সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম
jugantor
সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম

  বিনোদন প্রতিবেদন  

১৯ জানুয়ারি ২০২১, ১৮:২১:৪৫  |  অনলাইন সংস্করণ

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন চলচ্চিত্র অভিনেতা ও নির্মাতা ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম। চার দিন আগে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় ফেরার পথে রাত ৩টার দিকে কুমিল্লার দাউদকান্দি ব্রিজে ট্রাফিক সিগন্যালে অপেক্ষমাণ ছিল তাকে বহনকৃত একটি জিপ।

এ সময় একটি কাভার্ডভ্যান পেছন থেকে সজোরে তার জিপটিকে ধাক্কা দেয়। গাড়ির ভেতর বসে থাকা ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম সামনের দিকে ছিটকে পড়েন। প্রাণে বেঁচে গেলেও তার অবস্থা ছিল বেশ সংকটাপন্ন।

ওই সময় সেখানে কর্তব্যরত পুলিশের সহায়তায় তিনি দ্রুত ঢাকায় আসেন। রাজধানীর একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয় তাকে। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।

দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে যুগান্তরকে তিনি বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমতে আমি বেঁচে আছি। তবে বুকের ব্যথাটা খুব ভোগাচ্ছে। ডাক্তার অনুমতি দিলে দুই-এক দিনের মধ্যেই বাসায় ফিরে যাব। সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।

বর্তমানে চলচ্চিত্রে অভিনয় কিংবা নির্মাণের সঙ্গে সম্পৃক্ত না থাকলেও নতুন ছবি প্রযোজনার চিন্তাভাবনা করছেন তিনি। করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমে এলে কাজ শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন।

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম

 বিনোদন প্রতিবেদন 
১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৬:২১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন চলচ্চিত্র অভিনেতা ও নির্মাতা ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম। চার দিন আগে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় ফেরার পথে রাত ৩টার দিকে কুমিল্লার দাউদকান্দি ব্রিজে ট্রাফিক সিগন্যালে অপেক্ষমাণ ছিল তাকে বহনকৃত একটি জিপ।

এ সময় একটি কাভার্ডভ্যান পেছন থেকে সজোরে তার জিপটিকে ধাক্কা দেয়। গাড়ির ভেতর বসে থাকা ওস্তাদ জাহাঙ্গীর আলম সামনের দিকে ছিটকে পড়েন। প্রাণে বেঁচে গেলেও তার অবস্থা ছিল বেশ সংকটাপন্ন। 

ওই সময় সেখানে কর্তব্যরত পুলিশের সহায়তায় তিনি দ্রুত ঢাকায় আসেন। রাজধানীর একটি ক্লিনিকে ভর্তি করা হয় তাকে। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল। 

দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে যুগান্তরকে তিনি বলেন, আল্লাহর অশেষ রহমতে আমি বেঁচে আছি। তবে বুকের ব্যথাটা খুব ভোগাচ্ছে। ডাক্তার অনুমতি দিলে দুই-এক দিনের মধ্যেই বাসায় ফিরে যাব। সুস্থতার জন্য সবার কাছে দোয়া চাই।

বর্তমানে চলচ্চিত্রে অভিনয় কিংবা নির্মাণের সঙ্গে সম্পৃক্ত না থাকলেও নতুন ছবি প্রযোজনার চিন্তাভাবনা করছেন তিনি। করোনাভাইরাসের প্রকোপ কমে এলে কাজ শুরু করবেন বলে জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন