদ রাহা।

আদালতের বিষয়টি নিয়ে পরিচালক রাশেদ রাহা বলেন, ‘আমার বিষয়টা পরিষ্কার। আমি দুটি জিনিস চাই। প্রথমত, ছবির পরিচালক হিসেবে পর্দায় আমার নাম। দ্বিতীয়ত, আমার পাওনা টাকা।

তিনি বলেন, আমি এখনো চার লাখ টাকা পাই প্রযোজকের কাছে। তারা যদি টাকা দিতে না পারেন, তবে আমাকে লিখিত জানিয়ে দিক। কিন্তু পরিচালক হিসেবে আমার নাম চাই। যদি আদালত তাদের পক্ষে রায় দেন, তা হলে আমি উচ্চ আদালতে যাব বিষয়টি নিয়ে।