তুমুল সমালোচিত হয়ে লাইভে এসে যা বললেন নোবেল (ভিডিও)

  যুগান্তর ডেস্ক ২০ মে ২০২০, ০৫:২৩:৩৮ | অনলাইন সংস্করণ

বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে ফের আলোচনায় এসেছেন জি-বাংলার সংগীতবিষয়ক রিয়েলিটি শো 'সারেগামাপা-২০১৯' এর সুবাদে খ্যাতি পাওয়া তরুণ সঙ্গীতশিল্পী মাঈনুল আহসান নোবেল।

নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে এক স্ট্যাটাস দিয়ে মঙ্গলবার দিনভর সমালোচিত হন তিনি।

ওই স্ট্যাটাসে এই উঠতি সঙ্গীতশিল্পীর অহংকার প্রকাশ পেয়েছে মন্তব্য করে বিষয়টি একেবারেই মেনে নেয়ার নয় বলে জানিয়েছেন অগণিত নেটিজেন।

এমন পোস্টে নোবেলের ভক্ত-অনুরাগীরা এতোটাই বিস্মিত হন যে, অনেকেই পেজটি হ্যাক হয়েছে কিনা সন্দেহ করেন।

কেউ কেউ মন্তুব্য করেছেন, সুস্থ মস্তিস্কে এই কথাগুলো শিল্পী নোবেল লিখে থাকলে আর কখনোই তার গান শুনবেন না।

এদিকে এমন পরিস্থিতিতেও সমালোচনার আগুনে ঘি ঢাললেন নোবেল নিজেই।

ওই স্ট্যাটাস নিয়ে বিদ্রুপ চলাকালীন সময়েই তিনি লাইভে এসে জানান, তার পেজটি হ্যাক হয়নি।

তিনি বলেন, ‘এ ভাই, কি শুনলাম আমি, আমার পেজ নাকি হ্যাক হয়েছে? কই হ্যাক হয়নি। আমি তো নোবেল। রক্ত-মাংসের নোবেল। গাল টানলে বাড়ে, নাক ধরা যায়।’

ক্ষমা না চেয়ে লাইভে এভাবে পেজ হ্যাক না হওয়ার বার্তাকেও ভালোভাবে নিচ্ছেন না সঙ্গীতপ্রেমীরা।

উল্লেখ্য মঙ্গলবার দুপুর নোবেল ফেসবুকে বাংলাদেশের মিউজিক ইন্ডাস্ট্রিকে প্রায় চ্যালেঞ্জই ছুঁড়ে দিলেন।

তিনি লেখেন, ‘দু-বছর আগে জন্ম নিয়েছি আপনাদের ভালবাসা নিয়ে। দু-বছরে ফ্লপ/হিট গানের সংখ্যা দুই।

তোমার মনের ভেতর - অনুপম রায় (National Award winner)
আগুনপাখি - শান্তনু মৈত্র (National Award winner)

তোমাদের লেজেন্ড গত দশ বছর ধরে কয়টা ফ্লপ অথবা হিট রিলিজ করেছে কমেন্টস্ সেকশানে জানাও।

থুক্কু বাংলাদেশে তো গত ১০ বছরে ভালো করে কেউ মিউজিকই করেনি। দাঁড়াও তোমার লেজেন্ডদের না হয় আমিই শিখাবো, কিভাবে ২০২০ সালে মিউজিক করতে হয়।’

পোস্টের মন্তব্যের ঘরে এই উঠতি গায়কের ‘সঙ্গীত-জ্ঞান’ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন কেউ কেউ।

অনেকেই বলেছেন, বেশ কিছুদিন খোঁজখবর নেই বলে এভাবে বিতর্কিত মন্তব্য করে আলোচনায় থাকতে চাইছেন তিনি।

অনেকেই তাকে নিয়ে হাস্যরসে মেতেছেন।

উল্লেখ্য, নোবেল নানা সময় বিভিন্ন মন্তব্য করে বিতর্কে জড়িয়েছেন। গত বছর জাতীয় সঙ্গীত নিয়ে বিরূপ মন্তব্য করে নিন্দার মুখে পড়েছিলেন নোবেল।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত