নুসরাতের বিয়ের প্রথম ছবি ভাইরাল

  বিনোদন ডেস্ক ২০ Jun ২০১৯, ১৬:৪৪:২৩ | অনলাইন সংস্করণ

বিয়েটা সেরেই ফেললেন টালিউড অভিনেত্রী ও পশ্চিমবঙ্গের বসিরহাটের সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান।বুধবার তুরস্কের বন্দর শহর বোদরুমের ‘সিক্স সেন্সেস কাপলাংকায়া’ হোটেলে বিয়ের জমকালো অনুষ্ঠান হয়।বিয়ের প্রথম ছবি প্রকাশ্যে এনেছেন নুসরাত।সেই ছবি ভাইরালও হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

ছবিতে দেখা গেছে, বোদরুমের সমুদ্রের ধারে নববধূর সাজে নুসরাত পরেন লাল লেহেঙ্গা ও বরের বেশে নিখিল জৈন পরেছেন ক্রিম কালারের শেরওয়ানি। গলায় গোলাপের মালা। যেন রূপকথার জুড়ি নুসরাত-নিখিল।

২৯ বছর বয়সী এই সুদর্শনী সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্বামীর সঙ্গে ধারণ করা বিয়ের এই ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, নিখিল জৈনের সঙ্গে সুখের খোঁজে।

বিয়ের পিঁড়িতে বসার ঠিক আগের মুহূ্র্তেও বরের বেশে ছবি তুলতে দেখা গেছে নিখিল জৈনকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় উঠে এসেছে যে ছবি, ক্যাপশানে লেখা 'ফাইনালি হ্যাপেনিং'।

এর আগে, গত শনিবার রাতে হবু বর নিখিল জৈনকে সঙ্গে নিয়ে ইস্তাম্বুলে উড়ে গেছেন নুসরাত জাহান। বিয়ের অনুষ্ঠানে দুই পরিবার, বন্ধু, সহকর্মী আর মেকআপ টিমের মোট ৩০ জন রয়েছেন।

তুরস্কে বিয়ের অনুষ্ঠান হওয়ায় আমন্ত্রিতদের অনেকের পক্ষেই নুসরত-নিখিলের বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকা সম্ভব হয়নি। তাই ৪ জুলাই কলকাতাতেই রাখা হয়েছে রিসেপশন পার্টি।

বিয়ের পর ইউরোপের কোনো একটি জায়গায় মধুচন্দ্রিমায় যাবেন নবদম্পতি। নুসরাত জাহান ও নিখিল দম্পতি কলকাতায় ফিরবেন ২৫ জুনের আগেই। কারণ ২৫ জুন দিল্লিতে সংসদ সদস্য হিসেবে লোকসভার প্রথম অধিবেশনে যোগ দেবেন তৃণমূলের এ নেত্রী।

নুসরাত জাহানের হবু বর নিখিল জৈন কলকাতার ছেলে। তবে চলচ্চিত্রের সঙ্গে কোনো যোগাযোগ নেই তার। এমপি বিড়লা ফাউন্ডেশনে পড়াশোনার পর যুক্তরাজ্যের ওয়ারউইক বিশ্ববিদ্যালয়ে ম্যানেজমেন্টের ওপর পড়াশোনা করেছেন।

নিখিলের সঙ্গে নুসরাতের পরিচয় হয় গত বছর পূজার আগে। ব্যবসায়ী নিখিল জৈনের শাড়ির ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপন করেছিলেন নুসরাত জাহান। এই কাজের সূত্রেই তাদের পরিচয়। অল্প দিনেই সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ হয়। এর পর তারা দুজনে মিলেই বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন।

আরও খবর
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত