চলে গেলেন গিরিশ কারনাড

  যুগান্তর ডেস্ক ১০ জুন ২০১৯, ১৩:৩০ | অনলাইন সংস্করণ

গিরিশ কারনাড
ভারতের প্রখ্যাত অভিনেতা, নাট্যকার ও সাহিত্যিক গিরিশ কারনাড। ফাইল ছবি

ভারতের প্রখ্যাত অভিনেতা, নাট্যকার ও সাহিত্যিক গিরিশ কারনাড আর নেই।

সোমবার সকালে বেঙ্গালুরুতে লাভেলি রোডে নিজ বাসভবনে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর।

বার্তা সংস্থা এএনআই টুইটারে এ খবর নিশ্চিত করেছে।

অনেক দিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন গিরিশ কারনাড। বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। অসুস্থতার কারণে কয়েকবার তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অভিনয়ের পাশাপাশি পরিচালক হিসেবে সুনাম অর্জন করেন গিরিশ কারনাড। পেয়েছেন পদ্মশ্রী (১৯৭৪), পদ্মভূষণ (১৯৯২) ও জ্ঞানপীঠ (১৯৯৮) সম্মান। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারসহ চারটি ফিল্মফেয়ার পুরস্কার পেয়েছেন।

১৯৬০ সাল থেকে কন্নড় ভাষায় লেখক হিসেবে তিনি পরিচিতি পেতে শুরু করেন।

১৯৩৮ সালের ১৯ মে বর্তমান মহারাষ্ট্রের মাথেরানে জন্মগ্রহণ করেন গিরিশ কারনাড। চার ভাইবোনের মধ্যে তিনি ছিলেন তৃতীয়।

তার পড়াশোনার শুরুটা হয়েছিল কর্নাটকে। অঙ্ক ও সংখ্যাতত্ত্বে স্নাতক করেছেন। এর পর অক্সফোর্ডে রাজনীতি ও অর্থনীতি নিয়ে পড়াশোনা করেন।

গিরিশ কারনাডের স্ত্রী সরস্বতী গণপতি। তাদের দুই সন্তান।

১৯৭০ সালে ‘সংস্কার’ ছবি দিয়ে বড় পর্দায় গিরিশ কারনাডের যাত্রা শুরু। অভিনয় করেছেন ‘নিশান্ত’, ‘মন্থন’, ‘স্বামী’, ‘পুকার’-এর মতো হিট ছবিতে।

২০০৫ সালে মুক্তি পায় ‘ইকবাল’। এ ছবিতে তার অভিনয় পছন্দ করেন দর্শক। সালমান খানের দুটি আলোচিত ছবিতে তিনি অভিনয় করেছেন।

২০১২ সালে ‘এক থা টাইগার’ এবং ২০১৭ সালে ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবিতে গিরিশ কারনাডের অভিনয় দেখে মুগ্ধ হন দর্শকরা।

ছোট পর্দায়েও গিরিশ কারনাড সমান জনপ্রিয় ছিলেন। ১৯৮৬-৮৭ সালে জনপ্রিয় টিভি ধারাবাহিক ‘মালগুড়ি ডেজ’-এ তিনি অভিনয় করেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×