দেশে ফিরেছেন এন্ড্রু কিশোরের ছেলে

  অনলাইন ডেস্ক ১০ জুলাই ২০২০, ১২:৪২:৫০ | অনলাইন সংস্করণ

বাবার মৃত্যুর সময় পাশে ছিলেন না ছেলে এন্ড্রু সপ্তক (২৪) ও মেয়ে এন্ড্রু সংজ্ঞা (২৬)। করোনাভাইরাসজনিত কারণে সুদূর অস্ট্রেলিয়ায় আটকা পড়েছিলেন।

অন্তত বাবাকে শেষ দেখার আকুতি ছিল এন্ড্রুর সন্তানদের। সে লক্ষ্যে এন্ড্রুর মরদেহ এখন রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের হিমঘরে সংরক্ষিত।

জানা গেছে, অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরেছেন এন্ড্রু কিশোরের ছেলে সপ্তক। তবে মেয়ে সংজ্ঞা এখনও ফিরতে পারেননি। তবে চেষ্টার ত্রুটি রাখছেন না। অস্ট্রেলিয়া থেকে তিনিও শিগগিরই ফিরতে পারবেন বলে আশাবাদী এন্ড্রুর পরিবার।

শুক্রবার এসব তথ্য জানিয়েছেন প্রয়াত কণ্ঠশিল্পী এন্ড্রু কিশোরের বোনজামাই ডা. প্যাট্টিক বিপুল বিশ্বাস।

প্যাট্টিক বিপুল বিশ্বাস জানান, ‘বুধবার রাতে সপ্তক ঢাকায় আসেন। এর পর তাকে রাজশাহী আনা হয়। সংজ্ঞা ফেরার পর ১৫ জুলাই এন্ড্রু কিশোরের শেষকৃত্যের সম্ভাব্য দিন ধরে রাখা হয়েছে। ১৩ জুলাই রাতে সংজ্ঞার ঢাকায় আসার কথা রয়েছে। ১৪ জুলাই সকালে তিনি রাজশাহী আসবেন। আমরা এখন সংজ্ঞার অপেক্ষায় আছি।’

এর আগে এন্ড্রু কিশোরের বন্ধু ড. দ্বীপকেন্দ্র নাথ দাস জানিয়েছিলেন, দুই সন্তান অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরলে এন্ড্রুর মরদেহ সমাহিত করার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। ততক্ষণ পর্যন্ত মরদেহ হিমঘরেই থাকবে। শিল্পীর শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী তার মায়ের পাশেই তাকে সমাহিত করা হবে।

আটবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া এন্ড্রু কিশোর দীর্ঘদিন ক্যান্সারে ভুগছিলেন। গত বছরের সেপ্টেম্বর থেকে সিঙ্গাপুরে কেমোথেরাপি ও রেডিওথেরাপি চিকিৎসার পরও গত ১১ জুন দেশে ফেরেন। এর পর থেকে রাজশাহীতে তিনি বোনের বাসায় ছিলেন। গত ৬ জুলাই সন্ধ্যায় সেখানেই উপমহাদেশের এই কিংবদন্তি কণ্ঠশিল্পী শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

ঘটনাপ্রবাহ : এন্ড্রু কিশোর

আরও

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত