স্ত্রীর ছবি ঝোলানো কক্ষে নিয়ে কিশোরীকে যৌন হয়রানি করেন স্টিভেন সিগাল

  যুগান্তর ডেস্ক ২০ মার্চ ২০১৮, ১০:০২ | অনলাইন সংস্করণ

সিগাল

মার্কিন চলচ্চিত্র তারকা স্টিভেন সিগালের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ করেছেন রেজিনা সিমোনস ও ফ্যাভিওলা নামে দুই নারী।

এর মধ্যে সিমোনসের অভিযোগ, কিশোরী বয়সে তিনি সিগালের বাড়িতে এক পার্টিতে গেলে তাকে একটি কক্ষে নিয়ে জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক করেন।

ওই কক্ষটির চারপাশে সিগালের স্ত্রীর ছবি ঝোলানো ছিল। সেখানে তিনি সিমোনসকে নিয়ে দরজা আটকে জাপটে ধরে চুমু খান এবং পোশাক খুলে ফেলেন।

অভিযোগকারী দুই নারী আইনজীবী লিসা ব্লুমকে সঙ্গে নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে হাজির হয়ে সিগালের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির এ অভিযোগ করেন। তারা লসঅ্যাঞ্জেলেস পুলিশ বিভাগেও একটি অভিযোগ জমা দেন।

যৌন হয়রানির জবাবে সিগাল বলেন, রেজিনা সিমোনস ও ফ্যাভিওলা মিথ্যা বলছেন। তাদের হাতে কোনো প্রমাণ নেই। অর্থের বিনিময়ে তারা আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচারে নেমেছেন।

তিনি বলেন, এটি সত্যিকার অর্থে একটি ট্র্যাজেডি। এটি কেবল আমার ক্ষেত্রেই নয়, পৃথিবীজুড়ে হাজার হাজার মানুষ এই মিথ্যা অভিযোগের শিকার হয়েছেন। বহু লোক নিরপরাধ হওয়া সত্ত্বেও তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

অভিযোগকারী সিমোনস বলেন, তার কিশোরী জীবনের শেষ দিকে সিগালের সঙ্গে তার পরিচয় ঘটে। ১৯৯৪ সালে সিগাল তখন অন ডেডলি গ্রাউন্ড সিনেমায় অভিনয় নিয়ে ব্যস্ত। তিনি আমাকে তার বাড়িতে একটি পার্টিতে আসার দাওয়াত দেন। সেখানে যৌন হয়রানির ঘটনা ঘটে।

সিমোনসের অভিযোগ, তিনি আমাকে একটি কক্ষে নিয়ে যান। যেটিকে আমার কাছে শয়নকক্ষ মনে হয়েছে। চারপাশে তার স্ত্রীর ছবি ঝোলানো ছিল। কক্ষে ঢোকার পর সিগাল দরজা বন্ধ করে দিয়ে আমাকে পেছন থেকে জাপটে ধরে চুমু খেতে শুরু করেন। এ সময় তিনি আমার পোশাকও খুলে ফেলেন।

তিনি বলেন, আমি খুবই ব্যথিত হয়েছিলাম। তার কাছ থেকে এটি আমার কাছে একেবারে অপ্রত্যাশিত ছিল। তিনি আমার চেয়ে বয়স ও দৈহিক গঠনেও দ্বিগুণ ছিলেন। তা ছাড়া আমি তখন যৌন জীবনের সঙ্গে পরিচিত ছিলাম না। সত্যিই আমি ভয়ে জমে গিয়েছিলাম।

সিগালের বিরুদ্ধে এই নারীর অভিযোগ, তিনি আমার সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের পরিকল্পনা করেছিলেন। যাতে আমার কোনো সম্মতি ছিল না। তার আচরণে আমি নিজের চলৎশক্তি হারিয়ে ফেলেছিলাম। আমার কাছে মনে হয়েছে, বহু ওপর থেকে আমি নিজের শরীর দেখতে পাচ্ছি।

যৌন সম্পর্ক স্থাপন শেষে সিগাল আমাকে জিজ্ঞাসা করেন, আমার কোনো অর্থ লাগবে কিনা। তখন আমি লা জওয়াব। দৌড়ে ঘর থেকে বেরিয়ে যাই। এর পর আর কোনো দিন এই অভিনেতার সঙ্গে আমার কথা হয়নি।

 

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৮

converter