তাপস পালকে নিয়ে চঞ্চল চৌধুরীর আবেগঘন স্ট্যাটাস

  বিনোদন ডেস্ক ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২৩:৩৪:২৬ | অনলাইন সংস্করণ

প্রয়াত তাপস পাল ও চঞ্চল চৌধুরী

বাংলা চলচ্চিত্রের বরেণ্য অভিনেতা তাপস পালের মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমে এসেছে ভারতীয় বাংলা সিনেমা ইন্ড্রাস্ট্রিতে।

মঙ্গলবার ভোররাত ৩টা ৩৫ মিনিটে মুম্বাইয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন বাংলা চলচ্চিত্রের এই অভিনেতা। তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর।

তাপস পালের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ পশ্চিমবঙ্গের শিল্পীমহল। শুধু পশ্চিমবঙ্গই নয়, তাপস পালের মৃত্যুর খবরে শোক জানিয়েছেন অনেক বাংলাদেশি অভিনেতারাও।

বিশেষকরে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী ভারতীয় এই অভিনেতাকে স্মরণ করে এক আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন।

পাঠকদের জন্য চঞ্চল চৌধুরীর সেই স্ট্যাটাসটি তুলে ধরা হলো- ‘আমি যখন হাইস্কুলে পড়ি, কলেজে পড়ি। সেই সময় বাংলা সিনেমায়, ওপার বাংলার জনপ্রিয়তার তুঙ্গে ছিলেন তাপস পাল, প্রসেনজিৎ (প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়) আর চিরঞ্জিত (চিরঞ্জিত চক্রবর্তী)। তারা কতটা জনপ্রিয় অভিনেতা ছিলেন, আমরা সেই প্রজন্মের দর্শক হিসেবে কালের সাক্ষী। ‘মনের মানুষ’ সিনেমার শুটিংয়ের সময় প্রসেনজিৎ দার (বুম্বা দা) সঙ্গে এ নিয়ে প্রায়ই গল্প-আড্ডা হতো।

গত বছর কলকাতায় টেলিসিনে অ্যাওয়ার্ড নিতে গিয়ে দেখা হয়েছিল চিরঞ্জিত দার সঙ্গেও। শুধুই যখন দর্শক ছিলাম, কখনও ভাবিনি ওনাদের সঙ্গে দেখা হবে। তাপস দার সঙ্গে কখনও দেখা হয়নি। একবার কলকাতার একটা সিনেমায় তাপস পালের সঙ্গে আমার অভিনয় করার কথা হয়েছিল। যে কোনো কারণে কাজটি করা হয়নি।

আজ যখন তার চির বিদায়ের কথা জানলাম, বারবার সেই অতীতে ফিরে যাচ্ছি। বারবার কানে বাজছে, ‘এ আমার গুরুদক্ষিণা, গুরুকে জানাই প্রণাম...’। বিনম্র শ্রদ্ধা হে গুণী অভিনেতা, তাপস পাল।’

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত