মুসলিম নির্যাতনের প্রতিবাদ করায় সৌমিত্র-অপর্ণার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের মামলা

  বিনোদন ডেস্ক ২৮ জুলাই ২০১৯, ১৭:১৭ | অনলাইন সংস্করণ

অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও অপর্ণা সেন।
অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও অপর্ণা সেন। ছবি সংগৃহীত

ভারতজুড়ে ‘গো রক্ষার’ নামে মুসলিমদের নির্যাতন বন্ধের দাবিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বরাবর চিঠি দেয়ায় অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও অপর্ণা সেনের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগে মামলা করা হয়েছে।

বিহার আদালতে মামলাটি করেছেন সুধীর কুমার ওঝা নামের একজন আইনজীবী। ভারতজুড়ে ধর্মীয় অসহিষ্ণুতা ও গণপিটুনি বন্ধের দাবিতে এবং ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি তুলে সাম্প্রদায়িক উসকানিমূলক বার্তা ছড়ানোর প্রতিবাদে দেশের ৪৯ জন বরেণ্য ব্যক্তিত্ব প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বরাবর চিঠি দেন। এরপর তা নিয়ে দেশজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়।

চলচ্চিত্রের এই দুই বরেণ্য তারকার পাশাপাশি দেশের ৪৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তির বিরুদ্ধে দেশদ্রোহের অভিযোগ আনা হয়। এই তালিকায় আরও রয়েছেন- শ্যাম বেনেগাল, অনুরাগ কাশ্যপ, মণিরত্নম।

সুধীর কুমার ওঝার অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উন্নয়নে ব্যাঘাত ঘটানো এবং বহির্বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করেছেন এই ৪৯ জন নাগরিক। তিনি এই মামলায় সাক্ষী হিসেবে কঙ্গনা রনৌত, মধুর ভান্ডারকর, বিবেক অগ্নিহোত্রীর নাম উল্লেখ করেছেন। আদালত আগামী ৩ আগস্ট মামলার শুনানির দিন ধার্য করেছেন।

অন্যদিকে অভিনেতা ও নির্মাতা কৌশিক সেন আর অনুরাগ কাশ্যপকে হত্যার হুমকি দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে অভিনেত অপর্ণা সেন বলেছেন, মাত্র ৪৯ জন চিঠি দেয়াতেই এত ভয়। দুটো প্রাণনাশের হুমকি চলে আসছে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি পাঠিয়ে বিজেপি আর দলটির বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের রোষানলে পড়েছেন দেশের ৪৯ জন বরেণ্য ব্যক্তিত্ব। এর পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সমর্থন করে দেশের ৬১ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি তাকে পাল্টা চিঠি দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত সম্প্রতি গো রক্ষার নামে ভারতের গণপিটুনির ঘটনা বেড়ে গেছে। এতে উদ্বেগ প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে চিঠি দিয়েছেন দেশটির ৪৯ বিশিষ্টজন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×