পানিতে দম আটকে মারা যান শ্রীদেবী!

প্রকাশ : ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২০:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

  অনলাইন ডেস্ক

দুবাইয়ে মৃত্যুবরণ করা বলিউডের নারী সুপারস্টার শ্রীদেবীর ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। তিনি বাথটাবের পানিতে দম আটকে মারা যান বলে ওই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে। আমিরাত প্রশাসন তার ডেথ সার্টিফিকেটও হস্তান্তর করেছে। দুবাই পুলিশের সূত্র উল্লেখ করে এ খবর দিয়েছে খালিজ টাইমস। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

গত শনিবার রাতে দুবাইয়ের জুমেইরাহ এমিরেটস টাওয়ার থেকে শ্রীদেবীর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয়েছিল হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসকরা জানান, অনেকক্ষণ আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। ময়নাতদন্তের পরেও তার ডেথ সার্টিফিকেট না পাওয়ায় প্রশ্ন উঠছিল। ফরেনসিক বিভাগ মৃত্যুর কারণ নিয়ে নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত শ্রীদেবীর ডেথ সার্টিফিকেট দেবে না বলে জানিয়েছিল।

সোমবার স্থানীয় সময় দুপুর সোয়া ১টার দিকে দুবাইয়ে কর্মরত ভারতীয় দূতাবাসের এক কর্মী এবং কাপুর পরিবারের আত্মীয় সৌরভ মলহোত্রকে মর্গে ডাকা হয়। কিছুক্ষণের মধ্যেই তারা বেরিয়ে আসেন। দুপুর ২টার দিকে তাদের দেখা করতে বলা হয়। এরপর জানানো হয়, ঘণ্টা দুয়েকের মধ্যে শ্রীদেবীর ডেথ সার্টিফিকেট ইস্যু করা হবে।

এর কিছুক্ষণ আগেই ফরেনসিক দফতরের পক্ষ থেকে জানানো হয়, দ্বিতীয়বারের জন্য শ্রীদেবীর দেহের ময়নাতদন্ত করার কোনো প্রয়োজন নেই। এর পরেই দূতাবাসের কর্মী এবং সৌরভকে ডেকে পাঠানো হয় মর্গে।

ফরেন্সিক দফতর শ্রীদেবীর রক্ত এবং দেহাংশের নমুনা-সংক্রান্ত বেশকিছু রিপোর্ট তখনও জমা দেয়নি। ফলে ময়নাতদন্ত হয়ে গেলেও ডেথ সার্টিফিকেট মিলছিল না। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে জানা যায়, ফের ময়নাতদন্ত হতে পারে। উত্তেজনা বাড়তে থাকে। তবে বেলা সোয়া ১টার দিকে ফরেনসিক দফতর জানায়, তার আর প্রয়োজন নেই।

এদিকে সোমবার বিকালে দুবাই থেকে শ্রীদেবীর মরদেহ নিয়ে বিশেষ বিমানে বনি কাপুর ও পরিবারের অন্য সদস্যরা রওনা হতে পারেন বলে জানা গেছে। সোমবারই শেষকৃত্য হবে কিনা তা নিয়েও অনিশ্চয়তা রয়েছে।