১০ বছর ধরে যে জটিল রোগে ভুগছেন অনিল কাপুর
jugantor
১০ বছর ধরে যে জটিল রোগে ভুগছেন অনিল কাপুর

  বিনোদন ডেস্ক  

২১ অক্টোবর ২০২০, ০১:২৫:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

১০ বছর ধরেজটিল রোগে ভুগছেন বলিউডের ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’অনিল কাপুর। কিন্তু এ বিষয়ে পরিবারের বাইরে কাউকে কিছু না জানিয়েই গোপনেচিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি।

অবশেষে নিজের সেই শারীরিক অসুস্থার বিষয়ে মুখ খুললেন এই জনপ্রিয় অভিনেতা।

গত ১০ বছর ধরে অ্যাকিলিস টেন্ডন নামে একটি রোগে ভুগছেন, জানালেন তিনি।

নিজের ইনস্টাগ্রামে স্কিপিংয়ের ছবি পোস্ট করে অনিল কাপুর লেখেন, ১০ বছর ধরে অ্যাকিলিস টেন্ডন রোগ শরীরে বয়ে বেড়াচ্ছি। পরিবারের বাইরে কাউকে জানতে দিইনি। বিশ্বের বেশ কয়েকজন চিকিৎসকের কাছে গিয়েছিলাম। সবাই অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দিয়েছিল। কিন্তু জার্মানির ক্রীড়া চিকিৎসক ড. হানস উলহেম মুলার উলফার্ট অস্ত্রোপচার ছাড়াই আমাকে নতুন জীবন দিয়েছেন। খুঁড়িয়ে হাঁটা থেকে এখন আমি দৌড়ানো, এমনকি স্কিপিং পর্যন্ত করতে পারছি। অস্ত্রোপচার ছাড়াই ওষুধ ও নিয়ম করে শরীরচর্চার মাধ্যমে অস্তে আস্তে সুস্থ হয়ে উঠছি।

এই রোগমুক্তির বিষয়ে অনিল কাপুর জানান, প্রতিদিন হাঁটতে হয় তাকে। ব্যায়াম করতে হয়। করোনাকালেও মুম্বাইয়ের পার্কে নিয়মিত হেঁটেছেন। স্কিপিংও করেন প্রতিদিন। এক দিনও এই শরীরচর্চার অভ্যাস বাদ যায় না তারা।

অ্যাকিলিস টেন্ডনে পায়ের গোড়ালির ওপরের অংশের টিস্যু ক্ষয় হতে থাকে। রোগের প্রভাবে মানুষ হাঁটা-চলার ক্ষমতা পর্যন্ত হারিয়ে ফেলতে পারে। এতে এক জায়গায় বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকে যায় না।

তথ্যসূত্র: ডেইলি হান্ট

১০ বছর ধরে যে জটিল রোগে ভুগছেন অনিল কাপুর

 বিনোদন ডেস্ক 
২১ অক্টোবর ২০২০, ০১:২৫ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

১০ বছর ধরে জটিল রোগে ভুগছেন বলিউডের ‘মিস্টার ইন্ডিয়া’অনিল কাপুর। কিন্তু এ বিষয়ে পরিবারের বাইরে কাউকে কিছু না জানিয়েই গোপনে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। 

অবশেষে নিজের সেই শারীরিক অসুস্থার বিষয়ে মুখ খুললেন এই জনপ্রিয় অভিনেতা।

গত ১০ বছর ধরে অ্যাকিলিস টেন্ডন নামে একটি রোগে ভুগছেন, জানালেন তিনি।

নিজের ইনস্টাগ্রামে স্কিপিংয়ের ছবি পোস্ট করে অনিল কাপুর লেখেন, ১০ বছর ধরে অ্যাকিলিস টেন্ডন রোগ শরীরে বয়ে বেড়াচ্ছি। পরিবারের বাইরে কাউকে জানতে দিইনি। বিশ্বের বেশ কয়েকজন চিকিৎসকের কাছে গিয়েছিলাম। সবাই অস্ত্রোপচারের পরামর্শ দিয়েছিল। কিন্তু জার্মানির ক্রীড়া চিকিৎসক ড. হানস উলহেম মুলার উলফার্ট অস্ত্রোপচার ছাড়াই আমাকে নতুন জীবন দিয়েছেন। খুঁড়িয়ে হাঁটা থেকে এখন আমি দৌড়ানো, এমনকি স্কিপিং পর্যন্ত করতে পারছি। অস্ত্রোপচার ছাড়াই ওষুধ ও নিয়ম করে শরীরচর্চার মাধ্যমে অস্তে আস্তে সুস্থ হয়ে উঠছি।

এই রোগমুক্তির বিষয়ে অনিল কাপুর জানান, প্রতিদিন হাঁটতে হয় তাকে। ব্যায়াম করতে হয়।  করোনাকালেও মুম্বাইয়ের পার্কে নিয়মিত হেঁটেছেন। স্কিপিংও করেন প্রতিদিন। এক দিনও এই শরীরচর্চার অভ্যাস বাদ যায় না তারা।

অ্যাকিলিস টেন্ডনে পায়ের গোড়ালির ওপরের অংশের টিস্যু ক্ষয় হতে থাকে। রোগের প্রভাবে মানুষ হাঁটা-চলার ক্ষমতা পর্যন্ত হারিয়ে ফেলতে পারে। এতে এক জায়গায় বেশিক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকে যায় না। 

তথ্যসূত্র: ডেইলি হান্ট