সুশান্তের মৃত্যু রহস্যে ফেঁসে যাচ্ছেন আদিত্য পাঞ্চোলির ছেলে

  যুগান্তর ডেস্ক ০৪ জুলাই ২০২০, ১৭:৩৩:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

সুশান্ত, দিশা, সূর্য পাঞ্চোলি।

ময়নাতদন্তের রিপোর্টে বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত আত্মহত্যা করেছেন বলে জানানো হলেও তার মৃত্যু রহস্য নিয়ে এখনও তোলপাড় চলছে।

সুশান্তের মৃত্যুর রহস্যে প্রথমদিন থেকে জড়িয়ে আছে তার সাবেক ম্যানেজার দিশা সালিয়ান। তার মৃত্যুর মাত্র পাঁচ দিন আগে মুম্বাইয়ের মালাডের একটি বহুতল ভবন থেকে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেছিলেন দিশা।

দিশার আত্মহত্যার খবর শুনে টুইটারে সুশান্ত লিখেছিলেন, ‌‌‘এই খবর অবিশ্বাস্য। দিশার আত্মার শান্তি কামনা করছি। তার পরিবারের মানুষদের সান্ত্বনা দেয়ার মতো ভাষা আমার জানা নাই।’

দিশা ও সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর মধ্যে প্রেমঘটিত কোনো দ্বন্দ্ব ছিল কিনা তার সূত্র খুঁজছিল বান্দ্রা পুলিশ।

কিন্তু অন্যরকম চাঞ্চল্যকর এক তথ্যে এখন হতভম্ব তদন্ত কর্মকর্তারা।

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজারে প্রকাশ, সুশান্ত নয়, বলি অভিনেতা আদিত্য পাঞ্চোলির ছেলে সূর্য পাঞ্চোলির সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়েছিলেন দিশা। এমন কি, দিশা অন্তঃসত্ত্বাও ছিলেন। এ নিয়ে সুশান্তের সঙ্গে দিশার দূরত্ব বাড়ে।

সুশান্তের মৃত্যুতে দোষীদের বিচারে সম্প্রতি ‘জাস্টিস ফর সুশান্ত সিংহ রাজপুত’ নামে একটি হ্যান্ডল তৈরি হয়েছে ইনস্টাগ্রামে।

সেখানে একটি ফেসবুক পোস্টের স্ক্রিনশট শেয়ার করা হয়েছে।

সেই পোস্টে কোনো সূত্র উদ্ধৃত না করে দাবি করা হয়েছে, সূর্যের সঙ্গে প্রেম ছিল সুশান্তের সাবেক ম্যানেজার দিশার। সূর্যের সন্তানের মা হতে চলেছিলেন দিশা। কিন্তু সূর্য প্রেমিকার সন্তান চাননি। গর্ভপাত করিয়ে নিতে চাপ দিচ্ছিলেন বার বার।

এই ঘটনায় সুশান্তের সঙ্গে সূর্যের সম্পর্ক খারাপ হয়ে গিয়েছিল বলে দাবি করেন ওই পোস্টদাতা।

উল্লেখ্য, আদিত্য পাঞ্চোলির ছেলে সূর্যের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ এসেছিল ২০১৩ সালে।

ওই বছরে ৩ জুন রহস্যজনক মৃত্যু হয় সূর্যের তৎকালীন বান্ধবী জিয়া খানের। সুশান্তের মতোই ঝুলন্ত অবস্থায় দেহ উদ্ধার হয় জিয়ার।

ছয় পাতার সুইসাইড নোটে নিজের মৃত্যুর জন্য প্রেমিক সূর্যকে দায়ী করেছিলেন জিয়া।

পরে এ নিয়ে জিয়ার পরিবার মামলা করলে ৬৯ জন সাক্ষীর তালিকা পেশ করে সিবিআই। জিয়াকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত করা হয় সূর্য পাঞ্চোলিকে। সে মামলার এখনও নিষ্পত্তি হয়নি। এরই মধ্যে সুশান্ত সিং মামলায় জড়িয়ে পড়তে যাচ্ছেন সূর্য।

প্রসঙ্গত আদিত্য পাঞ্চোলি এবং জারিনা ওয়াহাবের ছেলে সূর্য ‘গুজারিশ’ এবং ‘এক থা টাইগার’ ছবিতে সহকারী পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন। ২০১৫ সালে সালমন খানের প্রয়োজনায় ‘হিরো’ ছবিতে প্রথম অভিনয় করেন সূর্য। চার বছর পর ২০১৯ সালে ‘স্যাটেলাইট শঙ্কর’ নামে আরেকটি ছবি মুক্তি পায় তার।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত