এবার স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র পরিচালনায় অরুনা বিশ্বাস
jugantor
এবার স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র পরিচালনায় অরুনা বিশ্বাস

  যুগান্তর রিপোর্ট  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:৪৯:২১  |  অনলাইন সংস্করণ

গুণী অভিনেত্রী, নাট্যকার ও নির্দেশক অরুনা বিশ্বাস অভিনয়েই বেশি নিয়মিত। মাঝে মধ্যে নির্মাণেও তাকে দেখা যায়। দু’বছর আগে সর্বশেষ একটি নাটক নির্মাণ করেছিলেন তিনি। এর মধ্যে আর নাটক নির্মাণের তেমন কোনো সুযোগ হয়ে উঠেনি তার।

কারণ অভিনয়ের পাশাপাশি আওয়ামী রাজনীতিতে এখন বেশ সক্রিয় তিনি। এক সপ্তাহ পূর্বে অরুনা বিশ্বাস কানাডা থেকে দেশে ফিরেছেন। দেশে ফিরে তিনি রাজনীতিতেই সময় দিচ্ছেন বেশি।

অরুনা বিশ্বাস জানান, চলতি মাসের মাঝামাঝিতে তিনি প্রথমবারের মতো স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে যাচ্ছেন। এটির নাম ‘এক আজলা আগুন’।

তিনি জানান, মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন গল্প নিয়েই মূলত এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হবে। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন যেসব মেয়েদের সন্তানদের পিতৃ পরিচয় ছিল না এবং পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান তাদের পিতার পরিচয়ের ক্ষেত্রে নিজের নামের কথা এবং ৩২ নম্বর বাড়িই হবে তাদের ঠিকানা- এ বিষয়টিই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটিতে তুলে ধরা হবে বলে জানান অরুনা বিশ্বাস।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ চলচ্চিত্রের এখনও শিল্পী নির্বাচন সম্পন্ন হয়নি। তবে অভিনয়ে সিদ্ধহস্ত এমন শিল্পী নিয়েই কাজ করব। অনেক সময় পরিস্থিতিও অনুকূলে থাকে না, যে কারণে নির্মাণে আমার ধারাবাহিকতা নেই। আমার অভিনয়ে এবং নির্মাণে আমার অনেক বড় অনুপ্রেরণা আমার বাবা অমলেন্দু বিশ্বাস এবং আমার মা জ্যোৎস্না বিশ্বাস। তাদের কারণেই পৃথিবীতে আসা, এই পৃথিবীর আলোর মুখ দেখা। তাদের কারণেই কিন্তু আমি আজকের অরুনা বিশ্বাস। আর যার ছায়াতলে, যার আশীর্বাদে নিজেকে একজন পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টায় এখনো ব্রত আমি; তিনি আমাদের সবার প্রিয় প্রধানমন্ত্রী। তিনি এই দেশকে, দেশের মানুষকে ভালোবেসে দিন-রাত নিরলসভাবে শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন। সব সময়ই প্রার্থনা করি তিনি যেন সুস্থ থাকেন ভালো থাকেন, আমাদের মাঝে থাকেন।

এদিকে দ্বিতীয়বারের মতো সেন্সর বোর্ডের সদস্য হিসেবে কাজ করছেন অরুনা বিশ্বাস। মুক্তির অপেক্ষায় আছে অরুনা বিশ্বাস অভিনীত এম রাহিম পরিচালিত ‘শান’ সিনেমাটি। এতে তিনি পূজা চেরীর মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।

এবার স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র পরিচালনায় অরুনা বিশ্বাস

 যুগান্তর রিপোর্ট 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৪৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গুণী অভিনেত্রী, নাট্যকার ও নির্দেশক অরুনা বিশ্বাস অভিনয়েই বেশি নিয়মিত। মাঝে মধ্যে নির্মাণেও তাকে দেখা যায়। দু’বছর আগে সর্বশেষ একটি নাটক নির্মাণ করেছিলেন তিনি। এর মধ্যে আর নাটক নির্মাণের তেমন কোনো সুযোগ হয়ে উঠেনি তার। 

কারণ অভিনয়ের পাশাপাশি আওয়ামী রাজনীতিতে এখন বেশ সক্রিয় তিনি। এক সপ্তাহ পূর্বে অরুনা বিশ্বাস কানাডা থেকে দেশে ফিরেছেন। দেশে ফিরে  তিনি রাজনীতিতেই সময় দিচ্ছেন বেশি। 

অরুনা বিশ্বাস জানান, চলতি মাসের মাঝামাঝিতে তিনি প্রথমবারের মতো স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে যাচ্ছেন। এটির নাম ‘এক আজলা আগুন’। 

তিনি জানান, মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন গল্প নিয়েই মূলত এই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র নির্মাণ করা হবে। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন যেসব মেয়েদের সন্তানদের পিতৃ পরিচয় ছিল না এবং পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান তাদের পিতার পরিচয়ের ক্ষেত্রে নিজের নামের কথা এবং ৩২ নম্বর বাড়িই হবে তাদের ঠিকানা- এ বিষয়টিই স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রটিতে তুলে ধরা হবে বলে জানান অরুনা বিশ্বাস। 

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এ চলচ্চিত্রের এখনও শিল্পী নির্বাচন সম্পন্ন হয়নি। তবে অভিনয়ে সিদ্ধহস্ত এমন শিল্পী নিয়েই কাজ করব। অনেক সময় পরিস্থিতিও অনুকূলে থাকে না, যে কারণে নির্মাণে আমার ধারাবাহিকতা নেই। আমার অভিনয়ে এবং নির্মাণে আমার অনেক বড় অনুপ্রেরণা আমার বাবা অমলেন্দু বিশ্বাস এবং আমার মা জ্যোৎস্না বিশ্বাস। তাদের কারণেই পৃথিবীতে আসা, এই পৃথিবীর আলোর মুখ দেখা। তাদের কারণেই কিন্তু আমি আজকের অরুনা বিশ্বাস। আর যার ছায়াতলে, যার আশীর্বাদে নিজেকে একজন পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টায় এখনো ব্রত আমি; তিনি আমাদের সবার প্রিয় প্রধানমন্ত্রী। তিনি এই দেশকে, দেশের মানুষকে ভালোবেসে দিন-রাত নিরলসভাবে শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন। সব সময়ই প্রার্থনা করি তিনি যেন সুস্থ থাকেন ভালো থাকেন, আমাদের মাঝে থাকেন।

এদিকে দ্বিতীয়বারের মতো সেন্সর বোর্ডের সদস্য হিসেবে কাজ করছেন অরুনা বিশ্বাস। মুক্তির অপেক্ষায় আছে অরুনা বিশ্বাস অভিনীত এম রাহিম পরিচালিত ‘শান’ সিনেমাটি। এতে তিনি পূজা চেরীর মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করেছেন।