এবার সেই রানু মণ্ডলের মেয়ের গান ভাইরাল!

  অনলাইন ডেস্ক ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৭:০৩ | অনলাইন সংস্করণ

মেয়ে এলিজাবেথ ও রানু মণ্ডল
মেয়ে এলিজাবেথ ও রানু মণ্ডল। ছবি ভিডিও থেকে সংগৃহীত

রানাঘাট মানে এখন একটাই নাম রানু মণ্ডল। তিনি যা করছেন, যা বলছেন যা গাইছেন সবই ভাইরাল! স্টেশনে লতা মঙ্গেশকারের গান গেয়ে বিখ্যাত হয়ে যাওয়া রানু মণ্ডল মুম্বাইয়ের বিখ্যাত শিল্পীদের সঙ্গে অনেক স্টুডিওতে গাইছেন। সুরকার হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে তিনটি গান রেকর্ড করেছেন তিনি। যেগুলো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

আবারও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রানুর দুইটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। একটিতে নিজের মেয়ে এলিজাবেথের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যাচ্ছে তাকে, দু'জনে মিলে একসঙ্গে গান ধরেছেন ওই ভিডিওতে।

মা রানু মণ্ডলের জনপ্রিয়তার পরে তার মেয়ে এলিজাবেথ সাথী রায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গান গেয়েছেন। তবে একা নয় রানু মণ্ডলও গেয়েছেন মেয়ের সঙ্গে। এলিজাবেথ মোহাম্মদ রফির ‘আজ-কাল তেরে মেরে প্যায়ার কে চর্চে' গানটি গেয়েছেন।

রানু মণ্ডল ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করার পর তার মেয়ে মাকে দেখতে এলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন। অনেকেই বলতে থাকেন, কোনো দিন মায়ের খোঁজ করেনি যে মেয়ে, সে খ্যাতির পরে মায়ের কাছে ফিরে এসেছে। যদিও পরে রানুর মেয়ে এলিজাবেথ এমন সংবাদ ভুল বলে দাবি করেন।

রানু মণ্ডল হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে একটা নয়, তিন তিনটে গান রেকর্ড করেছেন। এই তিনটি গান হলো, তেরি মেরি কাহানি, আদত এবং আশিকী মে তেরি। রানু মণ্ডলের প্রতিভার নজির দেখেই হিমেশ সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তাকে দিয়েই গান গাওয়াবেন।

যদিও লতা মঙ্গেশকরের গান গেয়ে রানু বিখ্যাত হয়েছেন, সেই কিংবদন্তি শিল্পী লতা মঙ্গেশকর রানু প্রসঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে বলেন, নকলের সাফল্য স্থায়ী হয় না। কেবল রানু নয়, লতা সবার প্রসঙ্গেই এই একই কথা বলেন। সূত্র: এনডিটিভি

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×