৫০ সিমকার্ড বদলেছেন সুশান্ত, একটিও নেই নিজের নামে!

  বিনোদন ডেস্ক ০৩ আগস্ট ২০২০, ১১:৩২:১৯ | অনলাইন সংস্করণ

বলিউডের প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্যের মামলায় চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এসেছে। জানা গেছে, ক্যারিয়ারে ৫০টি সিমকার্ড বদলেছেন সুশান্ত। আর এসব সিমকার্ডের একটিও তার নামে রেজিস্ট্রেশন করা ছিল না।

সুশান্ত মৃত্যুরহস্যের তদন্তকারী বিহার পুলিশের কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ তথ্য দিয়েছে ভারতের সংবাদ সংস্থা এএনআই।

এএনআই জানিয়েছে, সুশান্ত যতগুলো মোবাইল নম্বর ব্যবহার করতেন, তার মধ্যে একটি তার রুমমেট সিদ্ধার্থ পাঠানির নামে রেজিস্ট্রেশন করা। তবে সুশান্ত কেন এতোগুলো নম্বর ব্যবহার করতেন সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

বিহার পুলিশের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, সুশান্তের একাধিক ফোন নম্বরের একটিও তার নিজের নামে রেজিস্ট্রেশন করা ছিল না। আমরা ওই নম্বরগুলো থেকে কল ডিটেইলস খতিয়ে দেখা শুরু করেছি। সিমকার্ডগুলো যাদের নামে আর কোথায় থেকে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে সেসব তথ্য যোগাড় করা হচ্ছে।

এদিকে সিদ্ধার্থ পাঠানি পুলিশ ও সাংবাদিকদের কাছে স্বীকার করে জানিয়েছেন, হ্যা, সুশান্ত আমাকে একটি সিমকার্ড তুলে দিতে বলেছিলেন। তিনি সেটি নিজের নামেই রেজিস্ট্রেশন করে সুশান্তকে দেন। সব মিলিয়ের সুশান্ত প্রায় ৫০টি সিমকার্ড বদলেছিলেন।

এছাড়াও বিহার পুলিশের দেয়া একটি বিবৃতি টুইট করেছে সংবাদ সংস্থা এএনআই। সেখানে সুশান্তের মৃত্যু ঘটনায় তার সাবেক প্রয়াত ম্যানেজার দিশা সালিয়ানের পরিবারকেও জেরা করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

টুইটে লেখা হয়েছে, আমরা গত ৮ জুন মৃত্যু হওয়া সুশান্তের সাবেক ম্যানেজার দিশার পরিবারকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে চাই। যদিও আমরা এখনও পর্যন্ত দিশার পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করে উঠতে পারিনি। তবে খুব শীঘ্রই জিজ্ঞাসাবাদ করব।

এদিকে সুশান্ত মামলার তদন্তের দায়িত্ব সিবিআইকে দিতে দাবি জানিয়েছেন ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রী আর কে সিং।

তার ভাষ্য, সুশান্ত মামলায় মুম্বাই পুলিশের কোনো অগ্রগতি পরিলক্ষিত হয়নি। তারা তদন্তের নামে নিজেদের প্রচার করে গিয়েছেন। নানা সেলিব্রেটিদের শুধু জেরাই করে যাচ্ছেন। কিন্তু কাজের কাজ হচ্ছে না। তাই এখন সুশান্তভক্তসহ সবার দাবি, এই মামলার তদন্ত সিবিআইয়ের ওপর ন্যস্ত হোক।'

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত