অস্কার জিতে ট্রাম্পের অভিশংসন প্রসঙ্গে মন্তব্য ব্রাড পিটের
jugantor
অস্কার জিতে ট্রাম্পের অভিশংসন প্রসঙ্গে মন্তব্য ব্রাড পিটের

  অনলাইন ডেস্ক  

১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৩৩:০৯  |  অনলাইন সংস্করণ

অবশেষে অধরা স্বপ্ন পূরণ হলো হলিউডের পরিশ্রমী অভিনেতা ব্রাড পিটের।

বাংলাদেশ সময় সোমবার সকালে ৯২তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসে অস্কারের স্বাদ পেলেন ৫৬ বছর বয়সী এ অভিনেতা।

এর আগেও অস্কার মঞ্চে উঠেছিলেন ব্রাড পিট। তবে সেদিন অভিনেতা হিসেবে নয়; প্রযোজকের ভূমিকায় থেকে অস্কার হাতে নিয়েছিলেন।

২০১৪ সালে ‘১২ ইয়ারস আ স্লেভ’ ছবি প্রযোজনার জন্য অস্কার পেয়েছিলেন ব্রাড পিট। অনেকটা দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর মতো।

তবে অভিনয় জগতের লম্বা ক্যারিয়ারে এবার সত্যি সত্যি অস্কার ধরা দিল তার।

‘ওয়ানস আপন আ টাইম ইন হলিউড’ ছবিতে সেরা সহ-অভিনেতা ক্যাটাগরিতে অস্কার জিতেছেন কিংবদন্তি এই অভিনেতা।

আল পাচিনো, জো পেসি, টম হ্যান্কস এবং অ্যান্থনি হপকিন্সের মতো কঠিন সব প্রতিদ্বন্দ্বীকে টেক্কা দিয়ে এবারের অস্কারকে নিজের করে নিলেন ব্রাড পিট।

আর অস্কার হাতে নিয়েই মঞ্চে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসনের শুনানির বিষয়টি টেনে আনলেন পিট।

থ্যাঙ্ক ইউ স্পিচে অনেকটা মজা করে পিট বলেন, ‘আমাকে বলা হয়েছে ৪৫ সেকেন্ডের ভেতর শেষ করতে। চলতি সপ্তাহে সিনেটে জন বোল্টনকে দেয়া সময়ের থেকে আমার সময় ৪৫ সেকেন্ড বেশি! এই নিয়েই একটা ছবি বানানো উচিত টারান্টিনোকে৷’

সবশেষে বলেন, ‘শেষ ভালো যার, সব ভালো তার।’ এর পর ওয়ান্স আপঅন আ টাইম ইন হলিউড ছবিতে সহ-অভিনেতা লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিওকে ধন্যবাদ জানান পিট৷

এমন বক্তব্য দিয়ে তিনি যে ট্রাম্পের অভিশংসনের শুনানিকে বিতর্কিত করলেন সে কথা বুঝতে ভুল করেননি উপস্থিত কেউ।

উল্লেখ্য, আমেরিকার সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনকে দিয়ে ডেমোক্র্যাটরা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেয়াতে চেয়েছিল। কিন্তু রিপাবলিকান সিনেটররা তাকে কথাই বলতে দেননি।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের জুলাই মাসের শেষদিকে ‘ওয়ানস আপন আ টাইম ইন হলিউড’ ছবিটি মুক্তি পায়।

ছবিটির পরিচালক কুয়েন্টিন টারানটিনো।

১৯৬০-এর দশকে একটি পরিবারে ঘটে যাওয়া খুনের ঘটনা নিয়ে চিত্রনাট্য আবর্তিত হয়েছে।

অস্কার জিতে ট্রাম্পের অভিশংসন প্রসঙ্গে মন্তব্য ব্রাড পিটের

 অনলাইন ডেস্ক 
১০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১১:৩৩ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অবশেষে অধরা স্বপ্ন পূরণ হলো হলিউডের পরিশ্রমী অভিনেতা ব্রাড পিটের।  

বাংলাদেশ সময় সোমবার সকালে ৯২তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসে অস্কারের স্বাদ পেলেন ৫৬ বছর বয়সী এ অভিনেতা।

এর আগেও অস্কার মঞ্চে উঠেছিলেন ব্রাড পিট। তবে সেদিন অভিনেতা হিসেবে নয়; প্রযোজকের ভূমিকায় থেকে অস্কার হাতে নিয়েছিলেন।

২০১৪ সালে ‘১২ ইয়ারস আ স্লেভ’ ছবি প্রযোজনার জন্য অস্কার পেয়েছিলেন ব্রাড পিট।  অনেকটা দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানোর মতো।

তবে অভিনয় জগতের লম্বা ক্যারিয়ারে এবার সত্যি সত্যি অস্কার ধরা দিল তার।

‘ওয়ানস আপন আ টাইম ইন হলিউড’ ছবিতে সেরা সহ-অভিনেতা ক্যাটাগরিতে অস্কার জিতেছেন কিংবদন্তি এই অভিনেতা।

আল পাচিনো, জো পেসি, টম হ্যান্কস এবং অ্যান্থনি হপকিন্সের মতো কঠিন সব প্রতিদ্বন্দ্বীকে টেক্কা দিয়ে এবারের অস্কারকে নিজের করে নিলেন ব্রাড পিট।

আর অস্কার হাতে নিয়েই মঞ্চে নিজের প্রতিক্রিয়া জানাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিশংসনের শুনানির বিষয়টি টেনে আনলেন পিট।

থ্যাঙ্ক ইউ স্পিচে অনেকটা মজা করে পিট বলেন, ‘আমাকে বলা হয়েছে ৪৫ সেকেন্ডের ভেতর শেষ করতে। চলতি সপ্তাহে সিনেটে জন বোল্টনকে দেয়া সময়ের থেকে আমার সময় ৪৫ সেকেন্ড বেশি! এই নিয়েই একটা ছবি বানানো উচিত টারান্টিনোকে৷’

সবশেষে বলেন, ‘শেষ ভালো যার, সব ভালো তার।’ এর পর ওয়ান্স আপঅন আ টাইম ইন হলিউড ছবিতে সহ-অভিনেতা লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিওকে ধন্যবাদ জানান পিট৷

এমন বক্তব্য দিয়ে তিনি যে ট্রাম্পের অভিশংসনের শুনানিকে বিতর্কিত করলেন সে কথা বুঝতে ভুল করেননি উপস্থিত কেউ।

উল্লেখ্য, আমেরিকার সাবেক জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টনকে দিয়ে ডেমোক্র্যাটরা ট্রাম্পের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেয়াতে চেয়েছিল। কিন্তু রিপাবলিকান সিনেটররা তাকে কথাই বলতে দেননি।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের জুলাই মাসের শেষদিকে ‘ওয়ানস আপন আ টাইম ইন হলিউড’ ছবিটি মুক্তি পায়।

ছবিটির পরিচালক কুয়েন্টিন টারানটিনো।

১৯৬০-এর দশকে একটি পরিবারে ঘটে যাওয়া খুনের ঘটনা নিয়ে চিত্রনাট্য আবর্তিত হয়েছে।

 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ট্রাম্পের অভিশংসন