‘দি ডিরেক্টর’ নিয়ে পপি-কামুর পাল্টাপাল্টি মামলার হুমকি

  বিনোদন ডেস্ক ১৭ জুন ২০১৯, ১৬:১১ | অনলাইন সংস্করণ

‘দি ডিরেক্টর’ নিয়ে পপি-কামুর পাল্টাপাল্টি মামলার হুমকি
চিত্রনায়িখা পপি ও ‘দি ডিরেক্টর’ ছবির নির্মাতা কামরুজ্জামান কামু

এবারে ঈদুল-ফিতরের দিনে মুক্তি পেল কবি ও নির্মাতা কামরুজ্জামান কামুর স্বল্প বাজেটের চলচ্চিত্র ‘দি ডিরেক্টর’।

প্রেক্ষাগৃহে না দিয়ে সিনেমাটি পরিচালক সান বিডিটিউব নামের একটি ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি দিয়েছেন।

পেক্ষাগৃহে না দিয়ে সিনেমাটি কেন ইউটিউব চ্যানেলে অবমুক্ত করলেন পরিচালক তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সূত্রের খবর, ২০১৩ সালে ‘দি ডিরেক্টর’ নির্মাণ কাজ শেষ হলেও দীর্ঘদিন ছাড়পত্রের প্রত্যাশায় সেন্সর বোর্ডের টেবিলে চক্কর খাচ্ছিল সিনেমাটি। ছাড়পত্র পাওয়ার পরিবর্তে সে সময় ছবিটির বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ এনে মুক্তি আটকে দেয়া হয়।

সিনেমার মুক্তির জন্য রাজপথে দীর্ঘ আন্দোলন করেছিলেন কামুসহ মুক্তমনের শিল্পচর্চায় আগ্রহী মানুষরাও। এরই প্রেক্ষিতে ২০১৫ সালে সেন্সর পায় ‘দি ডিরেক্টর’। মুক্তির ছাড়পত্র পেলেও উপযুক্ত স্পন্সর না পেয়ে আবারও ঝুলে পড়ে ‘দি ডিরেক্টর’ মুক্তি। গত চার বছর ধরেই বিভিন্ন জায়গায় ধর্ণা দিয়েও সিনেমাটি মুক্তি দিতে আগ্রহী কাউকে পাশে পাননি কামরুজ্জামান কামু।

শেষ পর্যন্ত নিজের আর্থিক ক্ষতি করে হলেও সিনেমাটি ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি দেন পরিচালক কামু। দর্শকরা বিনামূল্যে দেখুক তার ছবি।

অর্থের পাশাপাশি দীর্ঘদিনের শ্রম আর মেধাকেও এভাবে একদম বিনামূল্যে দর্শকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়ার অসাধারণ সাহস দেখালেন কামু।

এত ঝক্কিঝামেলার পর সিনেমাটি ইউটিউবে মুক্তি দেয়ার পরও নতুন ঝামেলায় পড়েছেন কামু।

সিনেমাটি নিয়ে ইতোমধ্যে বিতর্ক সৃষ্টি করেছেন ‘দি ডিরেক্টর’-এর নায়িকা পপি। ইউটিউবে সিনেমাটি মুক্তি পাওয়ার ঘোষণার পর থেকেই এ ছবিটি নিয়ে অভিযোগ করেছেন তিনি।

বিভিন্ন গণমাধ্যমে পপি অভিযোগ করে বলেন, ‘একটা টেলিফিল্ম কীভাবে চলচ্চিত্র হয়? আমি জানতাম কামু ভাই টেলিফিল্ম নির্মাণ করছেন। আর সেই অনুযায়ী আমাকে আমার পারিশ্রমিক দেওয়া হয়েছে। যদি এটা সিনেমাই হয়, তা হলে তো আমার পারিশ্রমিক দেওয়ার কথা চলচ্চিত্রের। তা হলে আমাকে কেন ঠকানো হলো?’

সম্প্রতি পরিচালক কামুর বিরুদ্ধে মামলা করবেন বলেও হুমকি দিয়েছেন এ অভিনেত্রী।

পপি বলেছেন, ‘আমি অবশ্যই আইনি লড়ব। যে কেউ এসে আমাকে মিস ইউজ করে আমার দর্শকদের ঠকাবে, এটা আমি কখনই মেনে নেব না।’

এ ছাড়া পপি আরও অভিযোগ করে বলেন, ‘আমি যদি সিনেমার প্রধান চরিত্রই হতাম তা হলে মাত্র দুদিন কেন শুটিং করানো হলো আমাকে দিয়ে? আমি জানি না বিশ্বের কোথাও কোনো সিনেমায় একজন মেইন আর্টিস্ট মাত্র দুদিন শুটিং করে কিনা!’

এদিকে পপির মামলার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ‘দি ডিরেক্টর’ সিনেমার আলোচিত পরিচালক কামরুজ্জামান কামু জানান, পপির মামলার হুমকির বিষয়ে তিনি চিন্তিত নন। তিনি এখন তার পরবর্তী কাজ নিয়ে পরিকল্পনা করছেন।’

পপি মামলা করলে এ বিষয়ে তিনি কোনো পদক্ষেপ নেবেন কিনা জানতে চাইলে কামু বলেন, ‘মামলা করুক আগে। এরপর সেটা মোকাবেলার জন্য যা যা করতে হয় করব।

পপি মামলা করলে পাল্টা মানহানির মামলা করতে পারেন বলে জানান কামরুজ্জামান কামু।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×