সেই স্ট্যাটাসটি মুছে ফেলেছেন শবনম ফারিয়া!
jugantor
সেই স্ট্যাটাসটি মুছে ফেলেছেন শবনম ফারিয়া!

  বিনোদন প্রতিবেদক  

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৪:৫৭:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

সদ্যবিবাহিত বাংলাদেশের ক্রিকেটের ‘ব্যাডবয়’খ্যাত নাসির হোসেন ও বিমানবালা তামিমা তাম্মিকে শুভকামনা জানিয়ে দেওয়া সেই স্ট্যাটাসটি ফেসবুক থেকে মুছে ফেলেছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া।

ধারণা করা হচ্ছে, ডিভোর্স পেপার ছাড়াই অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করা নাসিরকে শুভেচ্ছা জানানোয় নেটিজেনদের সমালোচনার মুখে তিনি হয়তো স্ট্যাটাসটি মুছে ফেলেছেন।

শবনম ফারিয়ার দুটি ফেসবুক আইডি রয়েছে। এর মধ্যে একটি আইডি ভেরিফায়েড, যেটির ফলোয়ার সংখ্যা ১৬ লাখ। অন্যটির অনুসারীর সংখ্যা ৬ লাখ ৫৯ হাজারের বেশি।

মঙ্গলবার বেলা ২টা ১৬ মিনিটে এই অভিনেত্রী তার আনভেরিফায়েড আইডি থেকে ইংরেজিতে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি লেখেন– ‘যখন বাইরের পৃথিবী তোমাকে টেনে নিচে নামাতে চায়, তখন তোমার ভেতরের শক্তিটার ওপর ভরসা রাখো। নাসির হোসেন ও তার সদ্যবিবাহিত স্ত্রীর জন্য ভালোবাসা ও দোয়া পাঠাচ্ছি... আর দয়া করে মনে রাখবেন, বিয়ে আল্লাহ ঠিক করেছেন, বিয়ে আল্লাহর দেওয়া নিয়ামত...।’

স্ট্যাটাসে শবনম ফারিয়া সুরা রুমের ২১ নম্বর আয়াত যুক্ত করেন।

যার অর্থ- ‘আর এক নিদর্শন এই যে, তিনি তোমাদের জন্য তোমাদের মধ্য থেকে তোমাদের সঙ্গিনীদের সৃষ্টি করেছেন, যাতে তোমরা তাদের কাছে শান্তিতে থাক এবং তিনি তোমাদের মধ্যে পারস্পরিক সম্প্রীতি ও দয়া সৃষ্টি করেছেন।’

নাসির ও তামিমাকে শুভকামনা জানিয়ে দেওয়া ওই স্ট্যাটাস নিয়ে বেশ কয়েকটি অনলাইন পোর্টাল সংবাদও প্রকাশ করে। কিন্তু বুধবার সকালে শবনম ফারিয়ার ফেসবুক আইডিতে সেই স্ট্যাটাসটি আর পাওয়া যায়নি।

তবে কেন তিনি স্ট্যাটাস দিয়ে আবার মুছে ফেললেন সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, ডিভোর্স পেপার ছাড়াই অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করা নাসিরকে শুভেচ্ছা জানানোয় নেটিজেনদের সমালোচনার মুখে পড়েছেছিলেন অভিনেত্রী। এ জন্য তিনি হয়তো স্ট্যাটাসটি মুছে দিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বুধবার দুপুরে শবনম ফারিয়া যুগান্তরকে বলেন, আমার একটি ফেসবুক আইডি থেকে নাসিরকে শুধু শুভকামনা জানিয়েছিলাম। এর বেশি কিছু নয়।

২০১৯ সালের ১ ফেব্রুয়ারি জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া ও বেসরকারি চাকরিজীবী হারুন অর রশীদ অপু।

গেল বছরের ২৮ নভেম্বর সন্ধ্যা ৫টা ৪৩ মিনিটে এক দীর্ঘ ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিবাহবিচ্ছেদের খবর জানান শবনম ফারিয়া।

সেই স্ট্যাটাসটি মুছে ফেলেছেন শবনম ফারিয়া!

 বিনোদন প্রতিবেদক 
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ০২:৫৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

সদ্যবিবাহিত বাংলাদেশের ক্রিকেটের ‘ব্যাডবয়’খ্যাত নাসির হোসেন ও বিমানবালা তামিমা তাম্মিকে শুভকামনা জানিয়ে দেওয়া সেই স্ট্যাটাসটি ফেসবুক থেকে মুছে ফেলেছেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া।  

ধারণা করা হচ্ছে, ডিভোর্স পেপার ছাড়াই অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করা নাসিরকে শুভেচ্ছা জানানোয় নেটিজেনদের সমালোচনার মুখে তিনি হয়তো স্ট্যাটাসটি মুছে ফেলেছেন। 

শবনম ফারিয়ার দুটি ফেসবুক আইডি রয়েছে। এর মধ্যে একটি আইডি ভেরিফায়েড, যেটির ফলোয়ার সংখ্যা ১৬ লাখ। অন্যটির অনুসারীর সংখ্যা ৬ লাখ ৫৯ হাজারের বেশি।  

মঙ্গলবার বেলা ২টা ১৬ মিনিটে এই অভিনেত্রী তার আনভেরিফায়েড আইডি থেকে ইংরেজিতে একটি স্ট্যাটাস দেন। সেখানে তিনি লেখেন– ‘যখন বাইরের পৃথিবী তোমাকে টেনে নিচে নামাতে চায়, তখন তোমার ভেতরের শক্তিটার ওপর ভরসা রাখো। নাসির হোসেন ও তার সদ্যবিবাহিত স্ত্রীর জন্য ভালোবাসা ও দোয়া পাঠাচ্ছি... আর দয়া করে মনে রাখবেন, বিয়ে আল্লাহ ঠিক করেছেন, বিয়ে আল্লাহর দেওয়া নিয়ামত...।’ 

স্ট্যাটাসে শবনম ফারিয়া সুরা রুমের ২১ নম্বর আয়াত যুক্ত করেন। 

যার অর্থ- ‘আর এক নিদর্শন এই যে, তিনি তোমাদের জন্য তোমাদের মধ্য থেকে তোমাদের সঙ্গিনীদের সৃষ্টি করেছেন, যাতে তোমরা তাদের কাছে শান্তিতে থাক এবং তিনি তোমাদের মধ্যে পারস্পরিক সম্প্রীতি ও দয়া সৃষ্টি করেছেন।’

নাসির ও তামিমাকে শুভকামনা জানিয়ে দেওয়া ওই স্ট্যাটাস নিয়ে বেশ কয়েকটি অনলাইন পোর্টাল সংবাদও প্রকাশ করে। কিন্তু বুধবার সকালে শবনম ফারিয়ার ফেসবুক আইডিতে সেই স্ট্যাটাসটি আর পাওয়া যায়নি।  

তবে কেন তিনি স্ট্যাটাস দিয়ে আবার মুছে ফেললেন সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি। তবে ধারণা করা হচ্ছে, ডিভোর্স পেপার ছাড়াই অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করা নাসিরকে শুভেচ্ছা জানানোয় নেটিজেনদের সমালোচনার মুখে পড়েছেছিলেন অভিনেত্রী। এ জন্য তিনি হয়তো স্ট্যাটাসটি মুছে দিয়েছেন। 

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বুধবার দুপুরে শবনম ফারিয়া যুগান্তরকে বলেন, আমার একটি ফেসবুক আইডি থেকে নাসিরকে শুধু শুভকামনা জানিয়েছিলাম। এর বেশি কিছু নয়। 

২০১৯ সালের ১ ফেব্রুয়ারি জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী শবনম ফারিয়া ও বেসরকারি চাকরিজীবী হারুন অর রশীদ অপু। 

গেল বছরের ২৮ নভেম্বর সন্ধ্যা ৫টা ৪৩ মিনিটে এক দীর্ঘ ফেসবুক স্ট্যাটাসে বিবাহবিচ্ছেদের খবর জানান শবনম ফারিয়া।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন