তরুণ নির্মাতা পার্থ পৌলিনিউসের শর্ট-ফিল্ম ‘জোঁক’

  যুগান্তর ডেস্ক    ২০ আগস্ট ২০১৯, ১০:৩৭ | অনলাইন সংস্করণ

তরুণ প্রজন্মের নির্মাতা পার্থ পৌলিনিউস ফলিয়া
তরুণ প্রজন্মের নির্মাতা পার্থ পৌলিনিউস ফলিয়া

যেন আমাদের সমাজের নির্যাতিত নারীর এক প্রতিচ্ছবি। এই পুরুষ প্রভুত্ব সমাজে নারীর প্রতি নির্যাতনের রূপ কতটা নির্মম তারই এক প্রতিচ্ছবি অন্তু। গল্পের চরিত্রকে ছাপিয়ে অন্তু যেন হয়ে উঠেছে সমাজেরই এক আয়না।

আয়নার ওপারের সমাজের এই রূপ সমাজ নিজেই আজ দেখতে নারাজ! এই নোংরা সমাজের ফলশ্রুতিতে পবিত্র সাদা অন্তুদের অন্তর যেন ধুসর রূপ ধারণ করছে! অন্তুদের রঙিন স্বপ্নগুলোকে সাদা-কালো করার অধিকার কে দিয়েছে এই সমাজকে?

‘জোঁক’ ঠিক যেমনটি মানুষর রক্ত শুষে নিজের জীবন ধারণ করে ঠিক তেমনি পুরুষ রূপি পশুগুলো নিজের বিনোদনের খোরাক হিসাবে বেছে নেয় নারীর সম্মান।

তরুণ প্রজন্মের নির্মাতা পার্থ পৌলিনিউস ফলিয়ার পরিচালনায় শর্ট-ফিল্ম ‘জোঁক’ অন্তুদের কথাই সমাজকে জানান দিচ্ছে।

ফিল্মটি ইতিমধ্যে দেশে এবং দেশের বাইরের চলচ্চিত্র উৎসবগুলোতে অনেক প্রশংসিত হয়েছে।

তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ১২তম আন্তর্জাতিক আন্তঃ বিশ্ববিদ্যালয় চলচ্চিত্র উৎসব, ১২তম আন্তর্জাতিক শিশু চলচ্চিত্র উৎসব, গ্লোবাল ইয়ুথ ফিল্ম ফেস্টিভাল, সেফালু ফিল্ম ফেস্টিভাল, লিট অফ ফিল্ম ফেস্টিভাল ইত্যাদি।

এর পাশাপাশি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শর্ট-ফিল্মটির প্রদর্শনী হয়েছে। বিখ্যাত সাহিত্যকার ডক্টর সেলিনা হোসেনও ফিল্মটি দেখেছেন এবং ভূয়সী প্রশংসাও করেছেন।

তরুণ এই নির্মাতা মনে করেন ফিল্ম হলো সকল ধরনের শিল্পের সংমিশ্রণে এক ত্রিমাত্রিক পরিবেশন যা সকল পর্যায়ের মানুষের কাছে খুব সহজেই পৌঁছাতে পারে।

তার নির্মিত ফিল্মগুলোতে সমাজকে দেখার এই ভিন্নধর্মী চিন্তার সুস্পষ্ট ছাপ পাওয়া যায়।

এই নির্মাতার নির্মিত ফিল্ম- সাইলেন্স, ইন্সোমেনিয়া, টিল দা এনড, অপেক্ষা দর্শকদের উল্লেখযোগ্যভাবে স্থান করে নিয়েছে।

পূর্বের কাজগুলোর মত ‘জোঁক’-এর সফলতা নিয়েও পার্থ আশাবাদী বলে যুগান্তরকে জানিয়েছেন। খুব শিগগির দর্শকরা এটি অনলাইনে দেখতে পাবেন বলেও তিনি জানান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×