বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে গিয়ে প্রেম, অতঃপর বিয়ে
jugantor
বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে গিয়ে প্রেম, অতঃপর বিয়ে

  বিনোদন ডেস্ক  

২২ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:১৫:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে গিয়ে প্রেম, অতঃপর বিয়ে

বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে গিয়ে পরিচয়, সেই থেকে বন্ধুত্ব; এরপর প্রেম। সেই সম্পর্ককে পাকাপোক্ত করলেন অভিনেতা শিবলী নোমান ও অভিনেত্রী নিশাত প্রিয়ম। সম্প্রতি তারা বিয়ে করেছেন।

১১ অক্টোবর রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানে ঘনিষ্ঠজনরা উপস্থিত ছিলেন। এতদিন দুজনেই সুখবরটি গোপনই রেখেছিলেন।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে একটি বিজ্ঞাপনের জুটি হয়ে অভিনয় করেন শিবলী ও নিশাত। সে সময়ই তারা একে অপরকে পছন্দ করতে শুরু করেন। একে অপরের মধ্যে ভালোলাগা তৈরি হয়। সেই ভালো লাগা গড়ায় ভালোবাসাতে।

এ বিষয়ে চিত্রনায়ক শিবলী নোমান বলেন, ‘আমাদের বিয়েটা পরিবারের সিদ্ধান্তেই হয়েছে। আমরা আমাদের পছন্দের বিষয়টি পরিবারকে জানাই। দুই পরিবারের আলোচনা শেষে পরিচয়ের চার মাসের মাথায় ১১ অক্টোবর আমরা বিয়ে করি। পরিচয় সময়টা কম হলেও আমাদের মধ্যে বোঝাপড়াটা চমৎকার। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

তবে প্রেমের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন অভিনেত্রী নিশাত প্রিয়ম। বলেন, ‘আমরা আসলে প্রেম করিনি। বন্ধুত্ব হওয়ার পরই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি। পরিবারের অমত না থাকায় সবকিছু সুন্দরভাবে হয়েছে।’

২০১৭ সালে মিজানুর রহমান লাবুর ‘তুখোড়’ ছবির মধ্য দিয়ে রুপালি পর্দায় পা রাখেন নোমান। এর পর রবিন খানের ‘মন দেব মন নেব’ ছবিতে তিনি অভিনয় করেন মাহিয়া মাহির বিপরীতে। বর্তমানে বিজ্ঞাপন ও টিভি নাটকের কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন শিবলী।

অন্যদিকে নিশাত প্রিয়মের শুরুটা হয় ২০১৬ সালে। বেশ কিছু নাটক, বিজ্ঞাপন, মিউজিক ভিডিও ও ওয়েব সিরিজে তাকে অভিনয় করতে দেখা গেছে। সম্প্রতি অভিনয়ে কিছুটা অনিয়মিত প্রিয়ম।

বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে গিয়ে প্রেম, অতঃপর বিয়ে

 বিনোদন ডেস্ক 
২২ নভেম্বর ২০১৯, ০১:১৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে গিয়ে প্রেম, অতঃপর বিয়ে
বিয়ে করেছেন চিত্রনায়ক শিবলী নোমান ও অভিনেত্রী নিশাত প্রিয়ম

বিজ্ঞাপনে অভিনয় করতে গিয়ে পরিচয়, সেই থেকে বন্ধুত্ব; এরপর প্রেম। সেই সম্পর্ককে পাকাপোক্ত করলেন অভিনেতা শিবলী নোমান ও অভিনেত্রী নিশাত প্রিয়ম। সম্প্রতি তারা বিয়ে করেছেন।

১১ অক্টোবর রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানে ঘনিষ্ঠজনরা উপস্থিত ছিলেন। এতদিন দুজনেই সুখবরটি গোপনই রেখেছিলেন।

চলতি বছর ফেব্রুয়ারিতে একটি বিজ্ঞাপনের জুটি হয়ে অভিনয় করেন শিবলী ও নিশাত। সে সময়ই তারা একে অপরকে পছন্দ করতে শুরু করেন। একে অপরের মধ্যে ভালোলাগা তৈরি হয়। সেই ভালো লাগা গড়ায় ভালোবাসাতে। 

এ বিষয়ে চিত্রনায়ক শিবলী নোমান বলেন, ‘আমাদের বিয়েটা পরিবারের সিদ্ধান্তেই হয়েছে। আমরা আমাদের পছন্দের বিষয়টি পরিবারকে জানাই। দুই পরিবারের আলোচনা শেষে পরিচয়ের চার মাসের মাথায় ১১ অক্টোবর আমরা বিয়ে করি। পরিচয় সময়টা কম হলেও আমাদের মধ্যে বোঝাপড়াটা চমৎকার। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

তবে প্রেমের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন অভিনেত্রী নিশাত প্রিয়ম। বলেন, ‘আমরা আসলে প্রেম করিনি। বন্ধুত্ব হওয়ার পরই বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলি। পরিবারের অমত না থাকায় সবকিছু সুন্দরভাবে হয়েছে।’

২০১৭ সালে মিজানুর রহমান লাবুর ‘তুখোড়’ ছবির মধ্য দিয়ে রুপালি পর্দায় পা রাখেন নোমান। এর পর রবিন খানের ‘মন দেব মন নেব’ ছবিতে তিনি অভিনয় করেন মাহিয়া মাহির বিপরীতে। বর্তমানে বিজ্ঞাপন ও টিভি নাটকের কাজ নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করছেন শিবলী।

অন্যদিকে নিশাত প্রিয়মের শুরুটা হয় ২০১৬ সালে। বেশ কিছু নাটক, বিজ্ঞাপন, মিউজিক ভিডিও ও ওয়েব সিরিজে তাকে অভিনয় করতে দেখা গেছে। সম্প্রতি অভিনয়ে কিছুটা অনিয়মিত প্রিয়ম।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন